• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

লাদাখে ফের ভারতীয় সেনাকে বাধা চিনের! গালওয়ানের পর এবার যুদ্ধ পরিস্থিতি ডিবিও-তে

বিগত একমাস ধরে চলছে লাদাখ সীমান্তে ভারত ও চিনের মধ্যকার উত্তপ্ত পরিস্থিতি। চিনের দাবি ছিল, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার এপারে ভারতের দিকে পরিকাঠামো গড়ে তোলার কাজ বন্ধ রাখা হোক৷ যা মেনে নিতে নারাজ ভারত৷ পাল্টা ভারত সরকারের তরফে বেজিংয়ের কাছে দাবি করা হয়েছে, যাতে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর স্থিতাবস্থা বজায় রাখা হয়৷ এরপরই গতসপ্তাহে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে প্রাণ শহিদ হন ২০ ভারতীয় জওয়ান। সেনার পাল্টা জাবাবে প্রাণ হারায় অন্তত ৪০ চিনা সৈনিকও।

দৌলত বেগ ওল্ডির কাছে ভারতীয় সেনার টহল আটকে দেয় চিন

দৌলত বেগ ওল্ডির কাছে ভারতীয় সেনার টহল আটকে দেয় চিন

এবার গালওয়ানে শান্তির প্রস্তাব মেনে নিলেও চিনা সেনা নিজেদের অনৈতিক দাবি সেই সংক্রান্ত প্ল্যান থেকে সরছে না। জানা গিয়েছে এবার ডেপসাংয়ে দৌলত বেগ ওল্ডির কাছে ভারতীয় সেনার টহল আটকে দেয় চিনা সেনা। প্রসঙ্গত, এই ডিবিও বিমান ঘাঁটিটি ভারতের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

ভারতের দিকে গতবছর তৈরি করা হয় ২৫৫ কিলোমিটার রাস্তাটি

ভারতের দিকে গতবছর তৈরি করা হয় ২৫৫ কিলোমিটার রাস্তাটি

ভারতের দিকে গত বছর তৈরি করা ২৫৫ কিলোমিটার দীর্ঘ ডাবরুক-শিয়ক-ডিবিও রোড তৈরি করা নিয়েই চিনের মূল আপত্তি৷ এই রাস্তাটি তৈরির ফলে সীমান্তে ভারতীয় সেনাবাহিনীর যাতায়াত এবং নজরদারি চালানোর ক্ষেত্রে অনেক বেশি সুবিধে হয়েছে৷ তবে পরপর সংঘর্ষ ও চিনের আপত্তি সত্ত্বেও ভারত এই রাস্তা তৈরির কাজ জারি রাখবে বলে জানা গিয়েছে।

শান্তি আলোচনা কি শুধু চোখে ধুলো ?

শান্তি আলোচনা কি শুধু চোখে ধুলো ?

এর জেরে ফের উঠল এই প্রশ্ন। শান্তি আলোচনা কি শুধু চোখে ধুলো দেওয়ার জন্যেই করছে চিন। প্রসঙ্গত, এদিনই জানা যায়, ভারতের সঙ্গে শান্তি আলোচনা চলতে থাকলেও ফের তিব্বতে লাইভ ফায়ার ড্রিল করে পিএলএ-র তিব্বত রমান্ডের সেনা। এতেই ফের উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে এলএসি বরাবর বিস্তীর্ণ এলাকায়।

চারটি বিভিন্ন স্থানে সামনাসামনি যুদ্ধের মতো পরিস্থিতি

চারটি বিভিন্ন স্থানে সামনাসামনি যুদ্ধের মতো পরিস্থিতি

গত কয়েকদিনে চিনের সঙ্গে লাইন অফ অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোলের চারটি বিভিন্ন স্থানে সামনাসামনি যুদ্ধের মতো পরিস্থিতি তৈর হয় ভারতীয় সেনার। এরপরই গত লাদাখে পৌঁছান সেনা প্রধান এমএম নারভানে। লাদাখের ১৪ কোর সেনা রেজিমেন্টের হেডকোয়ার্টার পরিদর্শন করতে যান সেনা প্রধান জেনারেল নারভানে।

চিনের দাবি

চিনের দাবি

চিনের দাবি ছিল, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার এপারে ভারতের দিকে পরিকাঠামো গড়ে তোলার কাজ বন্ধ রাখা হোক৷ যা মেনে নিতে নারাজ ভারত৷ পাল্টা ভারত সরকারের তরফে বেজিংয়ের কাছে দাবি করা হয়েছে, যাতে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর স্থিতাবস্থা বজায় রাখা হয়৷ এই মনোমালিন্য থেকেই শেষ পর্যন্ত গালওয়ান উপত্যকায় বেঁধে যায় দুই দেশের সংঘর্ষ।

৩১ জুলাই পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

শান্তি আলোচনা কি শুধুই আইওয়াশ? তিব্বতে চিনা সেনার কার্যকলাপে ফের লাদাখ নিয়ে উঠছে প্রশ্ন

English summary
Chinese movement in Depsang and the area east of Daulat Beg Oldie results new face off in Ladakh with Indian Army
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X