• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

স্ত্রীর ভিডিও দেখে মানসিক ধাক্কা, চরম প্রতিক্রিয়া এই প্রবাসী পাঞ্জাবীর

স্ত্রীর অবৈধ সম্পর্কের কথা জানতে পেরেছিলেন। আর তার জেরেই পঞ্জাবের কালাসিঙ্গা গ্রামে স্ত্রী ও দুই শিশুকে পুড়িয়ে মেরে নিজেও গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা করলেন এক প্রবাসী ভারতীয়।

স্ত্রীর ভিডিওর জেরে আগুন লাগালেন স্বামী

৩৫ বছরের কুলবিন্দর সিং থাকতেন জর্ডনে। পঞ্জাবের কালাসিঙ্গা গ্রামে তাঁদের আদিবাড়ি। কয়েক মাসের আগে সেই বাড়িতে থাকতে আসেন কুলদীপ। সঙ্গে তাঁর স্ত্রী ও দুই ৫ বছরের পুত্র অভি ও ৮ বছরের কন্যা সোনালও এসেছিল।

কিন্তু গ্রামে আসার পরই, আরেক ব্যক্তির সঙ্গে কুলবিন্দরের স্ত্রীর অবৈধ সম্পর্ক হয়। গ্রামের অপর চার ব্যক্তি তাদের অসতর্ক অবস্থায় ছবিও তুলে নেয়। এরপর থেকেই সেই ছবি ফাঁস করে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয় ওই মহিলাকে। পুলিশের অনুমান তাঁকে চাপ দিয়ে বেশ কিছু অর্থও হাতিয়েছিল ওই চারজন। কিন্তু তারপরেও কুলবিন্দরকে সেই ভিডিও পাঠিয়ে দেয় তারা।

স্ত্রীর সেই ভিডিও দেখার পরই মানসিকভাবে ভেঙে পরে কুলবিন্দর। রাগের মাথায় জারিকেন ভরা পেট্রোল এনে স্ত্রী, সন্তান ও নিজের গায়ে ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। ঘটনাস্থলেই কুলদীপ ও তাঁর দুই সন্তানে মৃত্য়ু হয়। তাঁর স্ত্রীর দেহের ৮০ শতাংশ পুড়ে যায়। সেই অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যেই তাঁরও মৃত্যু হয়।

পুলিশ গ্রামের যে ৪ জন ব্যক্তি ওই ভিডিও তুলে ব্ল্যাকমেইল করতেন এবং কুলবিন্দরকে ওই ভিডিও পাঠিয়েছিলেন তাদের নামে মামলা শুরু করেছে।

English summary
An NRI man burns his whole family and self. He was upset after seeing his wife's 'sleazy' video with another man.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X