• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

EPFO এবার করোনার আবহে সুদের হার নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত নিল! চলতি আর্থিক বছরে কী হতে চলেছে

  • |

চলতি বছরে করোনার প্রকোপে অনেক কিছুই পরিবর্তিত হয়েছে। আর এই পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে প্রভিডেন্ট ফান্ডে সুদের হার নিয়ে ইপিএফও একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই অর্থবর্ষে দুই কিস্তিতে সুদ দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। বিষয়টি কীরকম দাঁড়াচ্ছে দেখে নেওয়া যাক।

 কীভাবে সুদ দেওয়া হবে?

কীভাবে সুদ দেওয়া হবে?

২০১৯-২০ আর্থিক বছরে ইপিএফও দুটি কিস্তিতে সুদ দেবে বলে ঠিক করেছে।জানা হয়েছে বর্তমানে ৮. ১৫ শতাংশ হারে ইপিএফও চলতি আর্থিক বছরের প্রথম কিস্তির সুদ দেবে। পরের ০.৩৫ শতাংশ ডিসেম্বরে দেওয়া হবে।

কেন এমন সিদ্ধান্ত?

কেন এমন সিদ্ধান্ত?

উল্লেখ্য, করোনা পরিস্থিতিতে ক্রমাগত দুর্ভোগের মধ্যে ইপিএফওকেও পড়তে হয়েছে। দেখা গিয়েছে, গ্রাহকদের প্রাপ্য ৮.৫ শতাংশের সুদ যদি ইপিএফও ২০১৯-২০ আর্থিক বছরে একসঙ্গে দিয়ে দেয় , তাহলে প্রতিষ্ঠান ২৫০০ কোটি টাকার ঘাটতির মুখে পড়বে। তার জেরেই এমন সিদ্ধান্ত।

 মার্চে কী ঘটেছিল?

মার্চে কী ঘটেছিল?

এর আগে ২০১৯-২০ সালের মার্চে ইপিএফও ৮.৫ শতাংশ সুদ দেওয়ার কথা ঘোষণা করে। তবে করোনার জেরে ইপিএফওর ক্ষেত্রে সমস্যা তৈরি হয়েছে। বহু লগ্নি ভাঙানো হয়নি বলে খবর। তারপরই এমন সিদ্ধান্ত।

 সাত বছরে সবচেয়ে কম সুদের হার!

সাত বছরে সবচেয়ে কম সুদের হার!

ইপিএফও যেভাবে সুদের স্তর ৮.৫ রেখেছে,তাতে দেখা গিয়েছে গত ৭ বছরে সবচেয়ে কম সুদ এই আর্থিক বর্ষেই উঠে এসেছে। গত বছর ইপিএফও ৮.৬৫ শতাংশ সুদ দিয়েছে। এদিকে, যদি ডিসেম্বরেও ইপিএফও সঠিকহারে বাকি ০.৩৫ শতাংশ সুদ না দিতে পারে, তাহলে তা ১৯৭৭-৭৮ সালের পর সবচেয়ে কম রিটার্ন হয়ে উঠবে।

English summary
EPFO decides to pay 8. 5 percent interest in fy20 because of Covid pandemic
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X