• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

‌সেফ হ্যান্ড চ্যালেঞ্জে হাত ধোওয়ার ভিডিওতে নিজেই ট্রোলড হলেন নুসরত জাহান

করোনা আতঙ্কে এখন সকলেই তটস্থ। আম জনতা থেকে বলিউড–টলিউড সকলেই বাড়িতে বন্দী রয়েছেন। এরকম পরিস্থিতিতে অনেকেই এই করোনা ভাইরাসের গুরুত্বপূর্ণ সচেতনতা হিসাবে হাওয়া ধোওয়ার প্রচার করছেন। সেই তালিকায় রয়েছেন সাংসদ–অভিনেত্রী নুসরত জাহান। কিন্তু মানুষের হিত করতে গিয়ে শেষে নিজেই বাজেভাবে ট্রোলড হলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ট্রোলড সাংসদ

ট্রোলড সাংসদ

সেফ হ্যান্ডস চ্যালেঞ্জ নিয়েছিলেন অভিনেত্রী নুসরত জাহান। হাত ধোয়ার চ্যালেঞ্জ নিয়ে তিনি সাবান দিয়ে হাত ধুতে ধুতে করোনা ভাইরাস সম্বন্ধে সতর্কবার্তা দিচ্ছিলেন সোশ্যালে। হাতে সাবান মাখার সময় কল খুলে রেখেছিলেন সাংসদ। ভিডিওয় সেটি চোখে পড়তেই সরব নেটিজেনরা। সঙ্গে সঙ্গে পাল্টা সতর্কবার্তা নুসরতকেই, এভাবে জল অপচয় না করাই ভালো। হাতে সাবান মাখার সময় কল বন্ধ রাখা যেতেই পারে। নইলে জল ফুরিয়ে আরেক বিশাল সমস্যা তৈরি হাতে পরে।

জল খোলা নুসরতের ভিডিওতে

ভিডিওটি পোস্ট করে নুসরত ক্যাপশনে লেখেন, ‘‌আসুন আমরা সকলেই সাবধানতা অবলম্বন করি। কোভিড-১৯ ঠেকাতে প্রতি ঘন্টায় হাত ধুই। সবাই নিরাপদে থাকুন। সতর্ক থাকুন।'‌ ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে কথা বলার সময় নুসরত কল খুলে রেখে সাবান দিয়ে হাত পরিষ্কার করছেন। তাই দেখে নেটিজেনরা তাঁকে ট্রোল করতে শুরু করেন।

হু–এর সেফ হ্যান্ড চ্যালেঞ্জ

হু–এর সেফ হ্যান্ড চ্যালেঞ্জ

প্রসঙ্গত করোনা ভাইরাসে হাত ধোওয়া যে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অংশ তা বোঝাতে হু ‘‌সেফহ্যান্ডচ্যালেঞ্জ'‌ শুরু করেছে। যেখানে বিভিন্ন সেলেবরা হাত ধোওয়ার ভিডিও শেয়ার করছেন শোশ্যাল মিডিয়ায়। এমনকী কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হর্ষ বর্ধন এই চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করতে বলেছেন সবাইকে।

ছবি সৌ: নুসরত জাহানের ইনস্টাগ্রাম

English summary
According to the World Health Organisation and other leading epidemiologists The video came in the wake of the viral #SafeHandsChallenge which saw several celebrities and even union minister for health Dr Harsh Vardhan encouraged Indians to participate in the challenge, meaning wash hands,
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X
We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more