• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

ভারতের মাটিতেই সৌর সরঞ্জাম প্রস্তুতিতে জোর! চিনা আমদানিতে বসছে ১৫-২০% অতিরিক্ত শুল্ক

  • |

ইতিমধ্যেই মধ্যপ্রদেশের রেওয়া জেলায় এশিয়ার বৃহত্তম এশিয়ার বহত্তম সৌরবিদ্যুৎ উত্পাদন কেন্দ্রের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ১৫৯০ একর জমির উপর তৈরি করা হয়েছে এই প্ল্যান্ট। এদিকে চিন-ভারত সংঘাতের আবহেই ভারতে আরও বেশি সংখ্যক সৌরবিদ্যুৎ উত্পাদক ও সরঞ্জাম প্রস্তুতকারী অঞ্চল তৈরির লক্ষ্য ব্রতী হয়েছে ভারত সরকার।

সৌর সরঞ্জাম আমদানির উপর ১৫-২০% অতিরিক্ত শুল্ক বসানোর প্রস্তাব

সৌর সরঞ্জাম আমদানির উপর ১৫-২০% অতিরিক্ত শুল্ক বসানোর প্রস্তাব

এই ক্ষেত্রেও দেশীয় পণ্যায়নের উপল জোর দিয়ে এই খাতে চিনা পণ্য আমদানির উপর বাড়তি আমদানি শুল্ক বসানো হচ্ছে বলে খবর। ইতিমধ্যেই দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় অধীনস্থ সংস্থা নতুন প্ল্যান্ট স্থাপনের জন্য দেশের মধ্যে ৬ থেকে ৭টি জায়গা চিহ্নিত করেছে বলেও জানা যাচ্ছে। একইসাথে স্থানীয় স্তরের উত্পাদনে জোর দিতে সৌর সরঞ্জাম আমদানির উপর ১৫-২০% অতিরিক্ত শুল্ক বসানোর প্রস্তাব দিয়েছেন দেশের নতুন ও পুর্ননবীকরণযোগ্য জ্বালান মন্ত্রক।

৮০ শতাংশ সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদক সরঞ্জাম চিন থেকে আমদানি ভারতের

৮০ শতাংশ সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদক সরঞ্জাম চিন থেকে আমদানি ভারতের

এদিকে এতদিন পর্যন্ত প্রায় ৮০ শতাংশ সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদক সরঞ্জাম চিন থেকেই আমদামি করত ভারত। বর্তমানে এই পরিমাণ কিভাবে হ্রাস করা যায় সেই বিষয়েই নতুন করে জোর দিতে দেখা যায় নতুন ও পুর্ননবীকরণযোগ্য জ্বালানি মন্ত্রী আরকে সিং। এই প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, "আমরা উৎপাদন অঞ্চল নিয়ে নতুন করে ভাবনা চিন্তা শুরু করেছি। এই বিষয়ে নৌ পরিবহন মন্ত্রকের সাথেও আলোচনা করেছি। এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য বিভিন্ন বন্দরের কাছে সহজে জমি পাওয়ার ব্যাপারটি দেখার কথাও জানিয়েছি তাদের।"

অর্থমন্ত্রকে চিঠি আর কে সিংয়ের

অর্থমন্ত্রকে চিঠি আর কে সিংয়ের

এই রাস্তায় হেঁটে গোটা পরিকল্পনা বাস্তবের রূপ পেলে কাঁচামাল আমদানি করার সহজলভ্যতা ও পরিবহনের ক্ষেত্রে সময় ও অর্থ দুই বাঁচবে বলে মত আরকে সিংয়ের। পাশাপাশি এই ক্ষেত্রে সোলার মডিউল, সোলার সেল এবং সোলার ইনভার্টার সহ একাধিক আনুষাঙ্গিক পণ্য আমদানির ক্ষেত্রে ১৫ থেকে ২০ শতাংশ বেসিক কাস্টম শুল্ক(বিসিডি) বসানোর কথাও বলেছেন আরকে সিং। পাশাপাশি এই বিষয়ে তিনি অর্থমন্ত্রকে চিঠিও দিয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে। সূত্রের খবর, সংঘাতের আবহে চিনের উপর অর্থনৈতিক চাপ বাড়াতে এবং অভ্যন্তরীণ উৎপাদন রক্ষার জন্য ২০২১ সালের জুলাই পর্যন্ত এই ব্যবস্থা কার্যকরী থাকতে পারে।

কি বলছে রাজস্ব অধিদফতরের বিজ্ঞপ্তি

কি বলছে রাজস্ব অধিদফতরের বিজ্ঞপ্তি

এদিকে চলতি অর্থবর্ষে বিদেশ থেকে আমদানিকৃত সৌর সরঞ্জামে শুল্ক আদায়ের উপর একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে রাজস্ব অধিদফতর। ২৯ জুলাইয়ের বিজ্ঞপ্তিতে ৩০শে জুলাই ২০২০ থেকে ২৯শে জানুযারি ২০২১ পর্যন্ত আমদানিকৃত সৌর সরঞ্জামের উপর ১৪.৯০ শতাংশ শুল্ক ধার্য করেছে রাজস্ব অধিদফতর। পাশাপাশি ৩০শে জানুয়ারি ২০২১ থেকে ২৯সে জুলাই ২০২১ পর্যন্ত চিন, থাইল্যান্ড এবং ভিয়েতনাম থেকে আমদানিকৃত সমস্ত সোলার সেল এবং মডিউলগুলির জন্য ১৪.৫০ শতাংশ শুল্ক ধার্য করেছে।

ভারতের বিরুদ্ধে হম্বিতম্বি করা পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রীর গদি টলতে শুরু করেছে! কী ঘটছে ইসলামাবাদে

English summary
Emphasis on the preparation of solar equipment on Indian soil! Chinese imports are subject to 15-20% additional tariffs
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X