• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

আই ফর ইন্ডিয়া ফেসবুক কনসার্টে গান গাইলেন শাহরুখ, আলিয়া, হৃত্বিক, অনুদান উঠল ৩ কোটি

দেশজুড়ে করোনা ভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করছেন দেশবাসী। আর দেশের পাশে দাঁড়াতেই ফেসবুকে শুরু হয়েছে আই ফর ইন্ডিয়া কনসার্ট। আসলে বলিউডের রূপোলী পর্দার তারকারা জানেন দুর্দিনে কি করে দেশের পাশে দাঁড়াতে হয়। এর আগেও বহু উদাহরণ দেখা গিয়েছে। ব্যতিক্রম হল না এবারও। রবিবারের এই ডিজিটাল কনসার্টে অংশ নিয়েছিলেন সুপারস্টার শাহরুখ খান, আমির খান, হৃত্বিক রোশন, মাধুরি দীক্ষিত নেনে, বাদশা, আলিয়া ভাট, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া–নিকস জোনাস, পরিণীতি চোপড়া, সইফ–করিনা, এমনকী হলিউডের উইল স্মিথ, মিক জ্যাগার ও সোফি টার্নারও যোগ দিয়েছিলেন।

কবিতা শোনান অক্ষয় কুমার, গান গেয়ে মন মাতান সস্ত্রীক আমির খান

কবিতা শোনান অক্ষয় কুমার, গান গেয়ে মন মাতান সস্ত্রীক আমির খান

পরিচালক করণ জোহার ও জোয়া আখতার এই ডিজিটাল কনসার্ট শুরু করেন। এরপর গীতিকার মনোজ মুন্তাশিরের লেখা ‘‌তুমসে হো নহি পায়েগা'‌ কবিতাটি শোনা যায় অক্ষয় কুমারের কন্ঠে। এরপর আমির খান ও তাঁর পরিচলক-স্ত্রী কিরণ রাও জানান যে বর্তমান সময়ে প্রয়োজন রয়েছে এমন মানুষের পাশে দাঁড়ানো খুব জরুরি। আমর বলেন, ‘‌তবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল আশা না ছাড়া।'‌ তিনি সামনের সারিতে থাকা মানুষদের জন্য অনুদান দোওয়ার আর্জি জানিয়েছেন সাধারণের কাছে। এরপর এই যুগল ‘‌আ চলকে তুঝে ম্যায় লেকে চলু'‌ ও ‘‌জিনা ইসিকা নাম হ্যয়'‌ গানটি গেয়ে শোনান দর্শকদের।

শেষ শিল্পী শাহরুখ জানান সব ঠিক হয়ে যাবে

এই কনসার্টের শেষ শিল্পী ছিলেন বলিউডের কিং খান। র‌্যাপার বাদশা ও গীতিকার সাইনির লেখা গান ‘‌সব সহি হো জায়েগা'‌ গানটি শোনা যায় শাহরুখের গলায়। বাড়ির মধ্যে এই লকডাউনের মধ্যে থেকেও আশা না ছাড়ার কথা বলা হয়েছে। শাহরুখের সঙ্গে এই কনসার্টে আব্রাহামকেও দেখা গিয়েছে। দু'‌জনকে নাচতেও দেখা যায়। শাহরুখ বলেন, ‘‌যাঁরা আমাকে চেনেন তাঁরা জানেন যে নিজেকে বাঁচানোর জন্য আমি গাইতে পারি না। আমায় এই সুযোগ দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ সকলকে। কিন্তু এটাই হল জীবন, পুরোটাই ভাল সুযোগ, আশা, উদারতা এবং আমাদের সাধ্যে রয়েছে এমন কিছু করা।'‌

