• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

IPL 2022: 'পারফেক্ট গেম' জিতে কোন লক্ষ্যের কথা ধোনির মুখে? শেষ চারের দৌড়ে কার কতটা সম্ভাবনা?

Google Oneindia Bengali News

চেন্নাই সুপার কিংস দিল্লি ক্যাপিটালসকে ৯১ রানে হারানোর ফলে প্লে অফের লড়াই আকর্ষণীয় হয়ে গেল। যদিও এখনই শেষ চারে ওঠার অঙ্কের কথা নেই ধোনির মাথায়। পরিস্থিতি যা, তাতে রাজস্থান রয়্যালস ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স যাতে সব ম্যাচে হারে সেই প্রার্থনা করতে হবে চেন্নাই সুপার কিংসকে। ধোনিদেরও সব ম্যাচ জিততে হবে। অন্তত একটি দলকে থাকতেই হবে ১৪ পয়েন্টে। তাহলে নেট রান রেট গুরুত্বপূর্ণ হবে। তবে রাজস্থান ও আরসিবি একটি করে ম্যাচ জিতে গেলে সিএসকে, কেকেআর ছিটকে যাবে। প্রবল চাপে দিল্লি, সানরাইজার্স এবং পাঞ্জাব কিংসও। একনজরে দেখে নেওয়া যাক কোন দল কোন পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে?

মুম্বই ফ্যাক্টর

মুম্বই ফ্যাক্টর

মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের ম্যাচ বাকি রয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স (৯ মে), চেন্নাই সুপার কিংস (১২ মে), সানরাইজার্স হায়দরাবাদ (১৭ মে) ও দিল্লি ক্যাপিটালস (২১ মে)-এর বিরুদ্ধে। নিজেরা ছিটকে গেলেও অন্য দলগুলির প্লে অফে ওঠার আশায় জল ঢেলে দিতে পারেই পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নরা। আপাতত মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের ঝুলিতে ১০ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট, নেট রান রেট মাইনাস (-)০.৭২৫।

কলকাতা নাইট রাইডার্স

কলকাতা নাইট রাইডার্স

কলকাতা নাইট রাইডার্স পয়েন্ট তালিকার নবম স্থানে নেমে গিয়েছে। ১১ ম্যাচে ঝুলিতে ৮ পয়েন্ট। শ্রেয়স আইয়াররা মুম্বই ইন্ডিয়ান্স (৯ মে), সানরাইজার্স হায়দরাবাদ (১৪ মে) ও লখনউ সুপার জায়ান্টস (১৮ মে)-এর বিরুদ্ধে খেলবেন। তিনটিতে জিতলে হবে ১৪ পয়েন্ট। যা প্লে অফে ওঠার জন্য যথেষ্ট হবে, এমন গ্যারান্টি নেই। সর্বোপরি নাইটদের নেট রান রেট মাইনাস (-) ০.৩০৪-এ চলে গিয়েছে। সবমিলিয়ে নাইটদের কার্যত বিদায় নিশ্চিতই হয়ে গিয়েছে চলতি আইপিএল থেকে।

চেন্নাই সুপার কিংস

চেন্নাই সুপার কিংস

চেন্নাই সুপার কিংস দিল্লি ক্যাপিটালসকে ৯১ রানে হারানোয় পয়েন্ট তালিকার আটে উঠে এসেছে এক মাসেরও বেশি সময় পর। ১০ ম্যাচের শেষে তাদের ঝুলিতে ছিল ৬ পয়েন্ট। কিন্তু বড় জয়ের ফলে নেট রান রেট মাইনাস (-) ০.৪৩১ থেকে এখন চলে এসেছে পজিটিভে (০.০২৮ । মুম্বই ইন্ডিয়ান্স (১২ মে), গুজরাত টাইটান্স (১৫ মে) ও রাজস্থান রয়্যালসের (২০ মে)-এর বিরুদ্ধে। তাদের ম্যাচ বাকি। এই মুহূর্তে গুজরাত রয়েছে পয়েন্ট তালিকার দ্বিতীয় ও রাজস্থান রয়েছে তিনে। ফলে ধোনিরা যে ১৪ পয়েন্টে পৌঁছাবেন তার গ্যারান্টি নেই।

ধোনি কী বললেন?

ধোনি কী বললেন?

