• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

সিস্যাট নিয়ে ইউপিএসসি পরীক্ষার্থীদের আন্দোলন : বিতর্ক বিশ্লেষণ

সিএসএটি নিয়ে ইউপিএসসি পরীক্ষার্থীদের আন্দোলন : বিতর্ক বিশ্লেষণ
বেঙ্গালুরু, ৩০ জুলাই : ইউপিএসসি (ইউনিয়ন পাবলিক সার্ভিস কমিশন)পরীক্ষার্থীদের প্রতিবাদ আন্দোলন এখন খবররে শিরোনাম। আন্দোলনকারী পরীক্ষার্থীদের দাবি, সিভিল সার্ভিস অ্যাপটিটিউড টেস্ট (সিস্যাট) পরীক্ষার ধরণ পাল্টানো হোক যাতে গ্রামাঞ্চলের ছাত্রছাত্রী বা যাঁরা আঞ্চলিক ভাষায় স্বচ্ছন্দ তাদের সুবিধা হয়।

ইউপিএসসি নিয়ে এই বিতর্ক কেন?

  • সিভিল সার্ভিস প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ২০১১ সালে ইউপিএসসি-র অধীনে শুরু হয়।
  • ২০১০ সাল পর্যন্ত, ইউপিএসসি-তে ২টি পত্রের পরীক্ষা হত। একটি জেনারল স্টাডিজ বা সাধারণ বিষয়ের উপর এবং দ্বিতীয়টি অপশনাল বিষয়। যেখানে পরীক্ষার্থীরা, তালিকায় দেওয়া ২৩টি বিষয়ের মধ্য়ে যে কোনও একটি পছন্দমতো বিষয় বেছে নিতে পারত।
  • প্রাথমিক বাছাই পরীক্ষার দ্বিতীয় পত্রে এখন বোধপরীক্ষণ, সংযোগ দক্ষতা, যুক্তিগত কারণ ব্যখ্যা,বিশ্লেষণী ক্ষমতা, সিদ্ধান্ত এবং সমস্যার সমাধান, সাধারণ মানসিক দক্ষতা, মৌলিক হিসাবজ্ঞান সহ সামাজিক দক্ষতা মূলক প্রশ্ন।
  • সিলেবাসে থাকছে চার্ট, গ্রাফ টেবিলের মতো বিষয়, এবং ইংরাজি ভাষার বোধপরীক্ষণ।

সিস্যাট পাঠক্রম নিয়ে পরীক্ষার্থীদের আন্দোলন কেন?

  • আন্দোলনকারীদের দাবি, এই সিস্যাট পাঠক্রণ মূলত বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রছাত্রীদের ক্ষেত্রে বিশেষত ইঞ্জিনিয়ারং ছাত্রদের ক্ষেত্রে সুবিধাজনক হচ্ছে।
  • তাঁদের আরও দাবি, সিস্যাট সেইসব ছাত্রছাত্রীদের ক্ষেত্রে বিভেদমূলক যাঁরা কলা বিভাগ নিয়ে হিন্দি মাধ্যম বা আঞ্চলিক মাধ্যমে পড়াশুনা করেছেন।
  • ২০১১ সাল থেকে পাঠক্রমে পরিবর্তন আসায় সবথেকে বেশি সমস্যায় পড়েছেন কলা বিভাগের ছাত্রছাত্রীরা। প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় অস্বাভিকভাবে তাদের ফল নিম্নগামী হয়ে গিয়েছে , অথচ বিজ্ঞান বা ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ছাত্রছাত্রীদের ফল ভাল হওয়ার হার অনেক বেড়ে গিয়েছে।
  • সাধারণ বিষয়ের পরীক্ষার উত্তীর্ণমান যেখানে ৩০ সেখানে সিএসএটি পরীক্ষার উত্তীর্ণমান ৭০।
  • আন্দোলনকারীদের দাবি, যারা সাধারণ বিষয় মোটামুটি পরীক্ষা দিয়েও পাশ করে যাচ্ছেন. কিন্তু বোধপরীক্ষণে পাশ করতে পারছেন না।
  • বোধাপরীক্ষণকে সর্বাধিক প্রাধান্য দেওয়া ঠিক হচ্ছে না।

'গুগল ট্রান্সলেটর' সমস্যা

  • আন্দোলনকারীরা 'গুগল ট্রান্সলেটর'-এর বিরুদ্ধে প্রশ্ন তুলেছেন।
  • সিস্যাটা পরীক্ষার প্রশ্ন ইংরাজি থেকে হিন্দিতে অনুবাদ করার জন্য সাহায্য় নেওয়া হয় 'গুগল ট্রান্সলেটর'-এর।
  • ইংরাজি থেকে হিন্দিতে অনুবাদ করতে গেলে গুগল আক্ষরিক অর্থের আনুবাদ দেখায়। যার থেকে বাক্যের মানে বুঝে ওঠা যায় না।
  • ফলে হিন্দি ও আঞ্চলিক ভাষার পরীক্ষার্থীদের পাশের ক্ষেত্রে অন্তরায় হয়ে দাঁড়ায় 'গুগল ট্রান্সলেটর'।

English summary
UPSC Protest over CSAT: Controversy Explained
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X