• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

কোভিডের দ্বিতীয় ওয়েভের জেরে সর্বজনীন মৃত্যুর ক্ষেত্রে এ বছর রেকর্ড গড়েছে কেরল

Google Oneindia Bengali News

২০২১ সাল চিহ্নিত হবে ধ্বংসাত্মক কোভিড–১৯–এর দ্বিতীয় ওয়েভের জন্য। এ বছর দেশে এই ওয়েভ বহু মানুষের প্রাণ কেড়েছে। যার মধ্যে কেরলে মৃত্যুর সংখ্যা সর্বোচ্চ রেকর্ড ছুঁয়েছে এ বছর। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে জুন মাসে কেরলে সবচেয়ে বেশি করোনায় মানুষ মারা গিয়েছেন।

কেরলে করোনায় মৃতের সংখ্যা

কেরলে করোনায় মৃতের সংখ্যা

এ বছরের প্রথম ৬ মাসে কেরলে মৃত্যুর সংখ্যা নথিভুক্ত হয়েছে ১,৫৫,৫২০, যা ২০২০ সালের মৃত্যুর সংখ্যা (‌১,১৫,০৮১ জনের মৃত্যু)‌-এর চেয়ে ৩৫ শতাংশ লাফ দিয়ে বেড়েছে, এ বছরই কোভিড-১৯-এর কারণে লকডাউন কার্যকর করা হয় এবং ২০১৯ সালের প্রাক-মহামারি বছরের প্রথম ৬ মাসের মৃত্যুর সংখ্যা (‌১,২৮,৬৬৭ জনের মৃত্যু)‌-এর চেয়ে ২১ শতাংশ মৃত্যু বেড়েছে। এটা হল সর্বজনীন মৃত্যু সহ সরকারি মতে কোভিড মৃত্যুর মোট সংখ্যা। রাজ্যের জন্ম ও মৃত্যুর প্রধান রেজিস্ট্রার থেকে জানা গিয়েছে যে গত বছরের তুলনায় এ বছরের মে ও জুন মাসে মৃত্যুর সংখ্যা তীব্রভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে।

এ বছরের জুন মাসে সর্বাধিক মৃত্যু

এ বছরের জুন মাসে সর্বাধিক মৃত্যু

চলতি বছরের জুন মাসটি মৃত্যুর জন্য ছিল সবচেয়ে খারাপ মাস, এই মাসে রাজ্যে ৩২,৫০১ জনের মৃত্যু রিপোর্ট হয়, যা ২০২০ সালের জুন মাসে হওয়া ২০,৬৪০ জনের মৃত্যু এবং ২০১৯ সালের জুন মাসের ২০,৬৪২ জনের মৃত্যুর চেয়ে ৫৭ শতাংশ বেশি। শুধু তাই নয়, এ বছরের মে মাসে কেরলে মৃত্যুর সংখ্যা রিপোর্ট হয়েছে ২৮,৬৮৪ টি, যা ২০২০ সালের মে মাসের ২১,৪৮৮ জনের মৃত্যুর চেয়ে ৩৩.‌৪ শতাংশ বেশি এবং ২০১৯ সালের মে মাসে ২২,৯৮৪ জনের মৃত্যুর চেয়ে ২৪.‌৮ শতাংশ বেশি। এই দু'‌মাসে কেরলে দৈনিক সর্বোচ্চ ১৫০-২০০ জনের করোনায় মৃত্যুর খবর পাওয়া যেত। ১ মে থেকে ১ জুলাই পর্যন্ত রাজ্যে মোট ৭,৯২৭ জনের মৃত্যু রেকর্ড করা হয়, কিন্তু এর মধ্যে স্বাস্থ্য বিভাগের কোভিড-১৯ মৃত্যুর প্রকৃত সংখ্যা নিয়ে করা অনুশীলনে সামনে আসা আসল মৃতের সংখ্যা যোগ করা হয়নি। এর আগে এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছিল যে দেশজুড়ে অগুণিত সরকারি কোভিড-১৯ মৃত্যু হয়েছে। তবে তা ঠিক কতটা সেটা শুধু অনুমান করা যেতে পারে এবং তার জন্য অন্তত ভারতের এক বছর সময় দরকার।

