• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

IPL: কেকেআর-এর বিপক্ষে ইতিহাস তৈরি করেছেন ডি কক-রাহুল, এক নজরে আইপিএল-এর ইতিহাসে সেরা পাঁচ ওপেনিং পার্টনারশিপ

Google Oneindia Bengali News

প্রতিটা দলই ওপেনিং জুটিতে বড় রানের আশা করেন। ওপেনিং করতে নামা দুই ব্যাটসম্যান যদি দারুণ শুরু করে ,তা হলে ম্যাচটা অনেকটা সহজ হয়ে যায়। বুধবার কলকাতা নাইট রাইডার্স-এর বিরুদ্ধে ম্যাচে আইপিএল-এ ওপেনিং জুটিতে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহের নজির গড়েছেন কে এল রাহুল এবং কুইন্টন ডি কক। এক নজরে দেখে নিন আইপিএল-এর ইতিহাসে সেরা পাঁচ ওপেনিং পার্টনারশিপ তৈরি হয়েছিল কাদের মধ্যে।

৫. ঋতুরাজ গায়েকোয়াড় এবং ডেভন কনওয়ে (চেন্নাই সুপার কিংস, প্রতিপক্ষ সানরাইজার্স হায়দরাবাদ)- ১৮২ রান

৫. ঋতুরাজ গায়েকোয়াড় এবং ডেভন কনওয়ে (চেন্নাই সুপার কিংস, প্রতিপক্ষ সানরাইজার্স হায়দরাবাদ)- ১৮২ রান

সানরাইজার্স হায়দরাবাদের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন টসে জিতে ব্যাটিং করতে পাঠিয়েছিলেন চেন্নাই সুপার কিংসকে। প্রথমে ব্যাটিং-এর সুযোগ বেশ ভাল মতোই কাজে লাগায় চেন্নাই। ওপেনিং জুটিতে ঋতুরাজ এবং কনওয়ে তোলেন ১৮২ রান। ৯৯ রানে আউট হন ঋতুরাজ, মাত্র ১ রানের জন্য হাতছাড়া হয় শতরান। কনওয়ে শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন ৮৫ রানে।

৪. কে এল রাহুল এবং ময়াঙ্ক আগরওয়াল (পাঞ্জাব কিংস, প্রতিপক্ষ রাজস্থান রয়্যালস)- ১৮৩ রান

৪. কে এল রাহুল এবং ময়াঙ্ক আগরওয়াল (পাঞ্জাব কিংস, প্রতিপক্ষ রাজস্থান রয়্যালস)- ১৮৩ রান

এই ম্যাচটি মূলত স্মরণীয় হয়ে রয়েছে রাহুল তেওয়াটিয়ার অবিশ্বাস্য ম্যাচ উইনিং ইনিংসের জন্য। কিন্তু তার আগে প্রথমে ব্যাটিং করা পাঞ্জাব ময়ঙ্ক এবং রাহুলের সৌজন্যে ওপেনিং জুটিতে তোলে ১৮৩ রান। ৫০ বলে অসাধারণ ১০৬ রান করেন ময়াঙ্ক আগরওয়াল এবং কে এল রাহুল করেছিলেন ৬৯ রান।

৩. গৌতম গম্ভীর এবং ক্রিস লিন (কলকাতা নাইট রাইডার্স, প্রতিপক্ষ গুজরাত লায়ন্স)- ১৮৪* রান

৩. গৌতম গম্ভীর এবং ক্রিস লিন (কলকাতা নাইট রাইডার্স, প্রতিপক্ষ গুজরাত লায়ন্স)- ১৮৪* রান

২০১৭ সালের আইপিএল-এ এই রেকর্ড তৈরি করেছিলেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের তৎকালীন অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর এবং ক্রিস লিন। সুরেশ রায়নার নেতৃত্বাধীন গুজরাত ২০ ওভারে ১৮৩/৪ রান তোলে। রায়না করেছিলেন ৬৮ রান। জবাবে ব্যাটিং করতে নেমে কেকেআর অধিনায়ক গম্ভীর এবং লিনের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের উপর ভর করে কোনও উইকেট না হারিয়েই জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নেয় কেকেআর। ৪১ বলে ৯৩ রান করেন ক্রিস লিন এবং গৌতম গম্ভীর করেন ৪৮ বলে ৭৬। ১৪.৫ ওভারেই জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নেয় কেকেআর।

২. জনি বেয়ারস্ট্রো এবং ডেভিড ওয়ার্নার (সানরাইজার্স হায়দরাবাদ, প্রতিপক্ষ রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর)- ১৮৫ রান

২. জনি বেয়ারস্ট্রো এবং ডেভিড ওয়ার্নার (সানরাইজার্স হায়দরাবাদ, প্রতিপক্ষ রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর)- ১৮৫ রান

২০১৯ সালের আইপিএল-এ জনি বেয়ারস্ট্রো এবং ডেভিড ওয়ার্নারের ওপেনিং জুটি ১৮৫ রান তুলে ছিল, যার সৌজন্যে ২০ ওভারে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের বিরুদ্ধে ২৩২/২ রান তোলে ২০১৬ আইপিএল-এর চ্যাম্পিয়নরা। ওই ম্যাচে এই দুই ওপেনারই শতরান করেছিলেন। ৫৬ বালে ১১৪ রানের ইনিংস খেলেছিলেন বেয়ারস্ট্রো এবং ওয়ার্নার করেছিলেন ৫৫ বলে ১০০। পাহাড়প্রমাণ রান তাড়া করতে নেমে ১১৩ রানে গুটিয়ে যায় ব্যাঙ্গালোরের ইনিংস। ম্যাচটি ১১৮ রানে জিতে নেয় হায়দরাবাদ।

১. কে এল রাহুল এবং কুইন্টন ডি কক (লখনউ সুপার জায়ান্টস, প্রতিপক্ষ কলকাতা নাইট রাইডার্স)- ২১০* রান

১. কে এল রাহুল এবং কুইন্টন ডি কক (লখনউ সুপার জায়ান্টস, প্রতিপক্ষ কলকাতা নাইট রাইডার্স)- ২১০* রান

এই তালিকার শীর্ষ স্থান দখল করে রয়েছেন কে এল রাহুল এবং কুইন্টন ডি কক। এই দুই ব্যাটসম্যান কেকেআর-এর বিরুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ওপেনিং জুটিতে ২১০ রান তোলে। নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে তাঁদের দুরন্ত ব্যাটিং-এর কারণেই কেকেআর'কে ২১১ রানের টার্গেট দিয়েছিল সঞ্জীব গোয়েঙ্কার দল।এই পার্টনারশিপে অধিকাংশ অবদানই রয়েছে কুইন্টন ডি ককের। তিনি ৭০ বলে ১৪০ রানের ইনিংস খেলেন। কে এল রাহুল করেন ৬৮ রান। গোটা ২০ ওভারে কেকেআর-এর কোনও বোলার একটিও উইকেট নিতে পারেনি। লখনউ-এর জবাবে কেকেআর-ও খারাপ খেলেনি তারা ২০ ওভারে তোলে ২০৮/৮। মাত্র দুই রানের জন্য পরাজিত হয় কেকেআর।

English summary
In this article, we have discussed about 5 highest opening partnerships in the history of IPL.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X