• search

বিপুল হিসেব বহির্ভূত টাকার সন্ধান, কীভাবে পেল আয়কর দফতর, সুপ্রিমকোর্টকে জানাল কেন্দ্র

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    গত তিন বছরে আয়কর দফতরের অভিযান, বাজেয়াপ্ত ও সমীক্ষার পর দেশজুড়ে ৭১,৯৪১ কোটি হিসেব বহির্ভূত টাকার সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। সুপ্রিমকোর্টে এমনটাই জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

    [আরও পড়়ুন: নোট বাতিল নিয়ে অনেক প্রশ্নের উত্তর নেই উর্জিত প্যাটেলের কাছে, কী বলছে সংসদীয় কমিটি]

    বিপুল হিসেব বহির্ভূত টাকার সন্ধান, কীভাবে পেল আয়কর দফতর, সুপ্রিমকোর্টকে জানাল কেন্দ্র

    নোট বাতিলের পর গত ৯ই নভেম্বর থেকে চলতি বছরের ১০ই জানুয়ারি পর্যন্ত ৫৪০০ কোটি টাকারও বেশি বেহিসেবি আয় ধরা পড়েছে, সেইসঙ্গে প্রায় ৩০৪ কেজি বেআইনি সোনাও বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের পক্ষ থেকে হলফনামা দিয়ে সুপ্রিমকোর্টে এমনটাই জানানো হয়েছে। ১ এপ্রিল ২০১৪ থেকে ২৮শে ফেব্রুয়ারি ২০১৭ পর্যন্ত পাওয়া যাবতীয় বেহিসেবি আয়ের খতিয়ানও পেশ করা হয়েছে । হলফনামায় বলা হয়েছে, এই তিন বছরে আয়কর দফতরের ২০২৭টি দল দেশজুড়ে নানা জায়গায় তল্লাশি চালিয়ে এই পরিমাণ বেহিসেবি টাকা উদ্ধার করেছে। সেইসঙ্গে ১৫ হাজারেরও বেশি সমীক্ষায় আরও ৩৩ হাজার কোটি টাকার সন্ধান মিলেছে বলে শীর্ষ আদালতে জানানো হয়েছে।

    [আরও পড়ুন: ২০ টাকার পুরনো নোট থাকলে খরচা করে ফেলুন, আসছে নয়া নোট, কেমন দেখতে]

    বিপুল হিসেব বহির্ভূত টাকার সন্ধান, কীভাবে পেল আয়কর দফতর, সুপ্রিমকোর্টকে জানাল কেন্দ্র

    কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক হলফনামায় জানিয়েছে, নোট বাতিলের পর মাত্র দু মাসেই যে হিসেব বহির্ভূত ৫৪০০ কোটি টাকার হিসেব পাওয়া গিয়েছে তার মধ্যে শুধুমাত্র নগদ টাকাই রয়েছে ৫১৩ কোটি। এছাড়াও নোট বাতিলের পর পুরনো নোট বদল করার ক্ষেত্রেও ব্যাপক দুর্নীতি ধরা পড়েছে। এই ধরনের প্রায় ৪০০টি মামলার তদন্তভার সিবিআই অথবা ইডিকে দেওয়া হয়েছে। অনেক ক্ষেত্রেই ব্যাঙ্ককর্মীদের একাংশকে হাত করে কালো টাকা সাদা করেছে বলে সুপ্রিমকোর্টে হলফনামায় জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

    English summary
    During last three years, IT department have detected nearly 72,000 crore unaccounted income, center told SC in an affidavit.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more