• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

(ছবি) প্রাক্তন প্রেমিক অধ্যয়ন সুমনকে শারীরিক নির্যাতন করতেন কঙ্গনা?

  • By Oneindia Bengali Digital Desk
  • |

বলিউডের কুইন কঙ্গনা রানউত এবং বলিউডের সুপারহিরো হৃতিক রোশনের ঝগড়া দিনে দিনে আরও কদর্যভাবে সামনে চলে আসছে। হৃতিক-কঙ্গনার ঝগড়া নিয়ে প্রত্যেকদিনই নতুন খবর তৈরি হচ্ছে। এরই মাঝে কঙ্গনার প্রাক্তন বয়ফ্রেন্ড অধ্যয়ন সুমনের কঙ্গনার সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে কিছু স্বীকারোক্তি সবাইকে চমকে দিয়েছে। [ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির এক পুরুষের হাতে মারের চোটে রক্তাক্ত হয়েছিলেন, স্বীকারোক্তি কঙ্গনার!]

অধ্যয়নকে চড় মারা থেকে, গালিগালাজ করা এমন একাধিক অভিযোগ কঙ্গনার বিরুদ্ধে এনেছেন অধ্যয়ন। [আমিই একনম্বর , বলিউডে আমার কোনও প্রতিযোগিতা নেই, দাবি কঙ্গনার!]

একটি সংবাদপত্রকে দেওয়া সাক্ষাৎকারের সময় অধ্যনকে হৃতিক ও কঙ্গনা রানাউতের আইনি মামলায় তিনি কার পক্ষে থাকবেন এই প্রশ্ন করা হলে সময় নষ্ট না করেই অধ্যয়ন হৃতিকের নাম নেন। তিনি বলেন, "আমি হৃতিকের পক্ষে। আমি বুঝতে পারছি ও ঠিক কিসের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। কারণ একই জিনিস আমার সঙ্গেও হয়েছে। আমি ওর যন্ত্রণাটা বুঝতে পারছি। শুধু শারীরিক যন্ত্রণা নয়, কীভাবে মানসিকভাবে অত্যাচার করা হয়েছে আমি বুঝতে পারছি।" [ভগ ম্যাগাজিনের ফটোশুটে মিলিটারি বিকিনিতে 'খোলামেলা' কঙ্গনা!]

ঠিক কী কী বলেছেন অধ্যয়ন আসুন একঝলকে দেখে নেওয়া যাক।

১ম স্বীকারোক্তি

১ম স্বীকারোক্তি

হৃতিকের বার্থডে পার্টিতে কঙ্গনা আমাকে একগুচ্ছ গালিগালাজ দিয়েছিল। বলেছিল আমি ওর সাফল্যকে হিংসা করি। বিনা কারনে আমাকে চড় মেরেছিল। চড়ের তীব্রতা এতটাই ছিল যে আমি প্রায় কেঁদেই ফেলছিলাম। সেই প্রথমবার যখন কঙ্গনাকে হিংস্র হতে দেখেছিলাম।

২য় স্বীকারোক্তি

২য় স্বীকারোক্তি

রাজ ২ -এর পর ভট সাহেব আমাকে বলেছিলেন, আমার কাজ ওনার ভাল লেগেছে। উনি আমার জন্য নির্দেশনা করবেন। এই কথা শোনার পর কঙ্গনা রেগে একটি অশ্লীল শব্দ বলে ওঠে। তার পর বলে, কেউ কেন আমাকে ফোন করছে না। সেই প্রথমবার আমি ওকে গালি দিতে শুনেছিলাম।

৩য় স্বীকারোক্তি

৩য় স্বীকারোক্তি

একদিন কঙ্গনা আমাকে নিজের বাড়িতে কোনও একটা পুজোর জন্য ডেকেছিল। পুজো ১২ টা থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল, আমি সাড়ে এগারোটায় পৌঁছে গিয়েছিলাম। ওর বাড়িতে একটা ছোট গেস্ট রুম রয়েছে। সেই ঘরটাকে কালো পর্দা দিয়ে ঢেকে রেখেছিল। কিছু কিছু ঠাকুরের মুর্তি ছিল। চারিদিকে আগুন ছিল। বেশ গা ছমছমে পরিবেশ ছিল। ও আমাকে একটা মন্ত্র উচ্চারণ করতে বলল, আর আমাকে ঘরে বন্ধ করে দিল। আমি ভয়ে কাঁটা হয়ে গিয়েছিলাম।

