India
  • search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

সঞ্জয় দত্ত থেকে সোনালী বেন্দ্রে, বলিউড সেলিব্রিটি যারা আজ ক্যানসার যুদ্ধে জয়ী

Google Oneindia Bengali News

ক্যানসার হ্যাজ নো অ্যান্সার, এটাই আমরা জানতাম। কিন্তু ক্যানসার জয়ী মনীষা কৈরালা, যুবরাজ বলেছেন ক্যানসার হ্যাজ অ্যান্সার। সব সময় যে এই রোগ আক্রান্তদের মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেয় তা নয়। বহু মানুষ আছেন যারা নিশ্চিত মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসেছেন। রুপোলি জগতের অনেক তারকারা আছেন যারা ক্যানসারের সাথে দীর্ঘ দিন লড়াই করে পুনরায় নিজেদের পুরোনো অবস্থানে ফিরে এসেছেন। তারা আজ সকলকের অনুপ্রেরণা হয়ে উঠেছেন।


সঞ্জয় দত্ত

সঞ্জয় দত্ত

বলিউডের মুন্নভাই সঞ্জয় দত্ত জয় করেছিলেন ক্যানসারের মত রোগকে। ৬১ বছর বয়সে সেরে উঠেছিলেন তিনি। অভিনেতা ফুসফুসে ক্যানসারে আক্রান্ত হন। তার অসুখের খবর ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে দত্ত সোশ্য়াল মিডিয়ার মাধ্যমে শুভাকাঙ্ক্ষীদের উদ্বিগ্ন না হওয়ার আবেদন করেছিলেন। দীর্ঘদিন চিকিৎসার পর অভিনেতা সুস্থ হয়ে পুনরায় স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসেন।

 ঋষি কাপুর

ঋষি কাপুর

প্রবীণ অভিনেতা ঋষি কাপুর ২০১৮ সালে লিউকেমিয়ায় আক্রান্ত হয়েছিলেন, যাকে আমরা ব্লাড ক্যানসার হিসাবে জানি। তিনি নিউ ইয়র্কে দীর্ঘ সময় চিকিৎসাধীন থাকার পর ২০১৯ সালে দেশে ফিরে আসেন। কিন্তু ২০২০ সালের ৩০ এপ্রিল তিনি মারা যান।

 রাকেশ রোশন

রাকেশ রোশন

অভিনেতা-চলচ্চিত্র নির্মাতা রাকেশ রোশনের স্কোয়ামাস সেল কার্সিনোমা, এক ধরনের গলার ক্যানসারে আক্রান্ত হয়েছিলেন। হৃত্বিকের বোন সুনয়না রোশনও একজন ক্যানসার সারভাইভার। তিনি সার্ভিকাল ক্যানসারের সাথে লড়াই করে পুনরায় স্বাভাবিক জীবনযাপন শুরু করেছেন।

সোনালী বেন্দ্রে

সোনালী বেন্দ্রে

বলিউড অভিনেত্রী সোনালী বেন্দ্রে মেটাস্ট্যাটিক ক্যানসারে আক্রান্ত হয়েছিলেন। হাম সাথ সাথ হ্যায়, সরফারোশ, কাল হো না হো-র মতো ছবিতে অভিনয়ের পাশাপাশি তার সৌন্ধর্যে মুগ্ধ তার অগণিত ভক্ত। বেন্দ্রে টুইটারে তার অসুখের কথা নিজেই পোস্ট করেন। নিউ ইয়র্কে তার চিকিৎসা হয়।

 ইরফান খান

ইরফান খান

২০১৮ সালে,ইরফান খান নিউরোএন্ডোক্রাইন ক্যানসারে আক্রান্ত হয়েছিলেন। অসুখের কথা সামনে আসতেই তার ভক্তরা ভেঙে পড়েন। এরপর কোলন ইনফেকশনের কারণে ২০২০ সালের ২৮ এপ্রিল শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ইরফান।

