• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

গ্রাহক পরিষেবা চাকরির চাহিদা এ বছর সর্বাধিক ছিল, দাবি লিঙ্কডিনের ‌বার্ষিক সমীক্ষায়

কোভিড–১৯ মহামারি চলাকালীন ভারতীয় পেশাদাররা সতর্কতার সঙ্গে আশাবাদী থেকেছেন বলে বছরর শেষে তার ইঙ্গিত দিল পেশাদার নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইট লিঙ্কডিন। লিঙ্কডিনের সাম্প্রতিকতম সমীক্ষায় উঠে এসেছে, ভারতীয় পেশাদারদের সামগ্রিক আত্মবিশ্বাসের নম্বর দাঁড়িয়ে রয়েছে এপ্রিল থেকে নভেম্বরের মধ্যে প্লাস ৫০ থেকে প্লাস ৫৭–তে।

পাঁচজনের মধ্যে ২ জন নতুন চাকরি চাইছেন

পাঁচজনের মধ্যে ২ জন নতুন চাকরি চাইছেন

এই রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে যে পাঁচজন ভারতীয়র মধ্যে ২ জন ভারতীয় পেশাদার পরের বছর নতুন চাকরির আশা বৃদ্ধি করছেন এবং ২ জনের মধ্যে একজন ভারতীয় (‌৫৩ শতাংশ) আশা করেন যে আগামী ৬ মাসের মধ্যে তাঁর সংস্থা উন্নতি করবে। লিঙ্কডিনের রিপোর্টে বলা হয়েছে যে গ্রাহক পরিষেবা বিশেষজ্ঞ এই বছর সর্বাধিক চাহিদাযুক্ত কাজ ছিল এবং ২০২১ সালের জন্য ১০টি ‘‌ভবিষ্যতের কাজের'‌ ভবিষ্যদ্বাণী দিয়েছে। লিঙ্কডিনের রিপোর্টে বলা হয়েছে যে ভারতীয় পেশাদারদের প্রত্যাশা এমন সময় প্রকাশ পেয়েছে যে সময় ভারতের অর্থনীতি ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরছে এবং নিয়োগের হারও ধীরগতিতে ফিরে আসছে পূর্ব-কোভিড পর্যায়ের মতো, অক্টোবর ২০২০ পর্যন্ত ৪৬ শতাংশ নিয়োগের হার বৃদ্ধি পেয়েছে।

 ৭৮ শতাংশ বেকার চাপে রয়েছে

৭৮ শতাংশ বেকার চাপে রয়েছে

রিপোর্টে এও বলা হয়েছে যে যেখানে ভারতীয় পেশাদাররা আগামী বছর সম্পর্কে আত্মবিশ্বাসী, সেখানে ৭৮ শতাংশ বেকার এ বছরের নভেম্বর থেকে চাপে রয়েছেন এবং তিনজনের মধ্যে একজন তাঁর আয় বাড়িয়ে সামনে বছরের দিকে যাবেন। লিঙ্কডিনের রিপোর্টে এও বলা হয়েছে যে ৬১ শতাং ভারতীয় পেশাদাররা এই ছুটির মরশুমে কম সময় অতিবাহিত করবেন এবং ৮৭ শতাংশ ভারতীয় জানিয়েছেন যে তাঁরা সম বা বেশি সময় বছরের শেষে তাঁদের কাজে সময় দেবেন। লিঙ্কডিনের বছর শেষের অন্বেষণে উঠে এসেছে যে পাঁচজনের মধ্যে তিনজন (‌৫৭ শতাংশ)‌ ভারতীয় পেশাদার জানিয়েছেন যে তাঁরা তাঁদের অনলাইন শেখার সময়কে বৃদ্ধি করবেন।

 ২০২০ সালে সর্বাধিক চাহিদাযুক্ত চাকরি

২০২০ সালে সর্বাধিক চাহিদাযুক্ত চাকরি

এই রিপোর্টে ২০২০ সালের কাজের প্রবণতাকেও তুলে ধরা হয়েছে। লিঙ্কডিনের রিপোর্ট অনুযায়ী, গ্রাহক পরিষেবা বিশেষজ্ঞ এ বছর সবচেয়ে চাহিদাপূর্ণ চাকরি ছিল। এরপরই রয়েছে ডেটা অ্যানালিস্ট ও ডিজিটাল মার্কেটিং বিশেষজ্ঞ। আর্থিক বিশ্লেষকের চাকরি চতুর্থ স্থানে রয়েছে, এরপর রয়েছে গ্রাফিক ডিজাইনার। আইটি অ্যাডমিনিস্ট্রেটর ষষ্ঠস্থানে, আইটি সাপোর্ট সপ্তম স্থানে, প্রজেক্ট ম্যানেজার অষ্টম, সেলস প্রতিনিধি নবম ও সফটওয়্যার ডেভেলপার দশম স্থানে রয়েছে, ২০২০ সালের সর্বাধিক চাকরির চাহিদা তালিকায়।

২০২১ সালের ভবিষ্যতের চাকরি

২০২১ সালের ভবিষ্যতের চাকরি

লিঙ্কডিন ২০২১ সালের ভবিষ্যতের চাকরি নিয়েও রিপোর্ট পেশ করেছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, পুরনো চাকরির দৃষ্টান্তগুলি পরের বছরও ফিরে আসবে। লকডাউনের প্রাথমিক পর্যায়ে চারজন ভারতীয় পেশাদার ব্যক্তির একজনকে নমনীয় কাজের সময় এবং মঙ্গলজনক সহায়তা দেওয়া হয়েছিল। লিঙ্কডিনের অনুসারে, এটি ২০২১ সালে পরিবর্তিত হবে কারণ সংস্থাগুলি নতুন কর্মচারীদের প্রয়োজনীয়তাগুলিকে স্বীকৃতি দেবে, যার মধ্যে অনেকগুলি খাত এবং ভৌগলিকের উপর নির্ভর করবে।

সব প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে মহামারির বছরেও এই ধন কুবেররা প্রসন্ন করে রেখেছে ভাগ্যলক্ষ্মীকে

English summary
During the coronavirus crisis, Indian professionals were cautiously optimistic
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X