• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

    ঘরে কি জমিয়ে রেখেছেন অচল ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট, সুপ্রিম কোর্টের উদ্যোগে মিলতে পারে সুরাহা

    কেন্দ্রীয় সরকারের নোটবাতিলের সিদ্ধান্তের পর যাঁরা নির্দিষ্ট সময়ে 'বিশেষ কারণ বসত' বাতিল নোট জমা দিতে পারেননি , তাঁদের ওই পুরোনো নোট জমা দেওয়ার বিষয়ে কেন্দ্র কীভাবে সাহায্য করতে পারে তা জানতে চাইল সুপ্রিম কোর্ট। এবিষয়ে এমাসের ১৭ তারিখের মধ্যে কেন্দ্রকে নিজের অবস্থান জানানোরক নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।[আরও পড়ুন:জিএসটি চালুর মধ্যে মোদীর নয়া চমক, ইতিহাস গড়ে বাজারে আসতে চলেছে নয়া মূল্যের নোট]

    গত বছরের নভেম্বর মাসে নোট বাতিলের সময়ে এমন বেশ কিছু মানুষ ছিলেন , যাঁরা পুরনো ০০ ও হাজার টাকার নোট যথা সময়ে জমা দিতে পারেনি। যেমন জেলের বন্দীরা সেময়ে, বাতিল নোট জমা দেননি অনেকেই। সুপ্রিপকোর্ট এমনই কিছু 'বিশেষ পরিস্থিতির শিকার' নাগরিকদের জন্য কেন্দ্রকে সাহায্য করার কথা বলেছে।[আরও পড়ুন:বাতিল নোট জমা দেওয়ার মেয়াদ বাড়াল আরবিআই, কতদিন পর্যন্ত বাড়ল মেয়াদ]

    নোটবাতিল ইস্যু: পুরনো নোট জমা দিতে পারার সুযোগ নিয়ে কেন্দ্রকে বার্তা সুপ্রিম কোর্টের

    ভারতেরে চিফ জাস্টিস জে এস খেহর জানিয়েছেন, এই ধরনের মানুষদের সমস্যাকে যদি অস্বীকার করা হয়, তাহলে তা দেশের পক্ষএ সত্যিকারের সমস্যা তৈরি করবে। এদিকে, রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জানিয়ে দিয়েছে যে তারা কোনও মতেই আর পুরনো নোট নেবে না। কারণ কেন্দ্র এমনই নির্দেশ দিয়েছে। সব মিলিয়ে এরকম এক পরিস্থিতিতে কেন্দ্র কী পদক্ষেপ নেয় এখন সেটাই দেখার।

    English summary
    People with a legitimate reason for not being able to deposit old 500 and 1,000 - rupee notes - like those in prison - cannot be denied the right to swap the outlawed currency for new notes, the Supreme Court said today, asking the government to explain how it will help these citizens by the 17th of this month.
    For Daily Alerts

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    Notification Settings X
    Time Settings
    Done
    Clear Notification X
    Do you want to clear all the notifications from your inbox?
    Settings X
    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more