• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

ঘোষণাই সার! লকডাউনে এখনও অবধি বিনামূল্য খাদ্য পেয়েছেন মাত্র ২০ লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিক

  • |

কেন্দ্রের ঘোষণা অনুযায়ী কথা ছিল প্রায় যাদের রেশন কার্ড নেই এমন আট কোটি পরিযায়ী শ্রমিকের ঘরে পৌঁছাবে খাদ্যশস্য। কিন্তু বর্তমানে দেখা যাচ্ছে এখনও পর্যন্ত সমস্ত রাজ্য গুলিতে মাত্র ২০.৩৬ লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিকের কাছে রেশন পৌঁছেছে।

মে মাসেই বিনামূল্যে খাদ্যশস্য বিতরণের ঘোষণা করা হয় কেন্দ্রের তরফে

মে মাসেই বিনামূল্যে খাদ্যশস্য বিতরণের ঘোষণা করা হয় কেন্দ্রের তরফে

রবিবার কেন্দ্রীয় খাদ্য মন্ত্রকের প্রকাশিত তথ্য অনুসারে এই তথ্য জানা যাচ্ছে। গত মাসের মাঝামাঝি সময় প্রধানমন্ত্রী মোদীর আত্মনির্ভর ভারত করতে ২০ লক্ষ টাকার আর্থিক প্যাকেজ প্রকাশের সময় পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য বড় ঘোষণা করতে দেখা যায় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণকে। আগামী দু'মাস রেশন কার্ড ছাড়াও সমস্ত পরিযায়ী শ্রমিকদের বিনামূল্যে খাবার দেওয়ার কথা বলেন তিনি। তাদের প্রত্যেককে পাঁচ কেজি করে চাল বা গম ও এক কেজি ডাল দেওয়া হবে বলেও জানানো হয়। পাশাপাশি বিপিএল কার্ড না থাকলেও এই খাবার বিনামূল্যে পাবেন তাঁরা।

পৌঁছেছে ১০,১৩১ টন খাদ্যশস্য

পৌঁছেছে ১০,১৩১ টন খাদ্যশস্য

যদিও বর্তমানে দেখা যাচ্ছে সেই লক্ষ্যমাত্রার ধারেকাছেও পৌঁছাতে পারেনি সরকারি খাদ্যশস্যের বরাদ্দ। বর্তমানে একটি বিবৃতিতে কেন্দ্রীয় খাদ্য মন্ত্রক বলেছে, "রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলিতে ৪.৪২ লক্ষ টন খাদ্যশস্য মজুত করা হয়েছে। যার মধ্যে ১০,১৩১ টন খাদ্যশস্য ২০.২৬ লক্ষ্য পরিযায়ী শ্রমিকের কাছে পৌঁছানো সম্ভব হয়েছে। "

মাত্র ২.২৫ শতাংশ শ্রমিকের ঘরে পৌঁছেছে খাদ্য শস্য

মাত্র ২.২৫ শতাংশ শ্রমিকের ঘরে পৌঁছেছে খাদ্য শস্য

এই তথ্য থেকেই বোঝা যাচ্ছে মোট সুবিধাভোগী পরিযায়ী শ্রমিকদের মধ্যে বর্তমানে ২.২৫ শতাংশ শ্রমিককেই শুধুমাত্র খাদ্যশস্য দেওয়া সম্ভব হয়েছে। পাশাপাশি মোট খাদ্যশস্যের পরিমাণ যথেষ্ট কম রাখা হয়েছে বলে যাচ্ছে। পূর্ববর্তী সরকারি তথ্য অনুযায়ী মে-জুন মাসে মোট প্রায় ৭.৯৯ লক্ষ টন খাদ্যশস্য পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে পৌঁছে যাওয়ার কথা রয়েছে।

পরিযায়ী শ্রমিকদের খাদ্য শস্য বিতরণের ক্ষেত্রে ভিন্ন মডেল রাজ্য গুলিতে

পরিযায়ী শ্রমিকদের খাদ্য শস্য বিতরণের ক্ষেত্রে ভিন্ন মডেল রাজ্য গুলিতে

এদিকে অভিবাসী শ্রমিকদের বিনামূল্যে খাদ্যশস্য বিতরণের জন্য রাজ্য গুলি বিভিন্ন মডেল গ্রহণ করেছে। কেউ কেউ শুকনো রেশন সহ রান্না করা খাবার বিতরণ করছেন, আবার কেউবা ফুড কুপনও দিচ্ছে। একইভাবে, প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনার (পিএমজিকেএ) আওতায়, রাজ্যগুলি এপ্রিল মাসে ৯২.৪৫ শতাংশ মানুষের কাছেই বিনামূল্যে শস্য বিতরণ করেছে। মে মাসে সেই পরিমাণ ছিল ৮৭.৩৩ শতাংশ, জুনে যা এখনও পর্যন্ত ১৭.৪৭ শতাংশ।

করোনায় সুস্থ হয়ে ওঠায় শোভাযাত্রা করে নিয়ে আসার জন্য পুলিশ গ্রেফতার করল স্থানীয় প্রতিনিধিকে

English summary
20 lakh migrant workers have received food grains instead of eight crore till now in lockdown
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X