তিব্বত নিয়ে চূড়ান্ত 'ইউ টার্ন' দালাই লামার,'চিনের সঙ্গে থাকতে চাই' বলে চাঞ্চল্যকর মন্তব্য তাঁর

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News

তিব্বত ইস্যুতে ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে গিয়ে কার্যত চিনের সমর্থনেই সুর বাঁধলেন ধর্মগুরু দালাই লামা। কলকাতায় আয়োজিত চেম্বার অব কমার্সের এক সভায় এই তিব্বতি ধর্মগুরু জানিয়েছেন, চিনের কাছে থেকে স্বাধীন হতে চায় না তিব্বত ,বরং উন্নয়ন চায়।

তিব্বত নিয়ে চূড়ান্ত 'ইউ টার্ন' দালাই লামার,'চিনের সঙ্গে থাকতে চাই' বলে চাঞ্চল্যকর মন্তব্য তাঁর

দালাই লামা জানিয়েছেন, " যা ঘটে গিয়েছে তা পুরনো,আমাদের ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে চলতে হবে।" তিব্বতীরা চিনের সঙ্গে থাকতে চান বেল এদিন নিজের বক্তব্যে তিনি জোর দেন। একধাপ এগিয়ে দলাই লামা জানান, "আমরা স্বাধীনতা চাই না ... আমরা চিনের সঙ্গে থাকতে চাই। আমরা আরও উন্নয়ন চাই।" এখানেই শেষ নয়, দালাই লামা জানিয়েছেন "তিব্বতের আলাদা সংস্কৃতি...চিনের মানুষ নিজেদের দেশকে ভালোবাসে। আমরা আমাদের নিজের দেশকে ভালোবাসি।"

তাঁর প্রতি চিনের যাবতীয় কটূক্তি তথা তিব্বত থেকে পালিয়ে তাঁর ভারতে এসে আশ্রয় নেওয়ার ঘটনাকে পেছনে রেখেই তিনি বলেন, " বিশ্বের সঙ্গে জুড়ে গিয়ে চিন ৪০ থেকে ৫০ শতাংশ বদলে গিয়েছে।" এছাড়াও তিনি ইন্দো -চিন সম্পর্ক সুদৃঢ় করার বিষয়ে আশা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন ভারতের দরকার চিনকে, চিনেরও দরকার ভারতকে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, তিব্বতের স্বাধীনতার লড়াইতে যাঁকে মূলস্তম্ভ মানা হয়, সেই দলাই লামা চিনের সেনার হামলা এড়িয়ে ১৯৫৯ সালে ভারতে চলে আসেন তিব্বত থেকে। চিনের তুমুল হুঙ্কার হুমকি সত্ত্বেও যাবতীয় নিরাপত্তা দিয়ে দালাই লামাকে সেই সময় থেকে আশ্রয় দিয়েছে ভারত। এযাবৎকাল দালাই লামা ইস্যুতে ভারতকে কূটনৈতিকভাবে কটাক্ষও করেছে চিন। কিছুদিন আগে দালাই লামার উত্তরপূর্বের রাজ্যগুলিতে সফর নিয়েও দিল্লিকে হুমকির সুর শুনিয়েছে বেজিং। কিন্তু এত ঘটনার পর, তাঁর ভারতে আশ্রয় নেওয়ার এতদিন বাদে দালাই লামার এই ধরনের ইউ টার্ন-এর নেপথ্যের কারণ খোঁজার চেষ্টা করছে রাজনৈতিক মহল।

English summary
Tibet does not seek independence from China but wants greater development, Tibetan spiritual leader the Dalai Lama said in Kolkata Thursday.

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more