• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

প্রস্তুত পাটলীপুত্রের রণভূমি, বিহারে নীতীশকে ছাপিয়ে যাওয়ার দৌড়ে কারা? এক নজরে বিহারের ভোটচিত্র

ভোট যুদ্ধের দামাম বেজে গিয়েছে পাটলীপুত্রে। তিন দফায় ভোট। করোনা মহামারীর মধ্যেও চড়তে শুরু করেছে বিহারের রাজনৈতিক উত্তাপ। অনেকটাই ঘর গুছিয়ে ফেলেছে শাসক দল জেডিইউ। বিজেপি চোখ বন্ধ করেই আস্থা রেখেছে নীতীশের উপর। মহাজোটে অবশ্য অশান্তি বাড়ছে। অগোছাল পরিস্থিতির মধ্যে যে যার মতো করে ঘুঁটি সাজাচ্ছে মহাজোটে।

নীতীশ ইমেজের ক্যারিশ্মা

নীতীশ ইমেজের ক্যারিশ্মা

ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণার আগে থেকে বিজেপি দু হাত তুলে নীতীশেই আত্মসমর্পণ করেছিল। একাধিকবার বিহারে শাসন করার পর অভিজ্ঞতা আর দক্ষতায় নীতীশকে কাবু করা যে অন্য যেকোনও দলের পক্ষে কঠিন হবে তা আগেই আঁচ করে নিয়েছে বিজেপি। জল মেপেই তাই নীতীশের আজ্ঞা মেনেই কাজ করার কথা ঘোষণা করেছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। কারণ সুশীল মোদী যে কোনও ভাবেই নীতীশকে ছাপিয়ে যেতে পারবেন না তা বিলক্ষণ জানেন অমিত শাহরা। সেকারণেই বিহারে নীতীশের ছত্রছায়ায় থাকার কৌশলী পদক্ষেপ করেছে বিজেপি।

তেজস্বীতে নজর

তেজস্বীতে নজর

অসুস্থ লালু প্রসাদ যাদব। দুই ছেলে তেজস্বী আর তেজপ্রতাপের মধ্যে বনিবনা হয় না। পরিবারের বিরোধ প্রকাশ্যে এসে পড়েছে। ভাইয়ে ভাইয়ে বিরোধ সামাল দেওয়ার সামার্থ নেই রাবড়ি দেবীরও। যার জেরে ছন্নছাড়া হয়ে পড়েছে আরজেডি। নীতীশের ছত্রছায়ায় তেজস্বী দীর্ঘদিন কাজ করেছেন। সেক্ষেত্রে একটা অভিজ্ঞতা রয়েছে। তারসঙ্গে রাজ্যে যুব সম্প্রদায়ের মধ্যে তেজস্বী যাদবের একটা গ্রহণ যোগ্যতা রয়েছে। সেই জনপ্রিয়তা নীতীশের সঙ্গে থাকার সময়েই তৈরি হয়েছিল। তারপরে একাধিক আন্দোলনে নিজের বুদ্ধিতে শান দিয়েছেন তেজস্বী। বিহারে শাসক দল জেডিইউ-র বিরোধিতায় চ্যালেঞ্জ দেওয়ার ক্ষমতা তেজস্বীর রয়েছে।

চিরাগ পাসোয়ান

চিরাগ পাসোয়ান

তেজস্বীকে চ্যালেঞ্জ জানানোর ক্ষমতা রাখেন লোক জনশক্তি পার্টি নেতা চিরাগ পাসোয়ান। এনডিএ-র ছাত্র ছায়ায় থাকলেও নীতীশ সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে পিছপা হননি রাম বিলাস পাসোয়ানের ছেলে চিরাগ পাসোয়ান। পর পর দুবার জামুই লোকসভা কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়েছেন তিনি। ২০২০ সালে এই প্রথম ছেলের দায়িত্বেই বিহারের ময়দান ছেড়েছেন রাম বিলাস পাসোয়ান।

জিতেন রাম মাঝি

জিতেন রাম মাঝি

মহাজোটের অংশ থেকেই নিজেদের আদিবাসী সমাজের অদিকার বাঁিচয়ে রাখার লড়াই চালিয়ে গিয়েছেন জিতেন রাম মাঝি। কিন্তু ভোট এগিয়ে আসতেই আসন ভাগাভাগি নিয়ে বিরোধ তৈরি হয় কংগ্রেস এবং আরজেডির সঙ্গে। তারপরেই জোট ছেড়ে বেরিয়ে আসেন তিনি। বিহারের আদিবাসী সমাজের বেশ প্রভাবশালী নেতা তিনি। বিজেপি-জেডিইউ জোেট হাত মিলিয়ে নিজের জয়ের পথ সুগম করেছেন জিতেন রাম। একই সঙ্গে আজিবাসী ভোট নীতীশের হাতে তুলে দিয়েছেন জিতেন। যার জেরে ভোটের আগেই অনেকটা এগিয়ে দিয়েছেন নীতীশ।

কলকাতা : বিজেপির অনুষ্ঠানের মঞ্চ ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

বিহার বিধানসভা নির্বাচন ২০২০ -র ভোটের ফলাফল কবে প্রকাশ্যে আসবে! একনজরে জরুরি কিছু তথ্য

English summary
Bihar assembly election 2020 along with Nitish Kumar the main faces of political parties
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X