 নার্গিস দত্ত

নার্গিস দত্ত

গত বছরের অভিনেত্রী নার্গিস দত্ত ৪০ এবং ৫০ এর দশকে হিন্দি সিনেমার জগতে জনপ্রিয় অভিনেত্রী ছিলেন। তিনি কিংবদন্তী অভিনেতা সুনীল দত্তকে বিয়ে করেছিলেন এবং সঞ্জয় দত্তের মা ছিলেন। নিউ ইয়র্কে ক্যানসারের চিকিৎসার পর, তিনি ভারতে ফিরে আসেন কারণ তার স্বাস্থ্যের ক্রমাগত অবনতি হচ্ছিল। ছেলের প্রথম ছবি রকি মুক্তি পাওয়ার এক সপ্তাহ আগে ক্যানসারের সঙ্গে লড়াইয়ে হেরে যান তিনি।

মনীষা কৈরালা

মনীষা কৈরালা

নেপালের সুন্দরী,মনীষা কৈরালা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিকে দিল সে, বোম্বে এবং লাজ্জার মতো সুপারহিট ছবি উপহার দিয়েছেন। ৪২ বছর বয়সে, তিনি ডিম্বাশয়ের ক্যানসারে আক্রান্ত হন যার জন্য তিনি নিউ ইয়র্কে চিকিৎসাধীন ছিলেন। বেশ কয়েকটি সার্জারি এবং কেমো থেরাপির পরে, ২০১৫ সালে তাকে ক্যানসার-মুক্ত ঘোষণা করা হয়েছিল।

অনুরাগ বসু

অনুরাগ বসু

বলিউডের নামকরা পরিচালক অনুরাগ বসুর ঝুলিতে রয়েছে গ্যাংস্টার, লাইফ ইন আ মেট্রো এবং বরফির মতো বেশ কয়েকটি সেরা জনপ্রিয় মুভি। তিনি ২০০৪ সালে ব্লাড ক্যানসারে আক্রান্ত হন। যদিও ডাক্তাররা তাকে দুই মাস সময় দিয়েছিলেন কিন্তু অনুরাগ বসু লড়াই করে ক্যানসারকে হারিয়ে জীবনযুদ্ধে জয়ী হয়েছিলেন।

 লিজা রে

লিজা রে

২০০৯ সালে অভিনেত্রী লিজা রে ব্লাড ক্যানসারে আক্রান্ত হন। এক বছরেরও বেশি সময় ধরে অসুখের সঙ্গে লড়াই করেছিলেন এবং বিজয়ী হয়েছিলেন। ২০১০ সালে, তিনি একটি সর্বজনীন ঘোষণা করেছিলেন তিনি ক্যানসার মুক্ত হয়েছেন।

মমতাজ

মমতাজ

বলিউড অভিনেত্রী মমতাজ দো রাস্তে, চোর মাচায়ে শোর, আগ, খিলোনা, আদমি অউর ইনসান, উপাসনা এবং আরও অনেক সিনেমায় তার সৌন্দর্য এবং অভিনয় দিয়ে অনেকের মন জয় করেছেন। ৫৪ বছর বয়সে তিনি স্তন ক্যানসারে আক্রান্ত হন। তিনি ১১ বছর ধরে এই রোগের সাথে লড়াই করেছিলেন। তিনি ইউনিগ্লোব এন্টারটেইনমেন্টস ডকুমেন্টারিতে অভিনয় করেছিলেন।

ফিরোজ খান

ফিরোজ খান

বলিউডের প্রবীণ অভিনেতা ও চলচ্চিত্র নির্মাতা ফিরোজ খান ৬৯ বছর বয়সে ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তিনি মুম্বাইয়ের ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। ফিরোজ খান ১৯৮০-এর দশকে "কুরবানি" এবং "জানবাজ" এর মতো হিট ছবিতে অভিনয় করেছিলেন। অভিনেতাকে ২০০৭ সালের ব্লকবাস্টার মুভি ওয়েলকাম-এ শেষবারের মতো দেখা যায়।

