• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

কংগ্রেস কি ‘হোয়াইট ওয়াশ’ হবে ২০২২-এ, কোন অঙ্কে বাজিমাত বিজেপির, আভাস সমীক্ষায়

Google Oneindia Bengali News

বছর ঘুরলেই বিধানসভা নির্বাচন। পাঁচ রাজ্যে মুখোমুখি হবে বিজেপি ও কংগ্রেস। পাঁচটি রাজ্যের মধ্যে তিনটি রাজ্যে সরাসরি লড়াই কংগ্রেস ও বিজেপির। বাকি দুই রাজ্যে একটিতে বিজেপির সঙ্গে লড়াই আঞ্চলিক শক্তির, অন্যটিতে কংগ্রেসের সঙ্গে লড়াই সেই রাজ্যের আঞ্চলিক দলের। এই লড়াইয়ে হোয়াইট ওয়াশ হয়ে যেতে পারে কংগ্রেস। বিজেপির শক্তি হ্রাস হলেও চারটি রাজ্যে তারা ক্ষমতা ধরে রাখতে সমর্থ হবে বলে আভাস সমীক্ষায়। কংগ্রেস একটি রাজ্যে ক্ষমতায় থাকলেও তারা সেই রাজ্যটি ধরে রাখতে সক্ষম হবে না। উত্থান হতে পারে আঞ্চলিক শক্তির।

উত্তরপ্রদেশ

উত্তরপ্রদেশ

এবিপি-সি ভোটারের সমীক্ষা অনুযায়ী ২০২২ সালে যোগী-রাজ্য উত্তরপ্রদেশে বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপিই ক্ষমতায় ফিরতে চলেছে। তবে বিজেপি এবার এই রাজ্যে শক্তি হারাবে অনেকটাই। বিজেপির মূল প্রতিদ্বন্দ্বী এখানে সমাজবাদী পার্টি। তারা এবার শতাধিক আসন বাড়িয়ে লড়াইয়ে ফিরতে চলেছে উত্তরপ্রদেশে। সমীক্ষা অনুযায়ী, বিজেপি এবার ২১২ থেকে ২২৪টি আসন পেতে পারে। গতবারের তুলনায় তা ১০০টি কম। আর সমাজবাদী পার্টি তিন গুণেরও বেশি আসন দখল করতে পারে এবার। সমাজবাদী পার্টির প্রাপ্ত আসন সংখ্যা দাঁড়াতে পারে ১৫১ থেকে ১৬৩টি। তারা ১০০টিরও বেশি আসন লাভ করে বিজেপির ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলবে। বিএসপি পেতে পারে ১২ থেকে ২৪টি আসন আর কংগ্রেস পেতে পারে ২ থেকে ১০টি আসন। উল্লেখ্য, উত্তরপ্রদেশে ২০১৭ সালে বিজেপি পেয়েছিল ৩২৫টি আসন আর সমাজবাদী পার্টির ঝুলিয়ে গিয়েছিল মাত্র ৪৮টি আসন।

উত্তরাখণ্ড

উত্তরাখণ্ড

উত্তরপ্রদেশ লাগোয়া উত্তরাখণ্ডে এবার জোর টক্কর কংগ্রেস ও বিজেপির। এবিপি-সি ভোটারের সমীক্ষা অনুযায়ী ৭০ সদস্যের বিধানসভায় বিজেপি ৩৩ থেকে ৩৯টি আসন পেতে পারে বলে আভাস। কংগ্রেস ২৯ থেকে ৩৫টি আসন জিততে পারে বলে মনে করছে এই সমীক্ষক সংস্থা। ৩৬টি আসনে জিতলে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে কোনও দল। সেখানে বিজেপিরই সেই ম্যাজিক ফিগার ছোঁয়ার সম্ভাবনা থাকছে। কংগ্রেসের লড়াই ম্যাজিক ফিগার ছোঁয়ার আগেই থেমে যাবে। উত্তরাখণ্ডে অ্যান্টি ইনকামবেন্সি ফ্যাক্টর থাকলেও বিজেপি এখানে বাজি জিতে যাবে বলেই অনুমান। তবে কাঁটে কা টক্করে একটু এদিন-ওদিক হলেই বিপদ বিজেপির।

