'পদ্মাবত'-এ খিলজির চরিত্রে যৌনতার দিকটি নিয়ে যা বললেন রণবীর

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News

'পদ্মাবত' ছবি মুক্তির পর থেকেই বেশ আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে। বিতর্ক, বিক্ষোভের আগুন পেরিয়ে এই ছবি এখন দর্শকের দরবারে। আর ছবি মুক্তি পেতেই যাঁর নাম সবচেয়ে বেশি উঠে আসছে, তিনি হলেন পদ্মাবত-এর খিলজি রণবীর সিং। তাঁর অভিনয় বহু দর্শকের মন মজিয়েছে। ছবি ঘিরে তাঁর প্রশংসা নিয়ে রণবীর কী বলছেন দেখে নেওয়া যাক।

খিলজি নিয়ে রণবীরের বক্তব্য

খিলজি নিয়ে রণবীরের বক্তব্য

এক সাম্প্রতিক সাক্ষাৎকারে রণবীর সিং জানিয়েছেন, প্রথমে এই চরিত্রটির সুয়োগ পেয়ে রণবীর চিন্তায় পড়ে গিয়েছিলেন যে, এই চরিত্রে অভিনয় করা উচিত কী না। এই চরিত্রে অভিনয় ঝুঁকিপূর্ণ বলে মনে হয়েছে রণবীরের।

কেন এতটা গুরুত্ব পেল খিলজির চরিত্র?

কেন এতটা গুরুত্ব পেল খিলজির চরিত্র?

এই প্রশ্নের উত্তরে রণবীরের বক্তব্য, খিলজির চরিত্র বাইসেক্সুয়াল হওয়ায় এটি আরও বেশি সমৃদ্ধি পয়েছে চলচ্চিত্রের চরিত্র হিসাবে। চিরাচরিত খলনায়কের ভাবধারা ছেড়ে এই চরিত্র পোক্ত হয়েছে সেই কারণেই।

চরিত্র নিয়ে সিদ্ধান্তের বিষয়ে যা জানালেন

চরিত্র নিয়ে সিদ্ধান্তের বিষয়ে যা জানালেন

চরিত্রের অনুরোধ যখন রণবীরের কাছে আসে, তখন অনেক ভাবনা চিন্তার পর এই 'ঝুঁকি 'তিনি নিয়ে ছিলেন বলে জানান। জনি ডেপ-কে রণবীর নিজের আদর্শ মানেন, আর তাঁর আদর্শের অনুপ্রেরণা নিয়েই এই ঝুঁকি তিনি নেন।

কতটা কঠিন ছিল কাজ

কতটা কঠিন ছিল কাজ

এই চরিত্রে অভিনয় করা নিঃসন্দেহে কঠিন কাজ ছিল বলে জানিয়েছেন রণবীর। এই ছবির জন্য ২১ দিন টানা তিনি নিজেকে ঘর বন্ধ করে রেখেছেন। প্রচুর পড়াশুনো করেছিলে খিলজি চরিত্রটিকে বুঝতে। এমনই জানিয়েছেন রণবীর 'খিলজি' সিং।

পদ্মাবতের সাফল্য

পদ্মাবতের সাফল্য

২৫ জানুয়ারি মুক্তি পেয়ে দেশের বাজারে ১১০ কোটি টাকার বাজার করে ফেলেছে পদ্মাবত । যে ছবিতে রণবীর ছাড়াও দীপিকা পাড়ুকোন ও শাহিদ কাপুর অভিনয় করেছেন। তবে গোটা ছবিতে সবচেয়ে বেশি প্রশংসা পাচ্ছেন রণবীর।

English summary
Ranveer Singh, who is receiving rave reviews for his latest film Padmaavat, has finally ended his self-imposed silence on the film and his character, Sultan Alauddin Khilji. For the past two days, he has been speaking his mind about the controversial film.

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more