রাজেশ খান্না

রাজেশ খান্না

এই কিংবদন্তি ভারতীয় অভিনেতা তাঁর যুগে 'ভারতীয় চলচ্চিত্রের প্রথম সুপারস্টার' ছিলেন। তিনি আরাধনা, অমর প্রেম, বাওয়ারচি, আনন্দ এবং নমক হারামের মতো কয়েকটি সেরা চলচ্চিত্র বলিউডকে উপহার দিয়েছেন। ২০১১ সালে তার ক্যানসারে আক্রান্ত হন তিনি। প্রায় এক বছর লড়াই করার পর ২০১২ সালে তিনি মারা যান।

 আদেশ শ্রীবাস্তব

আদেশ শ্রীবাস্তব

ক্যানসারে মারা যাওয়া ভারতীয় সেলিব্রিটিদের তালিকায় আরও একটি নাম হ'ল বিশিষ্ট সংগীত রচয়িতা এবং গায়ক আদেশ শ্রীবাস্তব। তিনি ৪০ দিন ধরে ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করেছিলেন কিন্তু দুঃখজনকভাবে ৫১ বছর বয়সে তিনি মারা যান।

 বিনোদ খান্না

বিনোদ খান্না

বিনোদ খান্না ৭০ ও ৮০-এর দশকে ভারতীয় চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেতা ছিলেন। ইমতিয়াজ, মুকাদ্দার কা সিকান্দার এবং হেরা ফেরি সহ একগুচ্ছ সিনেমায় আমরা বিনোদ খান্নার অভিনয় নজরকাড়ে। মূত্রাশয়ের ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার পর ৭০ বছর বয়সে তিনি পরলোক গমন করেন।

 রসিকা জোশী

রসিকা জোশী

প্রখ্যাত চলচ্চিত্র ও মারাঠি থিয়েটার অভিনেত্রী রসিকা জোশী ২০১১ সালে ৩৯ বছর বয়সে ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। মালামাল উইকলি', 'এক হাসিনা থি', 'ভুল-ভুলাইয়া'সহ বলিউড ছবিতেও অভিনয় করেছেন তিনি।

 ডিম্পল কাপাডিয়া

ডিম্পল কাপাডিয়া

বলিউড অভিনেত্রী এবং কস্টিউম ডিজাইনার সিম্পল কাপাডিয়া ২০০৯ সালে ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। অভিনেত্রী ডিম্পল কাপাডিয়ার ছোট বোন ছিলেন। অভিনেতা রাজেশ খান্নার সাথে অনুরোধ ছবিতে দেখা যায় সিম্পল কাপাডিয়াকে। তিনি ১৯৮৬ সালে অভিনয় ছেড়ে দেন এবং কস্টিউম ডিজাইনার হিসেবে বলিউডে ফিরে আসেন। তিনি রুদালি চলচ্চিত্রের জন্য সেরা কস্টিউম ডিজাইনার হিসাবে জাতীয় পুরষ্কার অর্জন করেন।

 টম অল্টার

টম অল্টার

প্রবীণ থিয়েটার এবং চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব টম অল্টার ৬৭ বছর বয়সে স্টেজ ফোর স্কিন ক্যানসারের বিরুদ্ধে তার যুদ্ধে হেরে গিয়েছিলেন। আপনি কি জানেন যে শচীন টেন্ডুলকারের প্রথম টেলিভিশন সাক্ষাৎকারটি টম অল্টার দ্বারা নেওয়া হয়েছিল? তিনি শিশুদের প্রিয় শো 'শক্তিমান'-এ তার ভূমিকার জন্য সবচেয়ে বেশি পরিচিত। টম পদ্মশ্রী পুরষ্কারে ভূষিত হয়েছিলেন।

শহিদ কাপুর থেকে অনষ্কা শর্মা, এই বলিউড অভিনেতারা বাস্তব জীবনে নিরামিষভোজী শহিদ কাপুর থেকে অনষ্কা শর্মা, এই বলিউড অভিনেতারা বাস্তব জীবনে নিরামিষভোজী

English summary
bollywood celebs battle against cancer
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X