• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

কোন ইস্যুগুলির ওপর ভিত্তি করে দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনের জয় নির্ধারিত হতে পারে, জানেন কি?

আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে চলেছে ৭০ আসন বিশিষ্ট দিল্লি বিধানসভা নির্বাচন। তার পর ১১ তারিখ হবে ফল প্রকাশ। এদিকে লোকসভার পর একের পর এক বিধানসভা নির্বাচন হেরে দিল্লির লড়াই রীতিমতো প্রেস্টিজ ফাইটে পরিণত হয়েছে বিজেপির জন্যে। এদিকে বিজেপি ছাড়াও ক্ষমতা দখলের লড়াইয়ে রয়েছে ক্ষমতাসীন আম আদমি পার্টি ও কংগ্রেস।

দিল্লিতে তিনমুখী লড়াই

দিল্লিতে তিনমুখী লড়াই

খাতায় কলমে তিনমুখী লড়াই হলেও দিল্লির নির্বাচন এখন মূলত আম আদমি পার্টি বনাম বিজেপি। মাঝে আম আদমি পার্টির সঙ্গে জোট বাধতে চেয়েও শেষ পর্যন্ত আলোচনা ফলপ্রসু না হওয়ায় পিছনে হটে কংগ্রেস। ২০১৫ সালে ৭০টির মধ্যে ৬৭টি আসনই জিতেছিল আম আদমি পার্টি। এদিকে দিল্লির তিনটি মিউনিসিপাল ক্রপোরেশন রয়েছে বিজেপির দখলে। পাশাপাশি লোকসভা নির্বাচনে দিল্লির ৭টির মধ্যে ৭টি আসনেই জিতেছিল বিজেপি। সেই অর্থে কংগ্রেস ভোট কাটলেও ক্ষমতা দখলের ক্ষেত্রে প্রায় অপ্রাসঙ্গিক বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

লোকসভার ভোট কী ধরে রাখতে পারবে বিজেপি?

লোকসভার ভোট কী ধরে রাখতে পারবে বিজেপি?

এর আগে ২০১৫ সালের বিধানসভা নির্বাচনে দেখা গিয়েছিল যে কেন্দ্রে বিজেপিকে ভোট দিলেও বিধানসভা নির্বাচনে দিল্লির ভোটাররা ভরসা রেখেছিল আম আদমি পার্টির উপর। ২০১৪ সালের লোকসভায় বিধানসভা ভিত্তিক আসনের নিরিখে দেখা গিয়েছিল যে বিজেপি ৬০টিতে জিতেছিল। তবে সেই সমীকরণ সম্পূর্ণ বদলে যায় বিধানসভা নির্বাচনে। কারণ দেখা যায় লোকসভাতে বিজেপিকে ভোট দেওয়া ভোটারদের মাত্র ৫৭ শতাংশ বিধানসভাতেও তাদের ভোট দিয়েছিল। বিধানসভা নির্বাচনে এই ভোটারদের ধরে রাখতে না পারার খেসারত দিতে হয়েছিল পদ্ম শিবিরকে।

লোকসভার পর বেশ কয়েকটি রাজ্যে হার বিজেপির

লোকসভার পর বেশ কয়েকটি রাজ্যে হার বিজেপির

লোকসভা পরবর্তী মহারাষ্ট্র, হরিয়ানা ও ঝাড়খণ্ড বিধানসভা নির্বাচনেও বিজেপির ক্ষেত্রে এই ভোট ধরে রাখা এক বিশাল সমস্যা হয়ে দাঁড়ায়। যার জেরে এই উপরের উলেক্ষিত রাজ্যগুলির দুটিতেই তারা ক্ষমতা ধরে রাখতে অক্ষম হয়। হরিয়ানাতেও তাদের দুষ্মন্ত চৌতালার জেজেপি-র সঙ্গে জোট বেধে সরকার গড়তে হয়।

কংগ্রেসের ফলের উপর নির্ভর করছে আপ

কংগ্রেসের ফলের উপর নির্ভর করছে আপ

এদিকে আসন্ন দিল্লি নির্বাচনে আম আদমি পার্টির ভাগ্য অনেকটাই নির্ভর করবে কগ্রেসের ফলাফলের উপর। বিজেপি বিরোধী ভোট যদি কংগ্রেসের ঝুলিতে আসে তবে তা চিন্তার বিষয়ে হয়ে দাঁড়াবে আম আদমি পার্টির জন্যে। সেই ক্ষেত্রে সুবুধা পাবে বিজেপি। এবং ভোট কাটাকাটিতে হয়ত তারা জিতে যেতে পারে।

আগের ভোটের নিরিখে কে কোথায়?

আগের ভোটের নিরিখে কে কোথায়?

এর আগে ২০১৪ লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি দিল্লিতে ৪৬.৪ শতাংশ ভোট পেয়েছিল। আম আদমি পার্টি সেখানে পেয়েছিল ৩৩ শতাংশ। কংগ্রেসের ঝুলিতে গিয়েছিল মাত্র ১৫.২ শতাংশ। ছবিটা বদলে যায় ২০১৫ সালের বিধানসভা নির্বাচনে। আম আদমি পার্টি সেখানে পেয়েছিল ৫৪.৩ শতাংশ ভোট। বিজেপি পেয়েছিল ৩৩.২ শতাংশ ভোট। কংগ্রেসের ভাড়ার আরও ফাঁকা হয়। তারা পায় মাত্র ৯.৭ শতাংশ ভোট। দিল্লির তিন পৌরনিগমের নির্বাচনে অবশ্য লড়াইটা অনেক প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক হয়। বিজেপি সেখানে পায় ৩৬.১ শতাংশ। আম আদমি পার্টি ও কংগ্রেস পায় যথাক্রমে ২৬.২ ও ২১.১ শতাংশ। গতবছর সম্পন্ন হওয়া লোকসভা নির্বাচনে আবার পাল্লা ভারী হয় বিজেপির। তারা পায় ৫৬.৫ শতাংশ ভোট। আম আদমি পার্টি সেখানে কংগ্রেসেরও নিচে নেমে যায়। তাদের ঝুলিতে আসে ১৮.১ শতাংশ ভোট। কংগ্রেস পায় ২২.৫ শতাংশ ভোট।

কোন সম্প্রদায়ের ভোট কার ঝুলিতে

কোন সম্প্রদায়ের ভোট কার ঝুলিতে

এদিকে ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে জাত ভিত্তিক ভোট বিন্যাস দেখলে দেখা যাচ্ছে বিজেপি উচ্চবর্ণের ভোটের সিংহভাগ পাচ্ছে। এদিকে মুসলিমদের ভোটের বেশির ভাগটাই যাচ্ছে কংগ্রেসের ঝুলিতে। ওবিসি ও দলিত ভোটারদের ভোটের ক্ষেত্রে আম আদমি পার্টি থেকে এগিয়ে রয়েছে বিজেপি।

English summary
delhi elections factors which might determine winner in delhi assembly elections
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X