• search

এবার গোরক্ষকদের ওপর হামলা ৫০ জনের সশস্ত্র দলের

  • By Sritama Mitra
Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    এবার গোরক্ষকদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটল মহারাষ্ট্রের আহমেদনগরে। জানা গিয়েছে প্রায় ৫০ জনের একটি দল গোরক্ষকদের ওপর চড়াও হয়। ঘটনার সূত্রপাত , কিছু গরুকে অবৈধ গোহত্যার জন্য নিয়ে যাওয়ার অভিযোগকে ঘিরে। আহমেদনগরের শ্রীগোন্দা পুলিশ স্টেশনে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ দায়ের করেছেন গোরক্ষকরা। গ্রেফতার ২ জন।

    এবার গোরক্ষকদের ওপর হামলা ৫০ জনের শসস্ত্র দলের

    উল্লেখ্য, গোরক্ষকদের একটি ১১ জনের দল মহারাষ্ট্রের শ্রীগোন্দা তালুকে গরুর অবৈধ পাচারের খবর পেয়ে হাজির হন। যেখানে কাশতি গ্রামে প্রতি সপ্তাহেই পশুদের হাট বসে, অভিযোগ সেখানে থেকেই পাচার হয় গরু। সেখানে গিয়েই তারা একটি টেম্পোকে চিহ্নিত করেন যাতে করে অবৈধভাবে গরু পাচার চলছিল বলে তাঁদের দাবি। সঙ্গে সঙ্গে তাঁরা পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন।

    এদিকে, পুলিশ ওই টেম্পোটিকে পাকড়াও করে, উদ্ধার করে পাচার হতে তলা গরুদের। এরপর ওই ১১ জন গোরক্ষকের দল একটি স্থানীয় হোটেলে খেতে গেলে , তাঁদের ঘিরে ধরে জনা ৫০ এর একটি বড় দল। অভিযোগ , এই ৫০ জনের দলটি ছিল সশস্ত্র। এঁদের প্রত্যেকের কাছে ধারালো অস্ত্র ছিল বলে দাবি গোরক্ষকদের। উল্লেখ্য, ওই ৫০ জনের দলে , ধৃত টেম্পোটির চালক ও তার সঙ্গী ছিল বলে দাবি করা হয়। এরপরই সেখান থেকে ছুটে পালিয়ে গোরক্ষকরা ফের পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন। পরে , পুলিশ টেম্পোর চালক ও খালাসিকে গ্রেফতার করে।

    English summary
    A mob of around 50 persons allegedly attacked gau rakshaks near Shrigonda police station in Ahmednagar district on Saturday evening, soon after they, along with police, had intercepted a tempo reportedly illegally transporting cows to a slaughterhouse. The Ahmednagar police said seven gau rakshaks were injured in the attack. A case of attempt to murder has been registered at the Shrigonda police station.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more