কেরলে মৃতের সংখ্যা বেশি

কেরলে মৃতের সংখ্যা বেশি

তদন্তের অংশ হিসাবে, সংবাদমাধ্যমটি বেশ কয়েকটি রাজ্য সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল, কেরল সহ আট জন, সিভিল রেজিস্ট্রেশন সিস্টেম অনুসারে এই বছরের এপ্রিল এবং মে মাসে তারা নিবন্ধিত মৃত্যুর রেকর্ড সরবরাহ করেছিল। কেরলের পরিসংখ্যানগুলি দেখিয়েছে যে ১ এপ্রিল থেকে ৩০ মে ২০২১ পর্যন্ত নিবন্ধিত সমস্ত মৃত্যুর থেকে সরকারি কোভিড মৃত্যুগুলি সরিয়ে ফেলার পরে, সংখ্যাগুলি এখনও ২০১৯ সালের অনুরূপ সময়ের পরিসংখ্যানের ১.‌২৩ গুণ বেশি ছিল। মহামারি শুরু হওয়ার পর থেকে ৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত কেরলে ৪১,৮৩১ জন কোভিড মৃত্যু রিপোর্ট হয়েছে এবং আবেদনের মাধ্যমে ১২,১৬১ জনের মৃত্যুকে যোগ করা হয়েছে।

কেরলে মৃত্যুর পরিসংখ্যান কি বলছে

কেরলে মৃত্যুর পরিসংখ্যান কি বলছে

২০২০ সালের মার্চ ও এপ্রিল মাসে লকডাউন কার্যকরের সময় কেরলে উল্লেখযোগ্যভাবে এই দুই মাসে ১৬,১৭৬ ও ১৩,৩৩৮ জনের মৃত্যু হয়। তবে ২০২১ সালে এই একই দুই মাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৪,৬৩২ ও ২১,২৩১। কেরলের তথ্য অনুয়ায়ী, ২০২০ সালে কেরলে সর্বজনীন মৃত্যুর হার, মহামারির প্রথম বছর, ২০১৯ সালে ২,৭০,৫৬৭ থেকে ২,৫৩,৬৩৮-এ নেমে এসেছে। যদিও এ বছর ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কেরলে মৃতের সংখ্যা নথিভুক্ত হয়েছে ২,১২,৭১২টি। সূত্রের খবর, মৃত্যুর রিপোর্ট দেরি করে নথিভুক্ত হওয়ায় এ বছরের অগাস্ট ও সেপ্টেম্বরে মৃতের চূড়ান্ত সংখ্যা সর্বোচ্চ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। পরিসংখ্যান বিভাগ অনুযায়ী, বাধ্যতামূলক ২১ দিনের সময়কালে মাত্র ৬৫ শতাংশের মৃত্যুর খবর রেজিস্ট্রার হয়েছে। এই তথ্যে এও ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে যে সব ধরনের মৃত্যুর জন্য ২০২১ নতুন রেকর্ড গড়তে চলেছে। কেরলে সাম্প্রতিক বছরগুলি তথ্য খতিয়ে দেখলে জানা যাবে যে এ বছরের প্রথম ৬ মাসের তুলনায় জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত রাজ্যে সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছে। এই প্রবণতা ২০২০ সালেও দেখা গিয়েছিল, যদিও ২০১৯ সালের তুলনায় ওই বছর মৃত্যুর সংখ্যা হ্রাস পেয়েছিল। যদিও ২০২১ সালে এখনও তিন মাসের তথ্য রেকর্ড করা বাকি আছে, বিশেষজ্ঞরা মোট সংখ্যার মধ্যে একবার বৃদ্ধির পূর্বাভাস দিয়েছেন।

 সর্বজনীন মৃত্যুর তথ্য

সর্বজনীন মৃত্যুর তথ্য

২০০৯ সাল থেকে সর্বজনীন মৃত্যুর তথ্য দেখায় যে ২০১৫ সাল থেকে বার্ষিক মৃত্যুর সংখ্যা স্থিরভাবে ২.৫০ লক্ষের উপরে রয়েছে, এটি এমন একটি প্রবণতা যা বিশেষজ্ঞরা রাজ্যের দ্রুত বার্ধক্য জনসংখ্যাকে দায়ী করেছেন। কেরলে অপরিশোধিত মৃত্যুর হার (প্রতি হাজার জনসংখ্যায় মৃত্যুর সংখ্যা), যা ২০০৯ সালে ৬.‌৭৪ ছিল, ২০১৯ সালে তা ৭.‌৭৭-এ পৌঁছেছিল।


খবরের ডেইলি ডোজ, কলকাতা, বাংলা, দেশ-বিদেশ, বিনোদন থেকে শুরু করে খেলা, ব্যবসা, জ্যোতিষ - সব আপডেট দেখুন বাংলায়। ডাউনলোড Bengali Oneindia

English summary
due to second wave of coronavirus all-cause of deaths in Kerala is the highest this year
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X