• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

২০১৯ সালে বিশ্বে ৬৬ লক্ষ অকালমৃত্যুর জন্য দায়ী বায়ুদূষণ, তালিকা শীর্ষে ভারত

Google Oneindia Bengali News

২০১৯ সালে সারা বিশ্বে বায়ু দূষণের কারণে প্রায় ৬৬ লক্ষেরও বেশি মানুষ মারা গিয়েছে৷ মঙ্গলবার প্রকাশিত একটি নতুন গবেষণায় অনুমান করা হয়েছে যে, এই মৃত্যুর সংখ্যা ভারত সর্বোচ্চ ১.৬৭ মিলিয়ন৷ দূষণের কারণে ঘটা এই ধরনের অকাল মৃত্যুর ১৭.৮ শতাংশ হয়েছে ভারতেই৷ সামগ্রিকভাবে, ল্যানসেট প্ল্যানেটারি হেলথের একটি সমীক্ষা অনুসারে শেষ কয়েক বছরে ন'মিলিয়ন মানুষ দূষণের কারণে মারা গিয়েছে৷ যা ২০১৫ সালের শেষ বিশ্লেষণের পর থেকের একটি সংখ্যা। বিশ্বব্যাপী ছ'টি মৃত্যুর মধ্যে একটি হয়েছে বায়ু দূষণের কারণে৷ নতুন গবেষণার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে এর আগে জল দূষণ ১.৩৬ মিলিয়ন অকাল মৃত্যুর জন্য দায়ী ছিল৷ সীসা এক্সপোজারের ফলে আরও ৯ লক্ষ এবং বিষাক্ত পেশাগত ঝুঁকি থেকে আরও ৮ লক্ষ ৭০ হাজার অকাল মৃত্যু ঘটেছে। পরিবেষ্টিত বায়ু দূষণ, যা স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে সাধারণ বায়ুকে বোঝায়, সেটি ২০১৯ সালে ৪.৫ মিলিয়ন মৃত্যুর জন্য দায়ী। যা ২০১৫ সালে ৪.২ মিলিয়ন এবং ২০০০ সালে ২.৯ মিলিয়নের চেয়ে বেশি।

কী বলছে ল্যানসেটের প্রতিবেদন?

কী বলছে ল্যানসেটের প্রতিবেদন?

ল্যানসেটের গবেষণায় আরও উল্লেখ করা হয়েছে যে ভারত গৃহস্থালী কাজকর্ম থেকে বায়ু দূষণের বিরুদ্ধে প্রচেষ্টা চালিয়েছে। বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনা কর্মসূচির মাধ্যমে ধোয়া কমানো গিয়েছে৷ কিন্তু তারপরও বায়ু দূষণ সম্পর্কিত মৃত্যুর আনুমানিক সংখ্যা ভারতেই বিশ্বের সবচেয়ে বেশি। ভারত দূষণের উৎসগুলিকে প্রশমিত করার জন্য যন্ত্র এবং নিয়ন্ত্রক ক্ষমতা তৈরি করেছে কিন্তু দূষণ নিয়ন্ত্রণ প্রচেষ্টা চালানোর জন্য এবং উল্লেখযোগ্য উন্নতি অর্জনের জন্য কোন কেন্দ্রীভূত ব্যবস্থা এখনও নেই দেশে৷ ভারতের ৯৩ শতাংশ দূষণের পরিমাণ ১০এম/এমকিউ।

জৈব্যবস্তু পোড়ানো দূষণের অন্যতম কারণ!

জৈব্যবস্তু পোড়ানো দূষণের অন্যতম কারণ!

বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশিকা অনুসারে, ইন্দো-গাঙ্গেটিক সমভূমিতে বায়ু দূষণ সবচেয়ে গুরুতর, যেখানে ভূ-সংস্থান এবং আবহাওয়াবিদ্যা শক্তি, গতিশীলতা, শিল্প, কৃষি এবং অন্যান্য কার্যকলাপ দূষণকে কেন্দ্রীভূত করে থাকে। ভারতে বায়ু দূষণের মৃত্যুর একক বৃহত্তম কারণ ছিল পরিবারেগুলি বিভিন্ন জৈববস্তু পোড়ানো, তারপরে কয়লা দহন এবং ফসল পোড়ানো। গড় পরিবেষ্টিত বায়ু দূষণের এক্সপোজার ভারতে ২০১৪ সালে ৯৫এমজি/এমকিউ শীর্ষে ছিল৷ ২০১৭ সালের মধ্যে ৮৫এমজি/এমকি এ হ্রাস পেয়েছে, কিন্তু সম্প্রতি আবার ধীরে ধীরে এটি কিছুটা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

বায়ু দূষণের কারণে কার্ডিওভাসকুলার রোগ ভারতীয়দের!

বায়ু দূষণের কারণে কার্ডিওভাসকুলার রোগ ভারতীয়দের!

প্রসঙ্গত, ভারতে বায়ু দূষণের কারণে ১.৬৭ মিলিয়ন মৃত্যুর মধ্যে, বেশিরভাগ (০.৯৮ মিলিয়ন) পিএম২.ফাইভ দূষণের কারণে হয়েছিল। আরও ০.৬১ মিলিয়ন গৃহস্থালী বায়ু দূষণের কারণে হয়েছে। ল্যানসেটের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্বের সর্বোচ্চ পরিবেষ্টিত পিএম২.ফাইভ মাত্রা - জনসংখ্যার ওজনের গড় নেপাল ছাড়া ভারতে দেখা যায়। পিএম২.ফাইভ দূষণ বলতে অতি-সূক্ষ্ম কণার উচ্চ ঘনত্বকে বোঝায় যা সাধারণত কোনও কিছু পোড়ানোর সময় নির্গত হয়৷ এই কণাগুলি ফুসফুসের গভীরে পৌঁছাতে এবং রক্তপ্রবাহে প্রবেশ করতে সক্ষম হয়, যা কার্ডিওভাসকুলার রোগের দিকে পরিচালিত করে।

এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে হাজিরার নির্দেশ সিবিআই দফতরেএসএসসি নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে হাজিরার নির্দেশ সিবিআই দফতরে

English summary
Air pollution is responsible for 66 lakh premature deaths in world in 2019, India at list top
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X