• search

'পদ্মাবতী'-র পর এই বাংলা ছবি নিয়ে নয়া বিতর্ক, ক্ষুব্ধ হিন্দু জাগরণ মঞ্চ যা জানাল

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    'পদ্মাবতী'-র পর এবার বাংলা ছবি 'রঙ বেরঙের কড়ি' ছবি ঘিরে আপত্তি তুলে বিক্ষোভ দেখাল হিন্দু জাগরণ মঞ্চ। রঞ্জন ঘোষ পরিচালিত এই ছবিতে কেন চরিত্রদের নামে হিন্দু দেব দেবীর নাম ব্যবহার করা হয়েছে তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে সরব হয়েছে এই হিন্দুত্ববাদী সংগঠন।

    'পদ্মাবতী'-র পর এই বাংলা ছবি নিয়ে নয়া বিতর্ক, ক্ষুব্ধ হিন্দু জাগরণ মঞ্চ যা জানাল

    [আরও পড়ুন:'বেছে ছবি করা' আবীর, ২০১৭ -য় সেলুলয়েডে আরও পরিণত]

    উল্লেখ্য, ছবিতে রাম ও সীতা নামে দুটি চরিত্রের বিবাহ বিচ্ছেদ দেখানো হয়েছে। আর সেই নিয়েই ক্ষোভ এই কট্টরপন্থী হিন্দু সংগঠনের। সংগঠনের দাবি, ছবির চরিত্রদের নাম হিন্দু দেবদেবীর নামে রাখা যাবে না। এনিয়ে বিক্ষোভ দেখিয়ে, কলকাতার সিবিএফসি দফতরের সামনে বিক্ষোভ দেখায় এই সংগঠনের সদস্য়রা। বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রীয় তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রকের কাছেও সংগঠনটি চিঠি পাঠিয়েছে বলে জানিয়েছেন সংগঠনে মুখপাত্র বিবেক সিং। এ নিয়ে তাঁরা আদালতের দ্বারস্থ হবেন বলেও জানিয়েছেন।

    'পদ্মাবতী'-র পর এই বাংলা ছবি নিয়ে নয়া বিতর্ক, ক্ষুব্ধ হিন্দু জাগরণ মঞ্চ যা জানাল

    [আরও পড়ুন:নান্দনিকতা ও প্যাকেজিংয়ের হিট রেসিপি কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়ের, কৃতিত্বকে কুর্নিশ সিনেমা জগতের]

    যদিও পরিচালক এই ক্ষোভের মুখে নতি স্বীকার করে নেওয়ায় রাজি নন। পরিচালক রঞ্জন ঘোষ জানিয়েছেন তাঁর এই ছবি 'রঙ বেরঙের কড়ি' -র সঙ্গে রামায়ণ মহাকাব্যের কোনও যোগ নেই। চিরঞ্জিৎ চক্রবর্তী, ঋত্বিক চক্রবর্তী , ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত অভিনীত এই ছবি , ৪ টি আলাদা গল্প নিয়ে তৈরি। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে 'পদ্মাবতী' ছবি নিয়ে বিতর্কের জেরে এদেশে আগন জ্বলেছে। তা নিয়ে ক্ষোভও প্রকাশ করে আদালত। তারপর আবারও ফিল্মকে কেন্দ্র করে এই নয়া বিতর্ক কতদূর গড়ায় সেদিকেই নজর সকলের।

    English summary
    After fringe groups launched massive protests against Deepika Padukone-starrer for allegedly hurting ‘Rajput sentiments’, now a Hindu group has taken offense against a Bengali movie for naming its characters after deities Ram and Sita.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more