ভারতের এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক ভোট। আপনি কি এখনও অংশগ্রহণ করেননি ?
  • search

সাম্প্রতিক এই সমস্ত হিন্দি সিরিয়াল মন ছুঁয়েছে তার 'গল্পে', আপনিও কি একমত

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    সিরিয়াল মানেই অনেকেরই ধারনা একটা ছোট্ট ইলাস্টিকের দড়িকে টেনে লম্বা করার প্রক্রিয়া! একটা সময় পর্য়ন্ত ভারতীয় টেলিভিশন দেখিয়েছে, 'সার্কাস','নুক্কর', 'ফৌজি','তুতু ম্যায় ম্যায়'-এর মতো অনাবিল মনোরঞ্জনে ঠাসা কিছু সিরিয়াল। যে সিরিয়ালে ছিল 'গল্প'। নিত্যদিনের শাশুড়ি-বৌমা ঝগড়া, অবৈধ বিয়ের ঘটনার থেকে অনেক দূরে থাকা কিছু বাস্তববিক চরিত্রকে নিয়ে চলা রোজনামচার গল্প দেখা যেত এই সব সিরিয়ালে ।

    কিন্তু এর পরবর্তীকালে বেশ কছু হিন্দি সিরিয়াল ভারতীয় টেলিভিশনে আসে, যা ক্রামগত শাশুড়ি-বৌমা ঝামেলাকে কেন্দ্র করেই তৈরি করতে থাকে সিরিয়ালের শিড়দাঁড়া। এই একঘেয়েমি থেকে মুক্তি দিয়ে দর্শককে নতুন ধরনের কিছু কাহিনি বিন্যাস উপহার দিয়েছে কয়েকটি হিন্দি সিরিয়াল। যার মধ্যে রয়েছে ভারতীয় টেলিভিশনে প্রচারিত বেশ কিছু পাকিস্তানি সিরিয়ালও। যে সিরিয়ালের আকর্ষণ উপভোগ করেছে একটা গোটা প্রজন্ম।

    জিন্দাগি গুলজার হ্যায়

    জিন্দাগি গুলজার হ্যায়

    পাকিস্তানি লেখিকা উমেরা আহমেদের লেখা উপন্যাস অবলম্বনে তৈরি হয়েছে 'জিন্দগি গুলজার হ্যায়' সিরিয়ালটি। জারুন (ফাওয়াদ খান)এই সিরিয়ালে এক বড় ঘরের সন্তান। । যে কলেজে গিয়ে পরিচত হয় ক্লাসের ফার্স্টগার্ল কাশাফ (সনম সইদ) এর সঙ্গে। গ্ল্যামারলেস কাশফ এর চরিত্রটি যেন এক্কেবারে 'পাশের বাড়ির' মেয়ে হিসাবে তুলে ধরা হয়। যে অত্য়ন্ত মেধাবী ও পুরুষ বিদ্বেষী, এবং এই পুরুষ বিদ্বেষের পেছনেও রয়েছে একটি বড় কারণ। কিন্তু 'খড়ুস' এই কশফের প্রেমেই কলেজ ছেড়ে দেওয়ার বহু বছর বাদে পড়ে যায় জারুন। তারপরের গল্প আরও সুন্দর। বাস্তব ও সাহিত্যবোধের মিশেলে তৈরি এই সিরিয়াল ইতিমধ্যেই মন জয় করেছে বহু দর্শকের।

    [আরও পড়ুন:ফাওয়াদের এই লুক দেখে হিংসে হতে পারে পুরুষদের !তবে মহিলারা আবারও তাঁর প্রেমে পড়তে বাধ্য]

    বেহদ

    বেহদ

    ভারতীয় টেলিভিশনের অন্যতম রোম্যান্টিক থ্রিলার হল 'বেহদ'। সেনি এন্টারটেনমেন্ট-এ প্রাচারিত এই সিরিয়ালের কাহিনির মূল চরিত্র মায়া(জেনিফার)। কীভাবে অহংকারী মায়া নিজের ভাগ্য নিজে লেখবার জন্য নানা রকমের অদ্ভুত কার্যকলাপ শুরু করে, এই কাহিনি তাই দেখিয়েছে। এই সাইকো থ্রিলারে মায়া , অর্জুন (কুশল ট্যান্ডন) কে ভালোবাসে, কিন্তু ভালোবাসার চরমতম পরীক্ষা নিতে গিয়ে ঘটে নানা ঘটনা। অন্যান্য় সোপ অপেরা-র থেকে এই গল্পের কাহিনি ভারতীয় টেলিভিশনের একটা গোটা প্রজন্মের মন ছুঁয়ে গিয়েছে।

     এক হাসিনা থি

    এক হাসিনা থি

    সাম্প্রতিককালের অন্যতম ক্রাইম থ্রিলার হল 'এক হাসিনা থি'। আমেরিকান সিরিলায় সিরিজ 'রিভেঞ্জ' থেকে অনুপ্রাণিত এই সিরিলয়ালের গল্প । স্টার প্লাসের এই সিরিয়ালে দেখানো হয় , নিছক মজার ছলে বন্ধুদের সঙ্গে 'বেট' লড়ে একরাতের জন্য দূর্গা ঠাকুর (সঞ্জিদা শেখ) কে শয্যা সঙ্গিনী করতে চায় শৌর্য ( বৎসল শেঠ)। কলকাতা ও মুম্বই এই দুই শহরের প্রক্ষাপটে আধারিত এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই এই সিরিয়ালের গল্প আবর্তিত হয়।

    বালিকা বধূ

    বালিকা বধূ

    এই সিরিয়ালটির গল্পও মন ছুঁয়েছে বহু দর্শকদের। কালার্সে সম্প্রচারিত এই সিরিয়ালের গল্প রাজস্থানের প্রত্যন্ত গ্রামের ছোট্ট আনন্দী (অভিকা গোর) কে কেন্দ্র করে শুরু হয়। কম বয়সে রাজস্থানের মতো জায়গার প্রত্যন্ত গ্রামের মেয়েদের কীভাবে বিয়ে দেওয়া হয়, আর তার ফল তারা সারা জীবন কীভাবে পায়, সেই নিয়েই এই সিরিয়াল তৈরি। অসামান্য গল্পের এই সিরিয়ালই একটা সময়ে টিআরপি-র সমস্ত প্রতিযোগীতা জিতে নিয়েছিল।

    হামসফর

    হামসফর

    পাকিস্তানি এই সিরিয়াল 'জিন্দগি' চ্যানেলে সম্প্রচারিত হয়ে বহুল জনপ্রিয়তা পায় ভারতে। এই সিরিলায়লের কাহিনি, খেয়রদ (মাহিরা খান) ও আশর (ফাওয়াদ খান) কে নিয়ে তৈরি। এক কঠিন পরিস্থিতিতে পড়ে দুজনের বিয়ে হলেও সেই বিয়ে সুখের হয়নি। তারপর কীভাবে বিচ্ছেদের পরেও দুজন মানুষ একাত্ম হয়ে যান, সেই নিয়েই সিরিয়ালের গল্প। গোটা সিরিয়ালে একটি সুক্ষ্ম বার্তা রয়েছে সমস্ত বয়সের মানুষদের জন্য।

    [আরও পড়ুন:ট্রাই করবেন নাকি নয়া লুক! বলি হিরো-দের গালভর্তি এই দাড়ির কেতেই যৌনতা খুঁজে পান বহু মহিলা]

    English summary
    best ever hindi serials transmitted in india with good story.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more