• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

    দক্ষিণ ভারতে দাঁত ফোটাতে পারেনি বিজেপি, লোকসভাতেও ক্ষমতা থাকবে আঞ্চলিক দলের হাতেই

    দক্ষিণ ভারতের পাঁচ বড় রাজ্য। তামিলনাড়ু, কর্ণাটক, অন্ধ্রপ্রদেশ, তেলাঙ্গানা ও কেরল। কোনও রাজ্যে এককভাবে এমনকী জোট করেও সরকারে আসতে পারেনি বিজেপি। ২০১৪ সালে মোদী ঝড়ের পরও একের পর এক বিধানসভা ভোট ও উপনির্বাচনে বিজেপি সেভাবে বড় মাত্রায় জয় পায়নি।

    দক্ষিণ ভারতে ক্ষমতা থাকবে আঞ্চলিক দলের হাতেই

    কেরলে ক্ষমতা বেড়েছে। তবে ইউডিএফকে সরিয়ে বিজেপি নয় এসেছে এলডিএফ। তামিলনাড়ুতে ক্ষমতা ধরে রেখেছে এআইএডিএমকে। কর্ণাটকে বিজেপি মরণ কামড় দিলেও শেষ মুহূর্তে সরকার গড়ে নিয়েছে জেডিএস-কংগ্রেস জোট। এদিকে অন্ধ্রপ্রদেশে চন্দ্রবাবু নাইড়ুর তেলুগু দেশম পার্টি সরকার ও তেলাঙ্গানায় কে চন্দ্রশেখর রাওয়ের তেলাঙ্গানা রাষ্ট্রীয় সমিতির সরকার রয়েছে।

    ফলে দক্ষিণে বিজেপি তথা এনডিএ তো বটেই কংগ্রেস তথা ইউপিএ-রও দাঁত ফোটানো বেশ মুশকিল হতে চলেছে। কারণ এবিপি নিউজ ও সি ভোটারের সমীক্ষা বলছে, দক্ষিণ ভারতের মোট ১২৯টি আসনের মধ্যে ২০১৯ লোকসভা ভোটে এনডিএ পেতে পারে মাত্র ২১টি আসন। এছাড়া ইউপিএ পেতে পারে মাত্র ৩২টি আসন।

    বাকী ৭৬টি আসন দখল করবে দক্ষিণ ভারতের আঞ্চলিক দলগুলি। যার মধ্যে রয়েছে, টিআরএস, টিডিপি, এআইএডিএমকে, ডিএমকে, জেডিএস, সিপিআইএমের মতো দল।

    বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, দক্ষিণ ভারতীয়দের মনের কথা তথাকথিত উত্তর ভারতীয় দলগুলির পক্ষে সেভাবে বোঝা কোনওদিনই সম্ভব নয়। তার উপরে দক্ষিণের রক্ষণশীল মানসিকতা বরাবরই ভূমিপুত্রদের প্রতি সহানুভূতিশীল। ফলে দাক্ষিণাত্য জয় বিজেপির কাছে হিমালয় ডিঙানোর মতোই কঠিন ব্যাপার হতে চলেছে।

    English summary
    Desh ka mood : No BJP wave in South India, people will vote for regional parties, says ABP survey
    For Daily Alerts

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    Notification Settings X
    Time Settings
    Done
    Clear Notification X
    Do you want to clear all the notifications from your inbox?
    Settings X
    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more