• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

FIFA World Cup 2022: মেসির পেনাল্টি মিস শুভ সংকেত হতে পারে আর্জেন্টিনার জন্য; ১৯৭৮, ১৯৮৬-এর হিসেব মিলে যাচ্ছে

FIFA World Cup 2022: মেসির পেনাল্টি মিস শুভ সংকেত হতে পারে আর্জেন্টিনার জন্য; ১৯৭৮, ১৯৮৬-এর হিসেব মিলে যাচ্ছে
Google Oneindia Bengali News

বিশ্বকাপ জয়ের লক্ষ্যে কাতারে লিওনেল মেসির নেতৃত্বে নেমেছে আর্জেন্টিনা। দিয়েগো মারাদোনার পর বিশ্বকাপের মঞ্চে বারবার খালি হাতে ফিরতে হয়েছে লা আলবিসিলেস্তাকে। কিংবদন্তি মেসির এটাই শেষ বিশ্বকাপ হতে চলেছে। বিশ্ব ফুটবলের সর্বকালের অন্যতম সেরা তারকা নিজের শেষ বিশ্বকাপ জিততে মরিয়া। সৌদি আরবের বিরুদ্ধে হারের পর, মেক্সিকো এবং পোল্যান্ডের বিরুদ্ধে পর পর দুই ম্যাচে জয় তুলে নিয়ে আর্জেন্টিনা পৌঁছে গিয়েছে প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে। শেষ ষোলোয় আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া।

মেসির পেনাল্টি মিস শুভ সংকেত:

মেসির পেনাল্টি মিস শুভ সংকেত:

পোল্যান্ডের বিরুদ্ধে অ্যালেক্সিস ম্যাক অ্যালিস্টার এবং জুলিয়ান আলভারেজের গোলে জয় এলেও এই ম্যাচে লিওনেল মেসি পেনাল্টি মিস করেন। তবে, মেসির এই পেনাল্টি মিস শুভ সংকেত হতে পারে আর্জেন্টিনার জন্য। আর্জেন্টিনার ১৯৭৮ বিশ্বকাপ এবং ১৯৮৬ বিশ্বকাপের সাফল্যের সঙ্গে মেসির এই পেনাল্টি মিসকে এক শ্রেণিতে ফেলা হচ্ছে কারণ ওই দুই বছরও গ্রুপের তৃতীয় ম্যাচে পেনাল্টি মিস করেছিলেন তৎকালীন আর্জেন্টিনা দলের দুই কাণ্ডারী মারিও কেম্পেস এবং সর্বকালের সেরা দিয়েগো আর্মান্দো মারাদোনা।

১৯৭৮ এবং ১৯৮৬ বিশ্বকাপে গ্রুপের তৃতীয় ম্যাচে পেনাল্টি মিস করেন কেম্পেস-মারাদোনা:

১৯৭৮ এবং ১৯৮৬ বিশ্বকাপে গ্রুপের তৃতীয় ম্যাচে পেনাল্টি মিস করেন কেম্পেস-মারাদোনা:

স্পোর্টস বাইবেলের প্রতিবেদন অনুযায়ী যেই দুই বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল আর্জেন্টিনা সেই দুই বিশ্বকাপেতাদের অধিনায়ক গ্রুপের তৃতীয় ম্যাচে পেনাল্টি নষ্ট করেছিলেন। ১৯৭৮ সালে প্রথম বার যখন আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল সে বার গ্রুপের তৃতীয় ম্যাচে পেনাল্টি নষ্ট করেছিলেন সেই দলের অধিনায়ক মারিও কেম্পেস। ১৯৮৬ সালেও এর পুনরাবৃত্তি ঘটে। ১৯৮৬ সালে নিজেদের গ্রুপের দ্বিতীয় ম্যাচে পেনাল্টি মিস করেন বিশ্ব ফুটবলের সর্বকালের অন্যতম সেরা দিয়েগো আর্মান্দো মারাদোনা। ১২ গজ দূর থেকে ১৯৭৮ বিশ্বকাপে মারিও 'মারিও এল মাতাদোর' কেম্পেস পেনাল্টি থেকে গোলের সুযোগ হাতছাড়া করেন। আট বছর পর নক আউট পর্বে যখন প্রতিযোগীতা ঢোকার মুখে তার আগে পেনাল্টি মিস করেন দিয়েগো মারাদোনা।

দুই বারই বিশ্বকাপ জিতেছিল আর্জেন্টিনা:

দুই বারই বিশ্বকাপ জিতেছিল আর্জেন্টিনা:

এই দুই বারই আর্জেন্টিনা বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। ১৯৭৮ সালে আর্জেন্টিনাকে প্রথম বার চ্যাম্পিয়ন করেন মারিও কেম্পেস। ১৯৮৬ সালে দিয়েগো মারাদোনা নিজের কাঁধে একা দলকে বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন করেন। ফাইনালে পশ্চিম জার্মানিকে ৩-২ গোলে হারায় আর্জেন্টিনা।

কেম্পেস-মারাদোনার মতোই এই আর্জেন্টিনা দলের চালিকাশক্তি মেসি:

কেম্পেস-মারাদোনার মতোই এই আর্জেন্টিনা দলের চালিকাশক্তি মেসি:

১৯৭৮ সালে প্রথম বার আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জয়ের অন্যতম কারিগর ছিলেন মারিও কেম্পেস। নিজেদের ঘরের মাটিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল আর্জেন্টিনা। গোল্ডেন বুট জিতেছিলেন কেম্পেস। তাঁর নেতৃত্বে নীল-সাদা জার্সিধারীরা ফাইনালে পরাজিত করেছিল নেদারল্যান্ডসকে। ১৯৮৬ সালের ঐতিহাসিক বিশ্বকাপ জয়ের কথা নতুন করে বলতে লাগে না। মারাদোনার একার কাঁধে ভর করে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল আর্জেন্টিনা। বিশ্ব ফুটবলের সর্বকালের অন্যতম সেরা তারকা লিওনেল মেসিও পোল্যান্ডের বিরুদ্ধে মিস করেন পেনাল্টি। এটিও গ্রুপের তৃতীয় ম্যাচ ছিল আর্জেন্টিনার। ইতিহাস বলছে কেম্পেস, মারাদোনার মতোই তিনিও এ বার দেশে ফিরতে পারেন বিশ্বকাপ হাতে।

English summary
FIFA World Cup 2022:History repeating itself, Lionel Messi's penalty miss could turn into blessing in disguise for Argentina.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X