বাকি তিনটি ম্যাচ জিতলেও প্লে অফের ওঠার জন্য ধোনিদের তাকিয়ে থাকতে হবে অন্য ম্যাচের ফলাফলের দিকে। দিল্লি জয়ের পর চেন্নাই সুপার কিংস অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি নিজে বলেছেন, আমি স্কুলেও অঙ্কে ভালো ছিলাম না। এখনও অঙ্ক নিয়ে কোনও আগ্রহ নেই। বাকি ম্যাচগুলি সকলকে উপভোগ করতে বলব। কোন জায়গায় কাকে কখন দরকার সেই ব্যাপারগুলি নিশ্চিত করে, সেরা কম্বিনেশন নিয়ে পরিকল্পনার সঠিক বাস্তবায়নই লক্ষ্য। তাতে প্লে অফে ওঠা গেলে ভালো, না হলেও বিশ্ব থেমে যাবে না। এক কথায় হিসেব কষে খেলতে গিয়ে দলের উপর চাপ বাড়াতে চান না ধোনি। ম্যাচ-বাই-ম্যাচ এগোতে চান।

পাঞ্জাব কিংস

পাঞ্জাব কিংস

পাঞ্জাব কিংস পয়েন্ট তালিকার সপ্তম স্থানে রয়েছে। ময়াঙ্ক আগরওয়ালেক দলের ঝুলিতে রয়েছে ১১ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট। ম্যাচ বাকি- রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্য়াঙ্গালোর (১৩ মে), দিল্লি ক্যাপিটালস (১৬ মে) ও সানরাইাজার্স হায়দরাবাদ (২২ মে)-এর বিরুদ্ধে। পাঞ্জাবের নেট রান রেট এখন মাইনাসে (-০.২৩১)। বাকি ম্যাচগুলি জিতলে পয়েন্ট হবে ১৬। প্লে অফে ওঠার দৌড়ে তিনটি ম্যাচের গুরুত্বই অপরিসীম। এক কথায় অন্তত চতুর্থ স্থানের জন্য লড়াই চলতে পারে লিগের শেষ দিন পর্যন্ত। যদিও দুটি জিতে ১৪ পয়েন্টে থাকে এবং ১৪ পয়েন্ট নিয়ে একটি দলও ওঠে তবে পাঞ্জাবের পথে বাধা হবে নেট রান রেট।

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ

লাগাতার পরাজয় সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে খাদের কিনারায় নিয়ে গিয়েছে। টানা পাঁচটি ম্যাচ জেতার পর টানা চারটিতে হারায় এখন পয়েন্ট তালিকার ছয়ে কেন উইলিয়ামসনের দল। ১১ ম্যাচের শেষে পয়েন্ট ১০। নেট রান রেট কমতে কমতে ০.৩২৫ থেকে মাইনাস (-) ০.০৩১-এ পৌঁছে গিয়েছে। অরেঞ্জ আর্মির ম্যাচ বাকি- কলকাতা নাইট রাইডার্স (১৪ মে), মুম্বই ইন্ডিয়ান্স (১৭ মে) ও পাঞ্জাব কিংস (২২ মে)-এর বিরুদ্ধে। সব কটি ম্যাচ জিতলে ১৬ পয়েন্ট হবে সানরাইজার্সের। দুটিতে জিতলে হবে ১৪। সেক্ষেত্রে প্লে অফে যেতে তাকিয়ে থাকতে হবে অন্য ম্যাচগুলির দিকে।

দিল্লি ক্যাপিটালস

দিল্লি ক্যাপিটালস

দিল্লি ক্যাপিটালসের অস্বস্তি বাড়ল চেন্নাই সুপার কিংসের কাছে ৯১ রানে হেরে গিয়ে। ১১ ম্যাচে ঋষভ পন্থের দলের ঝুলিতে রয়েছে ১০ পয়েন্ট। ম্যাচ বাকি- রাজস্থান রয়্যালস (১১ মে), পাঞ্জাব কিংস (১৬ মে) ও মুম্বই ইন্ডিয়ান্স (২১ মে)-এর বিরুদ্ধে। দিল্লি ক্যাপিটালসকে প্রথমে সব ম্যাচই জিততে হবে, তারপরও তাকিয়ে থাকতে হবে অন্য ম্যাচের ফলাফলের দিকে। যদি দুটিতে জেতে তাহলে হবে ১৪ পয়েন্ট। এই সংখ্যক পয়েন্ট নিয়ে প্লে অফে যাওয়া খুব কঠিনই বলা চলে। হলেও গুরুত্বপূর্ণ হবে নেট রান রেট। দিল্লি ক্যাপিটালসের নেট রান রেট আপাতত ০.১৫০। যে পাঁচটি দলের নেট রান রেট পজিটিভে আছে তাদের মধ্যে দিল্লি রয়েছে। তবু কয়েক দিনের মধ্যে তাদের পঞ্চম স্থান হাতছাড়াও হতে পারে। তাহলে আরও বাড়বে চাপ।

