• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

জেএনইউ হামলায় জড়িত হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের সদস্যদের মোবাইল বাজেয়াপ্তের নির্দেশ আদালতের

ঘটনার ৮ দিন পার হয়ে গেলেও জেএনইউ-তে হামলা চালানোর ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকেই গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এবার তাই দিল্লি পুলিশকে কড়া বার্তা দিলেন দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতি ব্রিজেশ শেঠী। সোমবারই জেএনইউ-তে হিংসা সংক্রান্ত সব তথ্য সংরক্ষণের জন্যে হোয়াটসঅ্যাপ, গুগল, ফেসবুক ও অ্যাপেলকে নোটিশ ইস্যু করে দিল্লি হাইকোর্ট। এবার অবিলম্বে 'ইউনিটি আগেনস্ট লেফ্ট' নামক একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ও অপর একটি গ্রুপের সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করার নির্দেশ দিল আদালত।

 ১৩৫টি সিসিটিভি থেকে ফুটেজ সংগ্রহ পুলিশের

১৩৫টি সিসিটিভি থেকে ফুটেজ সংগ্রহ পুলিশের

সোমবার জেএনইউ-র হিংসার তথ্য সম্পর্কিত সিসিটিভি ফুটেজও সংরক্ষণ করতে নির্দেশ দেয় আদালত। এছাড়া দিল্লি সরকারকে ও দিল্লি পুলিশের থেকে জেএনইউ হামলা সংক্রান্ত তথ্য জানাতে বলে দিল্লির হাইকোর্ট। এর প্রেক্ষিতে দিল্লি পুলিশ আদালতে জানায় যে জেএনইউ-র এক হাজার একর বড় ক্যাম্পাস থেকে ১৩৫টি সিসিটিভি থেকে ফুটেজ সংগ্রহ করেছে তারা। এর আগে জেএনইউ- তিনজন প্রফেসর অমিত পরমেশ্বরন, শুকলা সাওয়ান্ত ও অতুল সুদ এই সংক্রান্ত একটি আবেদন জানান দিল্লি হাইকোর্টে। তার প্রেক্ষিতেই মঙ্গলবার মামলার দ্বিতীয় দিনের শুনানি হয়।

তদন্তে দিল্লি পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ

তদন্তে দিল্লি পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ

৫ জানুয়ারি জেএনইউ-তে হিংসার ঘটনাটির তদন্তে রয়েছে দিল্লি পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ। এর আগে দিল্লি ক্রাইম ব্রাঞ্চের ডিসিপি জয় তির্কে জানান যে বিভিন্ন সিসিটিভি ফুটেজ দেখে তারা ৯ জনকে চিহ্নিত করতে পেরেছে যারা হিংসার ঘটনায় জড়িত ছিল। তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন জেএনইউ ছাত্র সংসদের সভাপতি ঐশী ঘোষ। এরপরে জেএনইউ-তে হামলাকারী আরও ৩৭ জনকে চিহ্নিত করে দিল্লি পুলিশ। এরা সকলেই 'ইউনিটি আগেনস্ট লেফ্ট' নামক একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের সদস্য বলে জানিয়েছে পুলিশ। এদের মধ্যে ১০জন বহিরাগত আছে বলেও জানা দিল্লি পুলিশ। এবং জেএনইউ ছাত্রদের একাংশই সেই বহিরাগতদের ক্যাম্পাসে ঢুকতে সাহায্য করে বলেও জানায় পুলিশ।

পুলিশের এফআইআর

পুলিশের এফআইআর

জেএনইউ ক্যাম্পেসে ঘটা তাণ্ডবের ঘটনায় সোমবার এফআইআর নেয় দিল্লি পুলিশ। পাশাপাশি তারা জানিয়েছে যে অভিযুক্ত দুষ্কৃতীদের বিভিন্ন ভিডিও দেখে শনাক্ত করার প্রক্রিয়া চালাচ্ছে তারা। এই প্রসঙ্গে দক্ষিণ-পশ্চিম দিল্লির ডিসিপি দেবেন্দ্র আচার্য এই বিষয়ে বলেন, 'আমরা সিসিটিভি ফুটেজ ও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিও খতিয়ে দেখে দোষীদের চিহ্নিত করার প্রক্রিয়াশুরু করেছি। বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষের আবেদনের ভিত্তিতে আমরা এফআইআর করেছি।' সেই কারণেই যাতে তথ্য ও প্রমাণ লোপাট না হয় তাই জনসংযোগমাধ্যগুলির তথ্য সংরক্ষণ করার আবেদন জানিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হন জেএনইউ প্রফেসররা।

হস্টেলের ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে শুরু হয় আন্দোলন

হস্টেলের ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে শুরু হয় আন্দোলন

হস্টেলের ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে সম্প্রতি সরব হয়েছিল জেএনইউ। সেই রেশেই রবিবার সন্ধ্যে ৬টা নাগাদ শান্তিপূর্ণ মিছিলের ডাক দেন জেএনইউএর টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন। সেখানেই শুরু হয় অতর্কিত হামলা। ঘটনার কথা জানিয়ে পুলিশকে ডাকা হলে ক্যাম্পাসে আসে প্রায় ৭০০ পুলিশকর্মী। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায় সাড়ে সাতটা নাগাদ। যদিও তাণ্ডব তখনও চলছে। অভিযোগ উঠেছে পুলিশের সামনে অ্যাম্বুলেন্স ভাঙা হলেও পুলিশ চুপচাপ দাঁড়িয়ে ছিল। শুধু মাঝে মাঝে একজন দুজনকে পুলিশ আটকাচ্ছিল। তবে তারা কোনও দৃঢ় পদক্ষেপ নেয়নি।

স্কুলে ভর্তিকে কেন্দ্র করে বিশৃঙ্খলা বারাসতে, নামল কমব্যাট ফোর্সস্কুলে ভর্তিকে কেন্দ্র করে বিশৃঙ্খলা বারাসতে, নামল কমব্যাট ফোর্স

English summary
delhi hc asked cops to seize phones of WhatsApp group members who planned JNU attack
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X