• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

‘বিসিসিআই-এর তরফে থেকে কোনও চাপ ছিল না, ইচ্ছা করলেই আরও কিছু বছর ভারতকে নেতৃত্ব দিতে পারত বিরাট’

  • |
Google Oneindia Bengali News

ভারতের টেস্ট অধিনায়কের পদ থেকে বিরাট কোহলি নিজের সিদ্ধান্তে সরে দাঁড়ালেও এর পিছনে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন বিসিসিআই-এর 'অদৃশ্য হাত' দেখছেন বহু বিরাট অনুরাগী। তাঁদের মতে, ওডিআই টিমের অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার সঙ্গেই বিরাটের উপর প্রেসার গেম খেলা শুরু করে বিসিসিআই। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ হারের পর তাই বোর্ডের প্রেসার গেম-এর কারণেই সরে দাঁড়িয়েছে বিরাট।

তবে, বিরাট সমর্থকদের মনগড়া যুক্তি'কে কলকে দিতে নারাজ বিসিসিআই-এর কোষাধক্ষ অরুণ ধুমল। তিনি স্পষ্ট করে দিয়েছেন, বিরাটের এই সিদ্ধান্তের সঙ্গে বোর্ডের কোনও সম্পর্ক নেই। বিরাটের এই সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণ তাঁর ব্যক্তিগত।

 ধুমলের বক্তব্য:

ধুমলের বক্তব্য:

বিসিসিআই-এর কোষধক্ষ জানিয়েছেন কোহলি চাইলে আরও কয়েক বছর ভারতের টেস্ট অধিনায়কের দায়িত্ব সামলাতে পারত। নিউজ ১৮-কে তিনি বলেছেন, "বিসিসিআই বা নির্বাচকদের তরফ থেকে বিরাট কোহলির উপর কোনও রকম চাপ ছিল না। এটা ওর সিদ্ধান্ত এবং আমরা সেটাকে সম্মান করি। কিন্তু ও আরও দুই বা তিন বছর টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব সামলাতে পারতেন।"

সমর্থকদের নজের 'ভিলেন' সৌরভ এবং তাঁর নেতৃত্বাধীন বিসিসিআই:

সমর্থকদের নজের 'ভিলেন' সৌরভ এবং তাঁর নেতৃত্বাধীন বিসিসিআই:

টেস্ট অধিনায়কত্ব থেকে বিরাটের সরে দাঁড়ানোর এই সিদ্ধান্তের নেপথ্যে অনেক বিরাট অনুগামী-ই দেখছে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন বিসিসিআই-এর অদৃশ্য হাত। তাঁদের মতে ওডিআই টিমের অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার সঙ্গেই বিরাটের উপর চাপ বাড়ায় সৌরভের বোর্ড। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে এগিয়ে গিয়েও টেস্ট সিরিজ হারের পর সেই চাপ নাকি আরও বাড়ে, এমন করেন বিরাটের অন্ধ ভক্তরা।

বিরাটের সিদ্ধান্ত শনিবার দুপুরেই জেনে ছিল বিসিসিআই সভাপতি এবং সচিব:

বিরাটের সিদ্ধান্ত শনিবার দুপুরেই জেনে ছিল বিসিসিআই সভাপতি এবং সচিব:

সূত্রের খবর, বিরাট নিজের সিদ্ধান্তের বিষয়ে আসে অবগত করেছিলেন বিসিসিআই-এর সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এবং সচিব জয় শাহ'কে। বিরাটের এই সিদ্ধান্তের কথা জেনেও কোনও বাক্যব্যায় করেননি বিসিসিআই-এর সর্বময় দুই আধিকারিক।

 বিরাট ঘোষণা:

বিরাট ঘোষণা:

শনিবার টুইট করে ভারতীয় দলের টেস্ট অধিনায়কত্ব ছাড়ার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেন বিরাট কোহলি। দীর্ঘ টুইটে রবি শাস্ত্রী এবং মহেন্দ্র সিং ধোনিকে বিশেষ ভাবে ধন্যবাদ জানান কোহলি। পাশাপাশি বিসিসিআই তাঁকে টেস্ট ক্রিকেটে অধিনায়কত্ব করার সুযোগ দেওয়া তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ভারতীয় ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থার প্রতি।

২০১৫ সালের শুরুতে এমএস ধোনি অস্ট্রেলিয়ায় অবসর ঘোষণার পর ৩৩ বছর বয়সী কোহলিকে পূর্ণ-সময়ের টেস্ট অধিনায়কের দায়িত্ব দেয় বিসিসিআই। তিনি শুধু ৬৮টি টেস্টের মধ্যে ৪০টিতে জয়ের পরিসংখ্যানেই ভারতের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক নন, তিনি অস্ট্রেলিয়ায় ঐতিহাসিক টেস্ট সিরিজ জয়ের কৃতিত্ব রেখে গিয়েছেন।

English summary
Virat Kohli’s decision does not reflect BCCI’s thought. He did not have any pressure from BCCI. If he wanted then could have continues few more years as test captain informs BCCI Tresurer Arun Dhumal.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X