মাধুরির নাচ, আলিয়ার গান মুগ্ধ করে সকলকে

মাধুরির নাচ, আলিয়ার গান মুগ্ধ করে সকলকে

ছেলে আরিন পিয়ানোয় মাধুরী দীক্ষিতের ইদ শিরান-এর পারফেক্টে সুন্দর উপস্থাপনা করেন। টাইগার শ্রফ তাঁর বার্তায় বলেন, ‘‌করোনা পারবে না দেশবাসীর সঙ্গে লড়তে।'‌ শেডস চোখে টাইগার এরপরেই গেয়ে ওঠেন, ‘‌রূপ তেরা মাস্তানা'‌ এবং ‘‌ঠহর জা'‌। তাঁদের জনপ্রিয় গান শুনিয়ে কনসার্ট মাতান শ্রেয়া ঘোষাল, পাপন, সুনিধি চৌহান, বি প্রাক, হর্ষদীপ কউর, লিসা মিশ্র, বাদশার মত সেলেব শিল্পী। ছিলেন দ্বৈত বাদকশিল্পী অজয়-অতুল এবং র‌্যাপার ডিভাইন। চিকিৎসক, নার্স, প্রশাসন সহ সমস্ত জরুরি পরিষেবা কর্মীদের কুর্নিশ জানান আলিয়া-শাহিন ভাট। অঙ্কুর তিওয়ারির সঙ্গে গলা মিলিয়ে গেয়ে ওঠেন ‘‌ইক কুড়ি'‌ ও ‘‌দিল হ্যয় কে মানতা নেহি'‌।

অন্যান্য অভিনেতা–অভিনেত্রীদের পারফর্মস

ফারহা আখতার তাঁর ব্যান্ডের সঙ্গে ‘‌রক অন'‌-এর ‘‌তুম হো তো'‌ গানটি গান। হৃত্বিক রোশনকে পিয়ানোর সঙ্গে গাইতে শোনা যায় ‘‌তেরে জ্যায়সা ইয়ার কাহা'‌। নিক আর জো জোনাসের পরে কেভিন জোনাস ভারতীয়দের শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, ‘‌কোভিড-১৯-এর বিরুদ্ধে ভারতীয়দের অভূতপূর্ভ লড়াই চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে।'‌ পারফর্ম করেন প্রীতম চক্রবর্তী, অরিজিৎ সিং। কবিতা আবৃত্তি করেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। গান শোনান সোনু নিগম, ব্রায়ান অ্যাডামস। ভিকি কৌশল এবং রণবীর সিং বার্তা দেন সবাইকে। ঐশ্বর্য রাই বচ্চন সবাইকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘‌আপনারা কেউ নিজেকে একা ভাববেন না। আমরাও আছি আপনাদের সঙ্গে।'‌ রানি মুখোপাধ্যায় জানান, করোনার দাপট দেখে মেয়ে আদিরা একে দানব বলেছে। যদিও তিনি আশ্বাস দেন, খুব শীঘ্রই এই দানব চলে যাবে। গায়ক হরিহরণের গান সবার মন কেড়ে নেয়। ইউটিউবার লিলি সিং-এর অনুষ্ঠান ছিল মনোগ্রাহী। দিলজিৎ দোসাঞ্জের অনুষ্ঠানের পর নিজের কবিতা আবৃত্তি করেন গুলজার। রক কিংবদন্তি মিক জাগের করোনা ভাইরাস লকডাউনে অসহায়দের কথা তুলে ধরেন।

৩ কোটির বেশি অনুদান উঠেছে

৪ ঘণ্টা ২০ মিনিটের এই দীর্ঘ কনসার্টে ৩ কোটিরও বেশি অনুদান উঠেছে। কনসার্ট থেকে ওঠা সব অনুদান গিভইন্ডিয়া পরিচালিত কোভিড রেসপন্স তহবিলে যাবে।

মুখ্যমন্ত্রীকে লকডাউনের মানবিক মুখ স্মরণ করালেন অধীর

English summary
i for india concert on facebook shah rukh khan alia bhat parineeta hrithik sang in the concert
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X
We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more