• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

লাদাখে জমছে বরফ, ক্রমেই চড়ছে কূটনীতির পারদ! শীত বাড়তেই সীমান্ত নিয়ে আরও ফ্রন্টফুটে চিন

আলোচনার মাধ্যমে লাদাখ সমস্যা মেটাতে চায় না চিন, গত সপ্তাহেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এই বিষয়ে সতর্ক করেছিল দিল্লিকে। এবং ভারত-চিন সেনা কমান্ডার স্তরের বৈঠকের পর লাদাখ ইস্যুতে সুর চড়াল বেজিং। এবং তাদের পূর্বতন অবস্থানে ফিরে গিয়ে ফের লাদাখকে ভারতের কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল হিসাবে মানতে অস্বীকার করল চিন।

১১ ঘণ্টার বেশি সময় ধরে চলে বৈঠক

১১ ঘণ্টার বেশি সময় ধরে চলে বৈঠক

পূর্ব-লাদাখে ভারত-চিন সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে দুই দেশের সেনা কমান্ডার স্তরের বৈঠক ছিল গতকাল। এই নিয়ে সপ্তমবার মুখোমুখি হলেন দু'দেশের সেনার উচ্চ-পর্যায়ের আধিকারিকরা। ১১ ঘণ্টার বেশি সময় ধরে চলে বৈঠক। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার কাছে চুশুলে গতকাল দুপুর ১২টা নাগাদ উভয়পক্ষের মধ্যে বৈঠক শুরু হয়। শেষ হয় রাত ১১টা ৩০মিনিট নাগাদ।

বৈঠকে ভারতের তরফে প্রতিনিধিত্ব করেন কারা?

বৈঠকে ভারতের তরফে প্রতিনিধিত্ব করেন কারা?

বৈঠকে ভারতের তরফে প্রতিনিধিত্ব করেন ১৪ নম্বর ব্যাটেলিয়নের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনেরাল হরিন্দর সিং। ছিলেন বিদেশ মন্ত্রকের যুগ্মসচিব (পূর্ব এশিয়া) নবীন শ্রীবাস্তব। এদিকে প্রায় ১ লাক্ষের উপর ভারতীয় এবং চিনা সেনা মোতায়েন রয়েছে পূর্ব লাদেখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার দু'পাশে। শান্তিপূর্ণভাবে সেনা স্তরে আলোচনার মাধ্যমে উত্তেজনা প্রশমনের চেষ্টা করলেও দু'দেশই তলায় তলায় সীমান্তে শক্তি বাড়াচ্ছে।

সোমবারের বৈঠকেও কোনও সুরাহা বেরিয়ে আসেনি

সোমবারের বৈঠকেও কোনও সুরাহা বেরিয়ে আসেনি

কিন্তু সোমবারের বৈঠকেও কোনও সুরাহা বেরিয়ে আসেনি সীমান্তে শান্তি ফেরানোর লক্ষ্যে। এই বিষয়ে চিনের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান বলেন, 'সীমান্তে ভারতীয় সেনার পরিকাঠামো নির্মাণের জেরেই উত্তেজনা বেড়েছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে কোনও দেশেরই এমন আর কোনও কাজ করা উচিত না যা থেকে দুই দেশের মধ্যে ফের উত্তেডনা সৃষ্টি হবে।'

৪৪টি ব্রিজ উদ্বোধন রাজনাথের

৪৪টি ব্রিজ উদ্বোধন রাজনাথের

প্রসঙ্গত, সোমবারে যখন দুই দেশের সেনার বৈঠক চলছিল সেই সময় ৭টি রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে বর্ডার রোডস অর্গানাইজেশনের তৈরি ৪৪টি সেতু উদ্বোধন করেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। এই ব্রিজগুলো লাদাখ, অরুনাচল প্রদেশ, সিকিম, হিমাচল প্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, পাঞ্জাব আর জম্মু কাশ্মীর সীমান্তে বানানো হয়েছে।

কী বলা হয় চিনের তরফে?

কী বলা হয় চিনের তরফে?

এদিন চিনের বিদেশমন্ত্রকের তরফে লাদাখ ইস্যুতে একটি বিবৃতি পেশ করে বলা হয় যে বেজিং নাকি লাদাখকে ভারতীয় কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল বলে মানতে নারাজ। তাঁর বক্তব্য, ভারত বেআইনি ভাবে লাদাখকে কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল হিসাবে গঠন করেছে। এবং চিন সীমান্ত লাগোয়া এলাকায় ভারতের পরিকাঠামোগত নির্মাণ কাজের বিরোধ জানাচ্ছে বেজিং।

কলকাতাঃ শহরে প্রমোদভ্রমণ পরিষেবার উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী

সংঘাতের আবহে লাদাখে সংসদীয় দল, গ্রাউন্ড জিরো সফরের নেতৃত্বে অধীর চৌধুরী

English summary
আলোচনার মাধ্যমে লাদাখ সমস্যা মেটাতে চায় না চিন, গত সপ্তাহেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এই বিষয়ে সতর্ক করেছিল দিল্লিকে। এবং ভারত-চিন সেনা কমান্ডার স্তরের বৈঠকের পর লাদাখ ইস্যুতে সুর চড়াল বেজিং। এবং তাদের পূর্বতন অবস্থানে ফিরে গিয়ে ফের লাদাখকে ভারতের কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল হিসাবে মানতে অস্বীকার করল চিন।
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X