• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

করোনা আবহে সংক্ষেপিত হতে পারে সংসদের বাদল অধিবেশন, অর্ডিন্যান্স পাসের উপরে জোর

  • |

একাধিক রাজ্যে বিধানসভা ভোটের দামামা বাজতেই গোটা দেশেই ক্রমেই চলছে রাজনীতির পারদ। ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে চলছে ভার্চুয়াল বৈঠক। এই প্রেক্ষাপটে সামাজিক দূরত্ব মেনে সংসদে বাদল অধিবেশন শুরু করা যায় কিনা, তা নিয়ে লোকসভায় গতমাসেই বৈঠক করেন স্পিকার ওম বিড়লা এবং রাজ্যসভার চেয়ারম্যান ভেঙ্কাইয়া নাইডু। বর্তামানে সূত্রের খবর, চলতি বর্ষে বাদল অধিবেশন হলে তা অনেকটাই কাঁটছাঁট করেই হতে পারে। অবশ্যই তার প্রধান কারণ করোনা সঙ্কট।

করোনা সঙ্কটে সংক্ষেপিত হতে পারে সংসদের বাদল অধিবেশন

এদিকে সংসদের বাদল অধিবেশন সাধারণত জুলাইয়ের শেষে শুরু হয় প্রতি বার। তবে সূত্রের খবর, করোনা পরিস্থিতিতে অগস্টের শেষে বা সেপ্টেম্বরের প্রথমে অধিবেশন শুরুর কথা ভাবা হচ্ছে। তবে এবারের সংক্ষেপিত বাদল অধিবেশনে মূল লক্ষ্যবস্তুই থাকবে একাধিক নতুন অর্ডিন্যান্স। সেগুলি পাশের উপরেই এবারে জোর দেওয়া হবে বলে জানা যাচ্ছে।

এদিকে জুন মাসেই সাড়ে ছয় দশকের পুরানো প্রয়োজনীয় পণ্য আইন সংশোধন করেছে কেন্দ্র। সেই সম্পর্কিত আলোচনাও বাকী রয়েছে বলে খবর। পাশাপাশি ২০২০ সালের জন্য ব্যাঙ্কিং নিয়ন্ত্রণ (সংশোধন) অর্ডিন্যান্সও নিয়ে এসেছে কেন্দ্র। তা নিয়েও বিস্তারিত আলোচনা বাকী রয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। এদিকে যে সমস্ত সাংসদ প্রযুক্তিগতভাবে সাবলীল, তাঁরা ঘরে বসে অনলাইনে আলোচনায় অংশ নিতে পারেন বলেও জানা যাচ্ছে। আয়োজন করা হতে পারে ভার্চুয়াল বৈঠকেরও।

এদিকে কোন পদ্ধতিতে অধিবেশন চলতে পারে সেই নিয়েও শুরু হয়েছে নতুন তরজা। যার জেরে বড়সড় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছেন লোকসভা এবং রাজ্যসভার সচিবরা। সামাজিক দূরত্ব মেনে কী ভাবে সাংসদদের বসার ব্যবস্থা করা হবে, কী ভাবেই সমস্ত করোনা বিধি মানা হবে তা ভেবেই কালঘাম ছুটছে তাদের। সংসদের ক্যান্টিন, লাইব্রেরি ও লবির জনবহুল চিত্রের কথাও ভাবাচ্ছে সচিবদের।

হারানো জমি ফিরে পেতে শুভেন্দু কে হাতিয়ার করে এগোতে চায় দল

সংসদীয় সূত্রের খবর, বিজ্ঞানভবনের মতো জায়গায় অথবা সংসদেরই সেন্ট্রাল হলে এক দিন রাজ্যসভা, অন্য দিন লোকসভা এই ভাবে অধিবেশন চলানো যায় কিনা তা নিয়ে ভাবনা চিন্তা শুরু হয়েছে। সূত্রের খবর, সামাজিক দূরত্ব মেনে সমস্ত সাংসদকে বসানোর মতো পর্যাপ্ত জায়গার অভাব রয়েছে। সামাজিক দূরত্ব মেনে রাজ্যসভায় ৬০ জন এবং লোকসভায় ১০০ জনের কিছু বেশি সাংসদকে বসানো সম্ভব বলে জানা যাচ্ছে। এদিকে লোকসভার সদস্য সংখ্যা ৫৪৫ এবং রাজ্যসভার ২৪৫ জন। তাই সকলের বসার জায়গা না হলে বিকল্প রাস্তার কথা ভাবা হচ্ছে বলে খবর।

English summary
The Monsoon session of Parliament may be shortened in the Corona crisis
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X