কার্নি সেনার হুমকির মুখে পদ্মিনীমহলে ঢাকা পড়ল এএসআই-এর ফলক, নেপথ্যে এই কারণ

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News

'পদ্মাবতী' নিয়ে রাজপুত কার্নি সেনার দেশজোড়া বিক্ষোভের মধ্যেই চিতোরগড় দূর্গের পদ্মিনীমহলে স্থাপিত আর্কিওলজি সার্ভে অব ইন্ডিয়ার ফলকটি ঢেকে ফেলা হল কাপড় দিয়ে । এর কারণ হল , প্রস্তরটি লেখা রয়েছে, এই পদ্মিনী মহলেই রাজপুত রানি পদ্মিনীকে দেখে ছিলেন আলাউদ্দিন খিলজি। আর এই বিতর্ক এড়াতেই ফলক ঢাকতে বাধ্য হল সরকারী এই প্রতিষ্ঠান।

কার্নি সেনার হুমকির মুখে পদ্মিনীমহলে ঢাকা পড়ল এএসআই-এর ফলক, নেপথ্যে এই কারণ

[আরও পড়ুন:চিতোরগড়ের এই জায়গাতেই পদ্মিনীকে দেখেছিলেন খিলজি , জানুন 'পদ্মিনীমহল' ঘিরে আজানা তথ্য]

কিছুদিন আগে রাজপুত কার্নি সেনার তরফে দাবি তোলা হয়েছিল, পদ্মিনীমহলের ওই প্রস্তরটিকে সরিয়ে ফেলতে হবে। আর্কিওলজি সার্ভে অব ইন্ডিয়ার প্রতিষ্ঠিত ওই প্রস্তরে, লেখা রয়েছে খিলজি এখানে পদ্মিনীকে দেখেছিলেন। আর এনিয়ে আপত্তি জানিয়ে ফলক উচ্ছেদের দাবি তোলে কার্নি সেনা। এই হুমকির জেরে সেই ফলকটি কাপড়ে ঢেকে ফেলা হয় ।

রাজপুত কার্নি সেনার তরফে যাবতীয় হিংসা এড়াতেই এই পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হয়েছে আর্কিওলজি সার্ভে অব ইন্ডিয়া। এএসআইয়ের এখ পদস্থ আধিকারিকের তরফে জানানো হয়েছে যোধপুরে তাদের আঞ্চলিক দফতর থেকে অনুমতি নিয়েই এই ফলককে ঢেকে ফেলা হয়েছে। গোটা দূর্গে একমাত্র পদ্মিনীমহলের এই প্রস্তরটিতে লেখা ছিল যে 'খিলজি দেখেছেন পদ্মিনীকে'। রাজপুত সম্প্রদায় অনেক দিন ধরে দাবি জানিয়ে আসছে যে, খিলজির পদ্মিনীকে আয়নায় দেখা সংক্রান্ত যাবতীয় প্রেক্ষিত, সাইনবোর্ড, সরিয়ে ফেলতে হবে। এমনকি দূর্গের গাইডদেরও বলা হয়েছে যে খিলজির পদ্মিনীকে দেখা সংক্রান্ত কোনও তথ্য বলা যাবে না। এই বার্তা তাঁদের কাছে এসেছে রাজপুত কার্নি সেনার তরফে।

English summary
Threatened by the members of the Shri Rajput Karni Sena, the plaque outside the Padmini Mahal in Chittorgarh fort, now has been covered by a cloth.

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more