• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

৮ ঘণ্টার পরিবর্তে এবার কাজ করতে হবে ১২ ঘণ্টা! করোনার প্রভাবে কর্মীদের মাথায় হাত

কর্মচারীদের অফিসে এবার থেকে বেশি সময় ব্যয় করতে হবে। কেন্দ্র এক বিজ্ঞপ্তিতে তারই প্রস্তুতি নিতে আবেদন করেছে। কেন্দ্রীয় সরকার কাজের সময়কে আট ঘন্টা থেকে বাড়িয়ে ১২ ঘন্টা করে দেওয়ার জন্য অধ্যাদেশ জারি করেছে। এটি করোনভাইরাস লকডাউনের তাৎক্ষণিক প্রভাব বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

শ্রম ঘাটতির মুখে সরকার, বাড়ছে কর্মসময়

শ্রম ঘাটতির মুখে সরকার, বাড়ছে কর্মসময়

দীর্ঘ লকডাউনের ফলে শ্রম ঘাটতির মুখে পড়েছে সরকার। এই সমস্যা সমাধানের একমাত্র উপায় দৈনিক কাজের সময় বাড়ানো। তাহলেই একমাত্র বিভিন্ন সংস্থা সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কাজ করতে পারবে। সর্বভারতীয় দৈনিকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই অধ্যাদেশের ফলে বিভিন্ন রাজ্য সরকার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের কাজের সময় বাড়াতে নমনীয় হবে।

শ্রম ঘাটতিতে সহায়তা করবে সরকারের অধ্যাদেশ

শ্রম ঘাটতিতে সহায়তা করবে সরকারের অধ্যাদেশ

এই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, পেশাগত সুরক্ষা, স্বাস্থ্য ও কার্যকরী শর্তাদি স্বার্থে এই অধ্যাদেশ কার্যকর করার বার্তা দিয়েছে শ্রম মন্ত্রক। কিছু সংস্থা ও শিল্প প্রতিষ্ঠান কাজের সময় বাড়ানোর জন্য সরকারকে অনুরোধ করে। কারণ প্রবাসী শ্রমিকরা ফিরে গিয়েছে। ফলে শ্রম ঘাটতি তৈরি হয়েছে। এই সমস্যা সমাধানে তাদের সহায়তা করবে সরকারের অধ্যাদেশ।

২১ দিনের করোনা লকডাউন শেষে অধ্যাদেশ

২১ দিনের করোনা লকডাউন শেষে অধ্যাদেশ

মঙ্গলবার শেষ হচ্ছে ২১ দিনের করোনা লকডাউন। তার আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ৩ মে পর্যন্ত বাড়িয়ে দিয়েছেন। তবে প্রধানমন্ত্রী সেইসঙ্গে যোগ করেছেন, যে সমস্ত জায়গায় হটস্পট নেই সেখানে ২০ এপ্রিলের পরে কিছুটা শিথিলতার অনুমতি দেওয়া যেতে পারে।

লকডাউনে উদ্বেগে সরকার

লকডাউনে উদ্বেগে সরকার

অভিবাসী ও দৈনিক মজুরির শ্রমিকদের সামগ্রিক অর্থনীতি ও জীবিকার উপর লকডাউনের বিপর্যয়মূলক প্রভাব মারাত্মক উদ্বেগ সৃষ্টি করেছে। শনিবার প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে বেশ কয়েকজন মুখ্যমন্ত্রী বেশ কয়েকটি খাতের এক ধরনের শিথিলকরণ চেয়েছিলেন।

অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড পুনরুজ্জীবিত করার পরিকল্পনায়

অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড পুনরুজ্জীবিত করার পরিকল্পনায়

অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড পুনরুজ্জীবিত করার পরিকল্পনায় কেন্দ্রীয়মন্ত্রীরা সোমবার থেকে নিজ নিজ কার্যালয় থেকে কাজ শুরু করেছেন। গত সপ্তাহে সরকার এক আদেশে যুগ্ম-সচিব স্তরের অফিসারদের এবং এরপর সকল কর্মকর্তাকে সোমবার থেকে প্রয়োজনীয় এক-তৃতীয়াংশ কর্মীসহ উপস্থিত থাকতে বলেছিল।

রাজ্যে করোনায় টেস্ট ঠিকমতো হচ্ছে না, বিস্ফোরক দিলীপ ঘোষ

দুই সরকার লকডাউনকে ফেল করাচ্ছে! করোনা নিয়ে বিপদ বাড়াচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী, বিস্ফোরক সুজন চক্রবর্তী

English summary
Employees may need to gear up to spend 12 hours per day at office due corona crisis. Central government is working on an ordinance to increase work hours from 8 hours,
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X