• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

চিনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে ভারত-নেপাল বাণিজ্যিক আলোচনা শুরু! কোনপথে কূটনীতি

  • |

যে নেপাল এককালে উত্তরাখণ্ডে নেপাল-ভারত সীমান্তই কার্যত গ্রাহ্য করছিল না, সেই নেপাল এবার সীমান্ত পেরিয়ে ভারতের সঙ্গে ব্যবসায়িক আলোচনায় আগ্রহী! লাদাখ সংঘাতের মাঝে নেপালকে

টোপ করে যেভাবে চিন ব্যবহার করেছে ভারতের বিরুদ্ধে, তার মোক্ষম জবাব দিয়ে দিল্লি খেলা ঘোরাতে শুরু করল।

ইকোনমিক জোন নিয়ে আলোচনা

ইকোনমিক জোন নিয়ে আলোচনা

সোমবার ভারত ও নেপালের মধ্যে সচিব পর্যায়ের বৈঠকে দুই দেশের মধ্যে ইকোনমিক জোন নিয়ে আলোচনা হয়। সীমান্ত সংঘাত মিটে যাওয়ার রাস্তা ধরেই এই আলোচনা হয় বলে খবর। ব্যবসা সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় ভারতের সঙ্গে সম্পর্কের খাতিরে নেপাল পর্যালোচনা করতে চায় বলে জানানো হয়েছে।

 সীমান্তপার বাণিজ্য ও চিন

সীমান্তপার বাণিজ্য ও চিন

এককালে নেপালে চিনের প্রবল বিনিয়োগের কারণে কার্যত চিনের দাসে পরিণত হয়েছিল নেপাল। আর তার সুযোগে চিন নেপালের রাজনীতিতে মাথা গলায়। মুহূর্তে টলমল করে নেপালের প্রধানমন্ত্রী ওলির গদি। এদিকে, লাদাখ আবহে নেপালকে দিয়ে চিন ভারতের বিরুদ্ধে সুর চড়া করে। ধীরে ধীরে সেই পরিস্থিতি সামলায় দিল্লি। আর তার কয়েকমাস বাদেই কার্যত নেপাল ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে যায় আগের অবস্থান থেকে।

 যৌথ ব্যবসায়িক ফোরাম

যৌথ ব্যবসায়িক ফোরাম

নেপাল ও ভারতের সচিব পর্যায়ের বৈঠকে আলোচিত হয়েছে যে, দুই দেশ কীভাবে যৌথ উদ্যোগে ইকোনমিক ফোরাম তৈরি করতে পারে, তা নিয়ে এদিন ভার্চুয়াল বৈঠকে আলোচনা হয়েছে।

 নোপাল -ভারত সংঘাতের অধ্যায়

নোপাল -ভারত সংঘাতের অধ্যায়

এর আগে যখনই লাদাখে চিন আগ্রাসন ফলাতে শুরু করে, তখনই নেপাল দাবি করে যে উত্তরাখন্ডের লিপুলেখ, কালাপানি, লিম্পিয়াধুরা নেপালের অংশ। এরপরই সেই দাবি নস্যাৎ করে ভারত 'ওয়েট অ্যান্ড ওয়াচ' এর রাস্তা নেয়। নেপালের প্রধানমন্ত্রী ওলি প্রবল ভারত বিরোধিতার রাস্তা নিলেও, তা শেষ পর্যন্ত ধোপে টেকেনি!

English summary
Cross Border economic zones discussed by India and Nepal
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X