• search

ভারতে যে কোনও সময় সাইবার হামলার শিকার হতে পারেন আপনিও, তথ্য জানলে চমকে উঠবেন

  • By Ritesh Ghosh
Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    ভারত ইন্টারনেটে নির্ভরশীল হচ্ছে। দেশ যত উন্নতির পথে এগোচ্ছে, ততই প্রযুক্তি নির্ভর হতে গিয়ে ডিজিটাল দুনিয়ায় অভ্যস্ত হয়ে উঠছি আমরা। ফলে সেই সুযোগে ভারতে সাইবার অপরাধের সংখ্যাও বাড়ছে। রিপোর্ট বলছে, ভারতে প্রতি ১০ মিনিটে একটি করে সাইবার অপরাধ হচ্ছে। ২০১৭ সালের প্রথম ছয় মাসের পরিসংখ্যান তেমনটাই বলছে। ২০১৬ সালে ১২ মিনিটে একটি করে সাইবার অপরাধের ঘটনা ঘটেছিল। এবছর সেই সময় আরও কমে এসেছে।

    [আরও পড়ুন:অনলাইনে এই কাজগুলি করলে যেকোনও সময় গ্রেফতার হতে পারেন]

    ভারতের কম্পিউটার এমার্জেন্সি রেসপন্স টিমের হিসাব বলছে, জানুয়ারি থেকে জুন মাসের মধ্যে এবছরে ২৭,৪৮২টি সাইবার অপরাধের ঘটনা নথিভুক্ত হয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে কম্পিউটারে স্ক্যানিং, সাইটে হামলা, বিকৃত করার চেষ্টা, ভাইরাস বা ম্যালওয়্যারের কোড দেওয়া, রানসমওয়্যারের হামলা সহ নানা ধরনের সাইবার অপরাধ।

    [আরও পড়ুন:আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোন র‍্যানসমওয়্যারের পরবর্তী লক্ষ্য, সেটা জানেন কি?]

    ভারতে যে কোনও সময় সাইবার হামলার শিকার হতে পারেন আপনিও, তথ্য জানলে চমকে উঠবেন

    ভারতে প্রতিদিন বহু মানুষ ইন্টারনেটের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছেন। যার ফলে বহর বাড়তে থাকার সঙ্গে প্রয়োজনীয় পরিকাঠামোর সামঞ্জস্য রাখা কঠিন হয়ে দাঁড়াচ্ছে। আর সেই সুযোগে ভারতে সাইবার হামলার প্রকোপ বাড়ছে।

    রিপোর্ট অনুযায়ী ভারতে ১.৭১ লক্ষ সাইবার অপরাধের ঘটনা ঘটেছে গত সাড়ে তিন বছরে। এবছরের যা ট্রেন্ড তাতে ২০১৬ সালের মতোই অপরাধের সংখ্যা ৫০ হাজার পেরিয়ে যাবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

    তবে সাইবার অপরাধ কমাতে কেন্দ্র সরকার বেশ কিছু পদক্ষেপ করেছে। অপরাধের সংখ্যা যতটা কমানো যায় ও ইন্টারনেট মাধ্যমে যতটা সুরক্ষিত রাখা যায় সেই প্রচেষ্টা করা হচ্ছে।

    English summary
    From the global ransomware attacks that hit hundreds of systems to phishing and scanning rackets, at least one cybercrime was reported every 10 minutes in India in the first six months of 2017.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more