• search

থুতু ফেললে এবার ৬ মাসের হাজতবাস!

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    দেরাদুন, ২৪ মার্চ : উত্তরপ্রদেশে বিজেপি সরকার আসার পর থেকেই একের পর এক নিয়ম নীতি লাগু হয়ে চলেছে। ইতিমধ্যেই যোগী আদিত্যনাথের নির্দেশে পান , গুটখা সেবনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে সরকারি দফতরে। পিছিয়ে নেই প্রতিবেশী উত্তরাখণ্ডও। সেখানে এবার পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা নিয়ে লাগু হতে চলেছে বেশ কিছু নিয়ম নীতি।

    বিজেপি শাসিত উত্তরাখণ্ডে সরকারি দফতরে বা রাস্তাঘাটে কেউ যদি থুতু ফেলেন, তাহলে তাঁর ৫ হাজার টাকা জরিমানা বা ৬ মাসের জেল হতে পারে। এরকমই নিয়ম লাগু করতে চলেছে সেরাজ্যের ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত প্রশাসন।

    থুতু ফেললে এবার ৬ মাসের হাজতবাস!

    উত্তরাখণ্ডের নগরোন্নয়ন দফতরের আধিকারিকরা জানিয়েছেন গত বছরে পাশ হওয়া নভেম্বরের ' অ্যান্টি লিটরিং ল ' অনুযায়ী , রাজ্যের সমস্ত পৌর এলাকায় এই নিয়ম লাগু হবে। এই নিয়মকে নিয়ে খুশি এলাকাবাসীরাও।

    দেরাদুন নগর নিগমের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, রাজ্যে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখতে তাঁরা স্যানিটাইজেশন ইন্সপেক্টর সমেত একাধিক ব্যক্তিকে এই কাজে নিযুক্ত করেছেন। পথে ঘাটে যদি কাউকে থুতু পেলতে দেখা যায়, তাহলে সঙ্গে সঙ্গে যেন অভিযুক্তকে ধরে চালান কাটা হয়, তারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনিক কর্মীদের।

    English summary
    Taking a clue from his Uttar Pradesh counterpart and party colleague Aditya Nath Yogi, who has banned 'paan' and 'gutkha' use in government offices, Trivendra Singh Rawat's Uttarakhand government too has swung into action imposing a hefty fine of Rs 5,000 or a jail term up to six months on people found spitting on office premises or other public places.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more