Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

বিজেপি-র প্রভাবেই নির্বাচনের দিন ঘোষণায় বাধা, গুজরাত নিয়ে অভিযোগ কংগ্রেসের

  • Posted By: Dibyendu
Subscribe to Oneindia News

গুজরাত এবং হিমাচল প্রদেশের নির্বাচন একসঙ্গে ঘোষণা না হওয়ায় নির্বাচন কমিশনের কাছে অভিযোগ দায়েরের চিন্তাভাবনা করছে কংগ্রেস। বিষয়টি নিয়ে মোদী সরকার লজ্জাহীনভাবে চাপের রাজনীতি করছে বলে অভিযোগ কংগ্রেসের।

বিজেপি-র প্রভাবেই নির্বাচনের দিন ঘোষণায় বাধা, গুজরাত নিয়ে অভিযোগ কংগ্রেসের

নির্বাচন কমিশনের মতো স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার ওপর অনৈতিক চাপ তৈরি করছে মোদী সরকার, এমনটাই অভিযোগ করল কংগ্রেস। নির্বাচন কমিশন হিমাচল প্রদেশে নির্বাচন ঘোষণার মিনিট দশেকের মধ্যে সাংবাদিক সম্মেলন করে অভিযোগ করেন কংগ্রেস মুখপত্র অভিষেক মনু সিংভি। হিমাচলে নির্বাচন ঘোষণা করা হলেও, গুজরাত সরকার কোটি কোটি টাকার খয়রাতি করে চলেছে বলে অভিযোগ কংগ্রেসের। ২০০২-২০০৩ সালে গুজরাতের দাঙ্গার কারণ বাদ দিলে, ১৯৯৮ থেকে গুজরাত এবং হিমাচলের নির্বাচন একসঙ্গে হয়ে আসছে বলেও জানিয়েছেন কংগ্রেস মুখপত্র অভিষেক মনু সিংভি।

নির্বাচনের মুখে বৃহস্পতিবার পাতিদার, বাল্মীকি কমিউনিটি, সরকারি কর্মচারী এবং শক্তিশালী বিল্ডার লবির জন্য একাধিক সাহায্যের কথা ঘোষণা করেছে গুজরাত সরকার। সাহায্য ঘোষণার জন্য এত তাড়াতাড়ির কী আছে, প্রশ্ন করেছে কংগ্রেস।

বিজেপি-র প্রভাবেই নির্বাচনের দিন ঘোষণায় বাধা, গুজরাত নিয়ে অভিযোগ কংগ্রেসের

বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজ্যে নির্বাচনের দিন ঘোষণা হয়ে গেলেই লাগু হয়ে যাবে আদর্শ আচরণ বিধি, এই ধারণা নিয়ে আহমেদাবাদ মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের বৈঠকও দেড় ঘণ্টা এগিয়ে আনা হয় এবং ১০ মিনিটের মধ্যে ৫৩০ কোটির টাকার প্রস্তাব পাশ করানো হয় বলেও অভিযোগ করেছেন কংগ্রেস মুখপত্র অভিষেক মনু সিংভি।

অক্টোবরের ১৬ তারিখ গুজরাতের জন্য প্রধানমন্ত্রী আরও নতুন কিছু ঘোষণা করতে চলেছেন, এই সম্ভাবনার কথাও জানিয়েছে কংগ্রেস। গুজরাতে ভোটের দিন ঘোষণা না করা নিয়ে প্রাক্তন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার এসওয়াই কুরেশির বক্তব্যও তুলে ধরেছে কংগ্রেস।

অবিলম্বে গুজরাতে নির্বাচনের দিন ঘোষণা করে, আদর্শ আচরণ বিধি লাগু করার দাবি করেছে কংগ্রেস।

English summary
bjp pressuring poll panel alleges congress, election commission and congress
Please Wait while comments are loading...