কর্ণাটকে সরকার ধরে রাখা এভারেস্ট ডিঙানোর মতোই কঠিন বিজেপি-র কাছে

Subscribe to Oneindia News

ভাঙব তবু মচকাবো না। বাংলায় এই প্রবাদ জীবনের নানা ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়। কর্ণাটকে সরকার গঠন ইস্যুতে কার্যত এমন সত্যেরই মুখোমুখি এখন বিএস ইয়েদুরাপ্পার বিজেপি সরকার।

কর্ণাটকে সরকার ধরে রাখা এভারেস্ট ডিঙানোর মতোই কঠিন বিজেপি-র কাছে

বৃহস্পতিবার রাজ্যপাল বাজুভাই বালার সামনে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিয়ে ফেলেছেন ইয়েদুরাপ্পা। তবে শুক্রবার সুপ্রিমকোর্টের নির্দেশের পর শনিবার বিকেল ৪টেয় সংখ্যাগরিষ্ঠতার প্রমাণ দিয়ে ফ্লোর-টেস্টে যেতে হবে বিজেপিকে। বিধানসভায় প্রমাণ করতে হবে ২২৪ বিধানসভা আসনের মধ্যে সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন তাঁদের রয়েছে।

[আরও পড়ুন: কর্ণাটক নিয়ে সুপ্রিমকোর্ট ঠিক কী নির্দেশ দিল, জেনে নিন খুঁটিনাটি]

এটাকেই প্রায় অসম্ভব বলে ব্যাখ্যা করছেন বিশেষজ্ঞরা। কারণ ভোটে বিজেপি জিতেছে ১০৪টি আসন। সংখ্যাগরিষ্ঠতা থেকে তা ৮টি আসন কম। এই অবস্থায় সুপ্রিম কোর্ট একেবারেই সময় দেয়নি যাতে বিজেপি অন্য দলের বিধায়কদের ভাঙিয়ে নিয়ে আসতে পারে।

অথবা গত দেড়দিনে ১জন কংগ্রেস বিধায়ক বাদে বাকীদের কংগ্রেস-জেডিএস একসঙ্গে করে রাখতে পেরেছে। পরে অবশ্য কংগ্রেসের সেই বিধায়কও ঘরে ফিরে এসে কং-জেডিএসকেই সমর্থন করেছেন। ফলে একজন নির্দল বিজেপিকে সমর্থন জানালে বিজেপি ১০৫ সংখ্যায় পৌঁছেছে। ১১২-র ম্যাজিক ফিগারে পৌঁছতে হলে বিজেপির এখনও প্রয়োজন ৭জন বিধায়কের সমর্থন।

[আরও পড়ুন:শনিবার কর্ণাটকে অগ্নিপরীক্ষা মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুরাপ্পার, ফ্লোর-টেস্টের নির্দেশ সুপ্রিমকোর্টের]

তার উপরে হাতে সময় নেই একেবারেই। এই অবস্থায় বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করা এককথায় অসম্ভব মনে হচ্ছে গেরুয়া শিবিরের কাছে। যদিও জনসমক্ষে নিজেদের আত্মবিশ্বাসী বলে তুলে ধরেছে বিজেপি। তবে সেই আত্মবিশ্বাস শনিবারের ফ্লোর-টেস্টে কতটা ধরে রাখতে পারে বিজেপি সেটাই এখন দেখার।

প্রসঙ্গত, ভোটের ফলাফল প্রকাশের পর বিজেপি ১০৪টি আসন, কংগ্রেস ৭৮টি আসন, জেডিএস ৩৮টি আসন ও অন্যান্যরা ২টি আসন পেয়ে জয়ী হয়েছে। সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে গেলে ১১২টি আসন প্রয়োজন।

English summary
How can BS Yeddyurappa's BJP overcome floor test in Karnataka Assembly

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more