৪র্থ স্বীকারোক্তি

৪র্থ স্বীকারোক্তি

আমাদের সম্পর্কে শারীরিক হেনস্থার বিষয়টা ভীষণ ঘন ঘন হতে শুরু করেছিল। আমার জায়গায় অন্য কেউ থাকলে ওর উপর হাত তুলে দিত। কিন্তু বারবার রাগ হওয়া সত্ত্বেও আমি পারিনি। আমি প্রচণ্ড ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম। প্রত্যেক রাতে আমি আমার ম্যানেজারের কাছে কাঁদতাম। মেরিন ড্রাইভে স্কচের বোতল নিয়ে বসতাম। মাতাল হয়ে ফিরতাম।

৫ম স্বীকারোক্তি

৫ম স্বীকারোক্তি

আমার মা খুব ভয় পেয়ে গিয়েছিল। পারিবারিক পন্ডিতকে ডেকে আমাকে দেখা করতে বলেন মা। প্রথম কথাই পন্ডিতমশাই আমাকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন, "তোমার জন্য খাবার বানায়?" আমি বলেছিলাম হ্যাঁ। তখন উনি বলেছিলেন, "তোমার উপর কালাজাদু করার জন্য খাবারে নিজের অশুদ্ধ রক্ত মেশায়।"

৬ষ্ঠ স্বীকারোক্তি

৬ষ্ঠ স্বীকারোক্তি

আমার বাবা যখন আমাকে বিএমডব্লু উপহার দিলেন তখন কঙ্গনা খুব শান্তভাবে বলল, "আচ্ছা? তাই নাকি, ওরা তোমায় এক কোটি টাকার গাড়ি দিয়েছে। এমন কী মহান কাজ করেছ তুমি?" এই কথা আমি বলছি যখন ও ফ্যাশন ছবির জন্য সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রী হিসাবে জাতীয় পুরস্কার পেয়েছিল। আমার মনে আছে কাজ না পাওয়ার হতাশা ৪-৫ মাস ধরে আমি দেখেছি ওর মধ্যে।

৭ম স্বীকারোক্তি

৭ম স্বীকারোক্তি

২০০৮ সালে ওর জন্মদিনে লীলায় ও সবাইকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল যাদের সঙ্গে ও কাজ করেছে তাদের। ও বলেছিল রাতে কোকেনের নেশা করার জন্য। আমি আগে কয়েকবার ওর সঙ্গে গাঁজা খেয়েছিলাম। আমার পছন্দ হয়নি তাই আমি না বলেছিলাম। তারপরই আমার সঙ্গে ওর সবচেয়ে বড় ঝগড়াটা হয়েছিল। ঝগড়ার বিষয় ছিল কেন আমি কোকেনের নেশা করব না বলেছি।

৮ম স্বীকারোক্তি

৮ম স্বীকারোক্তি

ফিল্ম ফেয়ার অ্যাওয়ার্ডে যাওয়ার আগে কঙ্গনা আমার মাথা কামিয়ে দিয়েছিল। আমি একবারের জন্যও কিছু বলিনি। আমার চুল কখনও কুৎসিত ছিল না। কিন্তু কঙ্গনার মনে হয়েছিল আমার নতুন হেয়ারস্টাইলের প্রয়োজন।

৯ম স্বীকারোক্তি

৯ম স্বীকারোক্তি

কঙ্গনা আমাকে জোর করে একবার এক সাংবাদিককে ডেকে পাঠাতে বাধ্য করেছিল। এবং ওই সাংবাদিককে বলতে যে আমি ওকে কতটা ভালবাসি ইত্যাদি ইত্যাদি। আমি ওকে বলেছিলাম, আমার যা বলার বলে দিয়েছি, তুমি কি বলবে সেটা বলে দাও। ও ওই সাংবাদিকের কাছে একটা শব্দও বলেছি। আমি আজ পর্যন্ত বুঝিনি কেন।

১০ম স্বীকারোক্তি

১০ম স্বীকারোক্তি

ও আমার বাবার নামে যা নয় তাই বলত। কিন্তু তাও আমি ওর পাশেই ছিলাম, কিছু বলিনি। কিন্তু প্রতি রাতে লজ্জায় আমি মুশড়ে পড়তাম। আমাদের বিচ্ছেদের পর ৫ বছর লেগেছে আমার এই আত্নগ্লানি থেকে বেরিয়ে আসতে।

English summary
OMG! Kangana Ranaut PHYSICALLY ABUSED Ex-boyfriend Adhyayan Suman; Read His 10 Shocking Revelations
For Daily Alerts

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X
We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more