রাস্তায় সেলফি তুলে দেখাতে গিয়েছিলেন 'কেত', শেষে পুলিশ এই হাল করল বরুণের

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    সেলফি তোলা নিয়ে অনেকেই অনেক রকমের কেত কায়দার চেষ্টা করে থাকেন। আর সেলেবদের সঙ্গে সেলফি তুলতে কেইই বা 'না' বলবেন। এমনই এক ফ্যানের সঙ্গে সেলফি তুলতে গিয়ে বিপাকে পড়লেন অভিনেতা বরুণ ধওয়ান।

    রাস্তায় সেলফি তুলে দেখাতে গিয়েছিলেন 'কেত', শেষে পুলিশ এই হাল করল বরুণের

    [আরও পড়ুন:খাতায় কলমে একসঙ্গে নতুন ইনিংস শুরু জাহির-সাগরিকার, দেখুন বিয়ের নজরকাড়া ছবি ]

    মুম্বইয়ের রাস্তায় প্রচণ্ড ট্রাফিকে আটকে ছিল অভিনেতা বরুণ ধওয়ানের গাড়ি। এমনই এক সময়ে বরুণের গাড়ি পাশে অটোতে এক মহিলা বসে ছিলেন। বরুণকে দেখতে পেয়ে ছবি তুলতে যান এক ফ্যান, শালীনতাবশত বরুণই হাতে ক্যামেরা নিয়ে গাড়ি থেকে মুখ বার করে সেলফিটি তোলেন। এই কাণ্ড করেই মুম্বই পুলিশের রোষের মুখে পড়ে যান অভিনেতা বরুণ ধওয়ান।

    [আরও পড়ুন:কার্নি সেনার শত বিরোধিতাও কাজে এল না! ১ ডিসেম্বরই মুক্তি পাচ্ছে 'পদ্মাবতী', জানুন]

    মুম্বই পুলিশ বরুণের এই ট্রাফিক আইন ভাঙার কীর্তির কথা মুম্বই পুলিশ তুলে ধরে একটি টুইট করে। যাতে লেখা থাকে যে ট্রাফিক আইন ভাঙার জন্য় ই- চালান খুব শিগিগিরই বরুণের কাছে পৌঁছতে চলেছে। এর প্রেক্ষিতে, বরুণ ক্ষমা চেয়ে নিয়ে আরেকটি পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করেন।

    English summary
    When actor Varun Dhawan obliged a fan with a selfie, little did he know that this would get him into trouble with the Mumbai Police. The actor was stuck in traffic and a lucky fan stuck right next to him got an opportunity to get a picture with him. The moment must be unforgettable for the fan but now even Varun won’t forget about it anytime soon. Mumbai Police is pretty savage with its social media game and they sent a message for Varun via their Twitter handle.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more