• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

    ১৫ বছর বয়সেই আইআইটি-তে সুযোগ, তাক লাগিয়ে দিল এই কিশোর

    আইআইটি প্রবেশিকা পরীক্ষায় কেল্লা ফতে! তাও আবার ১৫ বছর বয়সে। সব মিলিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছে, ফিরোজাবাদের অভয় আগরওয়াল। আইআইটি বিএইচ ইউতে পড়ার সুযোগ পয়েছে সে।[আরও পড়ুন:আইআইটি বম্বের ৭০ শতাংশ ছাত্রছাত্রী রোজ স্নান করেন না, জানাল সমীক্ষা]

    ১৫ বছর বয়সে দেশেরে আর চার পাঁচটা ছেলে মেয়ে বোর্ডের পরীক্ষার জন্য নিজেকে তৈরি করে। তবে অভয়, তাদের থেকে আলাদা। ১৫ বছর বয়সেই সে জায়গা করে নিয়েছে এমন এক স্থানে, যা পেতে বহু বছর লড়াই করতে হয় অনেককেই। এবছরের জয়েন্ট এন্ট্রান্স অ্যাডভান্স পরীক্ষায় ২৪৬৭ স্থানটি দখল করে সে।[আরও পড়ুন:আইআইটি-দিল্লি সমেত একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট হ্যাক পাকিস্তানের]

    ১৫ বছর বয়সেই আইআইটি-তে সুযোগ, তাক লাগিয়ে দিল এই কিশোর

    এরপর আইআইটি-তে ভর্তির জন্য ফিরোজাবাদের এই বিস্ময়-বালক যায় আইআইটি কানপুরে, যেখানে তার সমস্ত পরিচয়পত্র খতিয়ে দেখে নেওয়া হয়। তখনই এই কিশোরের বয়স শুনে অবাক হয়ে যান সবাই। কানপুর আইআইটির ভাইস চেয়ারম্যান প্রোফেসার শালাভ বলেছেন, এই কিশোরের সঙ্গে দেখা করে তিনি খুবই আপ্লুত।

    তবে আইআইটি বিএইচ ইউতে পড়ার সুযোগ পেলেও , আইআইটি রুর্কিতে পড়তে চায় অভয়। সে মনে করছে সেখানে সুযোগ সে পেয়ে যাবে। বাবা মুকেশ অগরওয়াল ফিরোজাবাদ নগর নিগমের পাম্প অ্যাটেন্টেড। ছেলের এই সাফল্যে চোখে এখন আনন্দাশ্রু গর্বিত মুকেশ আগরওয়ালের। অভয় ছাড়াও , তার পরিবারে তার দাদাও বর্তমানে ইঞ্জিনিয়ারিং এর ছাত্র।

    English summary
    A 15-year-old boy from Firozabad, who cleared his JEE Advanced this years, could become the youngest person to enrol at an IIT.Abhay Agarwal, who will turn 16 in November this year, has been allotted a seat at IITBHU after scoring 2467 All India Rank. At 15, when students usually prepare for Class X Board exam, the teenager was at IIT-Kanpur to get his documents verified for admission.
    For Daily Alerts

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    Notification Settings X
    Time Settings
    Done
    Clear Notification X
    Do you want to clear all the notifications from your inbox?
    Settings X
    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more