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর পয়েন্ট তালিকার চতুর্থ স্থানে রয়েছে। ১২ ম্যাচে তাদের ঝুলিতে রয়েছে ১৪ পয়েন্ট। ম্যাচ বাকি- পাঞ্জাব কিংস (১৩ মে) ও গুজরাত টাইটান্স (১৯ মে)-এর বিরুদ্ধে। দুটি ম্যাচেই জিতলে ফাফ দু প্লেসির দলের শেষ চার কনফার্ম। যদি একটিতে জেতে ও একটিতে হারে তাহলে হবে ১৬ পয়েন্ট। সেক্ষেত্রে অন্য ম্যাচের ফলাফলের দিকে তাকাতে হবে। সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে বড় ব্যবধানে হারানোয় আরসিবির নেট রান রেট মাইনাস (-)০.৪৪৪ থেকে হয়েছে মাইনাস (-)০.১১৫। আরসিবি ও রাজস্থান যদি একটি করে ম্যাচ জিতে যায় তাহলে ছিটকে যাবে চেন্নাই সুপার কিংস ও কলকাতা নাইট রাইডার্স। আরসিবি যদি সব ম্যাচ হারে তাহলে তাদের কাজ কঠিন হয়ে যাবে। কেন না, প্রথম চারে থাকা একমাত্র আরসিবিরই নেট রান রেট মাইনাসে। ১৪ পয়েন্টে যদি অনেক দল পৌঁছায় সেক্ষেত্রে ছিটকে যাওয়ার আশঙ্কাও থাকবে।

রাজস্থান রয়্যালস

রাজস্থান রয়্যালস

রাজস্থান রয়্যালস এখন রয়েছে পয়েন্ট তালিকার তিনে। ১১ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে। সঞ্জু স্যামসনদের পরবর্তী ম্যাচগুলি যথাক্রমে দিল্লি ক্যাপিটালস (১১ মে), লখনউ সুপার জায়ান্টস (১৫ মে) ও চেন্নাই সুপার কিংস (২০ মে)-এর বিরুদ্ধে। দুটি ম্যাচ জিতলে রাজস্থানের প্লে অফে ওঠা নিশ্চিত। তাদের নেট রান ০.৩২৬। যদি দুটিতে জিতে ১৬ পয়েন্টেও থাকে তাহলেও নেট রান রেটের নিরিখে অনেকের চেয়েই এগিয়ে থাকবে রাজস্থান রয়্যালস। নড়বড়ে দিল্লি ক্যাপিটালসকে হারিয়ে দিলেই ১৬ পয়েন্টে পৌঁছে যাবে রাজস্থান, দৌড় থেকে ছিটকে যাবে দিল্লি।

গুজরাত টাইটান্স

গুজরাত টাইটান্স

গুজরাত টাইটান্স এখন রয়েছে পয়েন্ট তালিকার দ্বিকীয় স্থানে। ১১ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট রয়েছে হার্দিক পাণ্ডিয়ার দলের। একটি জয় এলেই তাদের ইডেনের টিকিট কনফার্ম। গুজরাত টাইটান্সের নেট রান রেট ০.১২০। হার্দিক পাণ্ডিয়াদের ম্যাচ বাকি- লখনউ সুপার জায়ান্টস (১০ মে), চেন্নাই সুপার কিংস (১৫ মে) ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর (১৯ মে)-এর বিরুদ্ধে। প্রথম সাক্ষাতে লখনউকে হারিয়েছিল গুজরাত। ফিরতি সাক্ষাতে যারাই জিতবে তারাই প্রথম দল হিসেবে শেষ চারে জায়গা পাকা করে ফেলবে। যদি গুজরাত সব ম্যাচেই হেরে যায় তাতেও শেষ চারে যেতে তাদের অসুবিধা হবে না। তবে সব ম্যাচে হারলে নেট রান রেট মাইনাসে চলে যাবে। তা নিশ্চিতভাবেই করতে দেবেন না পাণ্ডিয়ারা। যা পরিস্থিতি তাতে প্রথম দুইয়ে থেকেই প্লে অফে যাবে গুজরাত।

লখনউ সুপার জায়ান্টস

লখনউ সুপার জায়ান্টস

লখনউ সুপার জায়ান্টস পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে চলে এসেছে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে ৭৫ রানে হারিয়ে। লোকেশ রাহুলের দলের ১১ ম্যাচে রয়েছে ১৬ পয়েন্ট। ম্যাচ বাকি- গুজরাত টাইটান্স (১০ মে), রাজস্থান রয়্যালস (১৫ মে) ও কলকাতা নাইট রাইডার্স (১৮ মে)। একটি ম্যাচে জিতলেই প্লে অফ নিশ্চিত হয়ে যাবে। লখনউয়ের নেট রান রেট ০.৭০৩। তিনটি ম্যাচে হেরে গেলেও প্লে অফে উঠতে তাদের অসুবিধা হবে না। ১৮ পয়েন্টে পৌঁছে গেলে শেষ চার নিশ্চিত। তবে ১৬ পয়েন্টে থেকেও অন্য ম্যাচের ফলগুলি নিজেদের পক্ষে গেলে পথ সুগম হয়ে যাবে।

English summary
IPL 2022: A Quick Look At Playoff Qualification Scenarios For 9 Teams After CSK's Win Over DC. Super Kings' Win Took Them Out Of The Bottom Two For The First Time In Over A Month.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X