• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

লাদাখে উসকানির জের! বিহারে মেগা প্রোজেক্ট থেকে সরানো হল চিনা সংস্থাকে, মাথায় হত বেজিংয়ের

চিনা দ্রব্য বর্জনে সরব দেশ৷ এবার সেই আঁচ দেখতে পাওয়া গেল বিহারে৷ রাজ্যের মধ্যে দিয়ে বয়ে যাওয়া গঙ্গার উপর দিয়ে একটা মেগা ব্রিজ তৈরির পরিকল্পনাকে বাস্তবায়িত করার ভার পড়েছিল দুটি ভারতীয় কম্পানির উপর। যার অংশীদার একটি চিনা নির্মাণ কোম্পানি৷ লাদাখ ইস্যুর পর কেন্দ্র বাতিল করে দিল ওই ভারতীয় কোম্পানির টেন্ডার৷

কেন বাতিল হল বরাত?

কেন বাতিল হল বরাত?

বাতিল করার বিষয়টি নিয়ে বিহারের সড়ক নির্মাণ মন্ত্রী নন্দ কিশোর যাদব জানান , 'সাতটি কোম্পানি টেন্ডারে দর দিয়েছিল৷ তার মধ্যে তিনটি কম্পানিকে প্রতিযোগিতার শুরুতেই সরিয়ে দেওয়া হয়৷ বাকি থাকা ৪টি কোম্পানির মধ্যে দুটি কম্পানির অংশীদার হল চিনা কোম্পানি৷ প্রথমে ওই দুটি কম্পানিকে অংশীদার বদলের আবেদন করা হলে তারা তা করতে অসর্মথ হয়৷ তারপরই আমরা কোম্পানি দুটির টেন্ডার বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছি৷'

ভারতের আপসহীন নীতি

ভারতের আপসহীন নীতি

তিনি আরও বলেন , 'ব্রিজ তৈরির টেন্ডারটি পাইয়ে দেওয়া মানে বিশ্বের কাছে পরিচিতি পাবে ভারতের আপসহীন নীতি৷ এই গুরুত্বপূর্ণ ব্রিজ তৈরিতে চিনা কম্পানির সহযোগিতার কথা যদি ভারতীয়দের কাছে পৌঁছে যায় তাহলে তা হয়ত ভুল বার্তা বহন করতে পারে৷ পাশাপাশি ভারত এখন "আত্মনির্ভর" নীতিতে বিশ্বাসী। তাই বিদেশি কোম্পানির অপেক্ষাকৃত কম যোগদান এই নীতিকে আরও সমৃদ্ধ করতে পারে৷ অনেক আলোচনার পর এই সিদ্ধান্তটি নেওয়া হয়েছে। সেই কারণে চালু করা হয়েছে পুনরায় টেন্ডার ডাকার প্রক্রিয়া৷'

২৯০০ কোটি টাকার প্রোজেক্ট

২৯০০ কোটি টাকার প্রোজেক্ট

পুরো পরিকল্পনাটিকে বাস্তবায়িত করতে খরচ হতে পারে ২৯০০ কোটি টাকা৷ এই পরিকল্পনাটির অন্তর্গত রয়েছে ৫.৬ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের একটি ব্রিজ, ছোটো ছোটো কয়েকটি ব্রিজ এবং একটি রেলওয়ে ব্রিজ৷ চিনা কম্পানির টেন্ডার বাতিল করে দেওয়ার প্রধান কারণ লাদাখে ভারতে উপর চিনা আক্রমণ৷ সর্বোপরি, ২০ জন জওয়ানের মৃত্যু৷ সেই কারণে বর্জিত হচ্ছে চিনা দ্রব্য থেকে চিনা কোম্পানির অংশীদারিত্ব৷

ব্রিজটির অনুমোদন দিয়েছিল কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেট

ব্রিজটির অনুমোদন দিয়েছিল কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেট

এক কেন্দ্রীয় আধিকারিক বলেন , '২০১৯ এর ১৬ ডিসেম্বর নরেন্দ্র মোদীর তত্ত্বাবধানে কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেট কমিটি ইকোনমিক্স অ্যাফেয়ারের দ্বারা অনুমোদিত হয় বিহারে গঙ্গার উপর ব্রিজ তৈরির এই প্রকল্পটি৷ এই ব্রিজটি তৈরি হলে পটনা, সারন এবং বৈশালীর বাসিন্দারা উপকৃত হবেন৷'

কী হবে এই প্রোজেক্টের?

কী হবে এই প্রোজেক্টের?

তিনি আরও বলেন , 'এই প্রকল্পটির সঙ্গে জড়িত রয়েছে ছোটো ছোটো কয়েকটি প্রকল্প৷ সেগুলি হল একটি রেল ওভার ব্রিজ, ১.৫৮ কিলোমিটার দীর্ঘ একটি সেতু, একটি ফ্লাই ওভার, তিনটি বাস স্ট্যান্ড, ১৩টি রোড জংশন ৷ প্রকল্পটি শেষ করার পূর্ব নির্ধারিত সময় হল ২০২৩-এর জানুয়ারিতে৷'

চিনকে রুখতে ভারতের পাশে বিশ্বের তাবড় দেশগুলি, দ্বন্দ্ব ভুলে সামরিক সাহায্য রাশিয়া-আমেরিকার!

English summary
Amid India China Face off in Ladakh, Centre cancels bridge project in Bihar over Chinese investments
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X