• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

সন্ত্রাসবাদ থেকে অনুপ্রবেশ নিয়ে বিজেপি কি সাঁড়াশি চাপ আরও বাড়াতে চলেছে! 'সংকল্পপত্র'-এ নয়া চমক

আর মাত্র ৭২ ঘণ্টারও কম সময়ের মাথায় শুরু হতে চলেছে দেশের সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোটগ্রহণ পর্ব। তার আগে এদিন দলীয় ইস্তেহার প্রকাশ করল, বিজেপি। দিল্লিতে এদিন নরেন্দ্র মোদী , রাজনাথ সিং সহ প্রথম দলীয় সারির নেতা নেত্রীদের সঙ্গে নিয়ে এই ইস্তেহার তথা 'সংকল্পপত্র ' পেশ করেছে পদ্মশিবির। যে সংকল্পপত্রে বিশেষভাবে গুরুত্ব পেয়েছে সন্ত্রাসবাদ থেকে অনুপ্রবেশ।

সন্ত্রাসবাদ সহ্য করা হবে না

সন্ত্রাসবাদ সহ্য করা হবে না

২০১৪ সালের মতোই সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে একই অবস্থানে বিজেপি। কোনও মতেই বিজেপির নেতৃত্বাধীন সরকার এলে তারা সন্ত্রাসবাদকে মেনে নেবে না। এমনই দাবি করা হয়েছে বিজেপির সংকল্পপত্রে। এবিষয়ে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক ও এয়ারস্ট্রাইকের মতো ভারতের সিদ্ধান্তের উল্লেখ করা হয়েছে বিজেপির ইস্তেহারে। পাশাপাশি উগ্রবাদকেও সহ্য করা হবে না বলে জানানো হয়েছে এই ইস্তেহারে।

সেনাকে স্বাধীনতা দেওয়া হবে

সেনাকে স্বাধীনতা দেওয়া হবে

সন্ত্রাসবাদে ইস্যুতে কোনও ফাঁক ফোকর যেমন সহ্য করা হবে না, তেমনই বিজেপির ইস্তেহারে স্পষ্ট করা হয়েছে যে সেনাকে যেমন স্বাধীনতা দেওয়া হয়েছে বেশ কিছু সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে, সেই নীতিতেই আগামী দিনে বিজেপি চলতে চায়।

জাতীয় নিরাপত্তা

জাতীয় নিরাপত্তা

জাতীয় নিরাপত্তাতর প্রশ্নে একাধিক বিষয় তুলে ধরেছে বিজেপি। এবিষয়ে দেশের সেনাকে আরও বেশি শক্তিশালী করার পরিকল্পনায় রয়েছে পদ্মশিবির। তা স্পষ্ট করা হয়েছে ইস্তেহারে। এজন্য অত্যাদুনিক সমরাস্ত্র কেনার বিষয়ে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

প্রতিরক্ষা

প্রতিরক্ষা

সংকল্প পত্রে বলা হয়েছে,প্রতিরক্ষা খাতে গত ৫ বছরে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে বিজেপি সরকার। এক্ষেত্রে আমেঠিতে একে২০৩ রাইফেল কারখানা নির্মাণের প্রসঙ্গকেও তুলে ধরেছে বিজেপির সংকল্প পত্র।

পুলিশ ফোর্সের আধুনীকিকরণ

পুলিশ ফোর্সের আধুনীকিকরণ

দেশের আভ্যন্তরীণ নিরাপত্তাকে আরও জোরদার করতে সেন্ট্রাল আর্মড পুলিশ ফোর্সকে আরও বেশি শক্তিশালী করার পথে জোর দেওয়া হয়েছে বিজেপির ইস্তেহারে। এজন্য স্কিমেরও ব্যবস্থা করার ভাবনা রয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে।

অনুপ্রবেশ

অনুপ্রবেশ

কোনও মতেই অনুপ্রবেশকে সহ্য করা হবে না বলে ইস্তেহারে জোর দেওয়া হয়েছে। ইস্তেহারে দাবি করা হয়েছে, বিভিন্ন জায়গায় অনুপ্রবেশের জন্য সাংস্কৃতিক ও ভাষাগত ক্ষেত্রে প্রভাব পড়ছে। প্রভাব এলাকার জীবনযাপনেও পড়ছে। এনআরসির ওপর জোর দেওয়ার বিষয়েও বক্তব্য রেখেছে বিজেপি।

[আরও পড়ুন: বিজেপির 'সংকল্প পত্র' প্রকাশ! গুরুত্ব দেওয়া হল যেসব বিষয়ে, দেখুন ভিডিও]

সীমান্তের নিরাপত্তা

সীমান্তের নিরাপত্তা

বিজেপির ইস্তেহারে স্পষ্ট করা হয়েছে সীমান্ত নিরাপত্তার ক্ষেত্রে আরও সাঁড়াশি চাপ বাড়ানোর বিষয়ে। এক্ষেত্রে বাংলাদেশ, নেপাল, ভূটানের সীমান্তে চেক পোস্ট বাড়ানোর পরিকল্পনা রয়েছএ গেরুয়া শিবিরের।

[আরও পড়ুন:২০১৯-২৪ সালের মধ্যে উন্নত ভারতের ভিত গড়বে বিজেপি, ইস্তেহার প্রকাশ অনুষ্ঠানে বললেন নরেন্দ্র মোদী]

English summary
BJP focuses on Terrorism and Infiltration in their manifesto for loksabha elections 2019
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X