পাঞ্জাব

পাঞ্জাব

পাঞ্জাবে বিজেপি প্রান্তিক শক্তি। এখানে কংগ্রেসের সঙ্গে লড়াই ছিল বিজেপির একদা জোটসঙ্গী শিরোমমি অকালি দলের। এখন কংগ্রেসের বিভাজনের সুযোগে এখানে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি বৃহত্তর শক্তি হিসেবে উঠে এসেছে। কংগ্রেসের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ফায়দা তুলে তারা পাঞ্জাবে ক্ষমতা দখলে মরিয়া। কংগ্রেসের আধিপত্য মুছে আপ এখানে বৃহত্তম দল হিসেবে উঠে আসবে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে, এমনটাই আভাস এবিপি-সি ভোটারের সমীক্ষায়। সমীক্ষা অনুযায়ী ১১৭ সদস্যের পাঞ্জাব বিধানসভায় আসন্ন ২০২২-এর নির্বাচনে আম আদমি পার্টি ৫০ থেকে ৫৬টি আসন দখল করবে। কংগ্রেস পেতে পারে ৩৯ থেকে ৪৫টি আসন। আর শিরোমণি অকালি দল পেতে পারে ১৭ থেকে ২৩টি আসন। বিজেপি শূন্য থেকে তিনটি আসন পেতে পারে। অন্যান্যরা পেতে পারে বড়জোর একটি আসন।

গোয়া

গোয়া

গোয়ায় বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে অ্যান্টি ইনকামবেন্সি ফ্যাক্টর থাকলেও বিরোধী শিবিরে ভাঙন ধরিয়ে সেই প্রতিকূলতা জয় করে নিতে অনেকটাই সক্ষম হয়েছে বিজেপি। এবিপি-সি ভোটারের সমীক্ষায় আভাস, ৪০ আসন বিশিষ্ট গোয়ায় বিজেপি ১৭ থেকে ২১টি আসন নিয়ে একক সংখ্যা গরিষ্ঠ দল হয়ে উঠতে পারে। কংগ্রেসকে তৃতীয় স্থানে নামিয়ে দিতে পারে আম আদমি পার্টি। আম আদমি পার্টি এখানে ৫ থেকে ৯টি আসন পেতে পারে। কংগ্রেস ৪ থেকে ৮টি আসন নিয়ে তৃতীয় হবে গোয়ায়। গোয়ায় কংগ্রেসের আধিপত্য মুছে দিতে একাধারে আম আদমি পার্টি, অন্য ধারে তৃণমূল কাজ করে চলেছে। কংগ্রেস ভাঙতে ভাঙতে তলানিতে নেমে যেতে পারে বলে আভাস সমীক্ষায়। উল্লেখ্য, কংগ্রেস ২০১৭ সালের বিধানসভা নির্বাচনে বৃহত্তম দল হয়েছিল ১৭টি আসন নিয়ে। বিজেপি ১৩ আসন নিয়ে এ রাজ্যে ক্ষমতা দখল করেছিল অন্যান্য আঞ্চলিক দলগুলিকে নিয়ে।

মণিপুর

মণিপুর

গোয়ার মতো মণিপুরেও বৃহত্তম দল হওয়া সত্ত্বেও বিজেপির চালে সরকার গড়তে পারেনি কংগ্রেস। রাজপাট হারিয়ে বিরোধী দল হিসেবেই ৫ বছর কাটাতে হয়েছে কংগ্রেসকে। এবার সমীক্ষায় আভাস, ফের সরকার গড়ার পথে এগিয়ে বিজেপিই। তবে মণিপুর বিজেপির জন্য একটি কঠিন চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে। এবিপি-সি ভোটারের সমীক্ষা অনুসারে, ৬০ সদস্যের মণিপুর বিধানসভায় বিজেপি পেতে পারে ২৯ থেকে ৩৩টি আসন। আর কংগ্রেসের দখলে যেতে পারে ২৩ থেকে ২৭টি আসন। নাগা পিপলস ফ্রন্ট পেতে পারে ২ থেকে ৬টি আসন। বিজেপি ২০১৭ সালে মণিপুরের নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। তারা ২১টি আসনে জয়যুক্ত হয়েছিল। কংগ্রেস পেয়েছিল ২৮টি আসন। তা সত্ত্বেও এনপিপি, এনপিএফ এবং লোক জনশক্তি পার্টি (এলজেপি)-র সমর্থন নিয়ে সরকার গঠন করেছিল বিজেপি।

রাজ্যে ফের বাড়ছে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা, ভয় বাড়াচ্ছে কলকাতাও

English summary
BJP can mate to win Assembly Elections of four states and Congress will be white wash
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X