• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

করোনা ধাক্কায় ধুঁকছে অটোমোবাইল শিল্প! চলতি অর্থবর্ষেই বড়সড় আর্থিক ক্ষতির মুখে মাহিন্দ্রা

  • |

২০২০-২১ অর্থবর্ষের প্রথম তিনমাসেই বড়সড় ধাক্কা খেল বিখ্যাত অটোমোবাইল সংস্থা মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রা। গত অর্থবর্ষে এপ্রিল থেকে জুন মাসে যেখানে লাভের পরিমাণ ছিল ২২৫৯.৭৪ কোটি টাকা। বর্তমান অর্থবর্ষের এই তিনমাসে মাহিন্দ্রার লাভের পরিমাণ ৯৭% কমে দাঁড়িয়েছে মাত্র ৬৭.৭৯ কোটি টাকায়। এদিকে করোনার দুর্বিষহ আক্রমণে যে দিশেহারা অটোমোবাইল শিল্প, তা আর বলার অপেক্ষা থাকে না।

চরম দুর্ভোগে অটোমোবাইল শিল্প, চলতি অর্থবর্ষেই অর্থ মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রায় বড় লোকসান

গত অর্থবর্ষের প্রথম তিনমাসে মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রার আয়ের পরিমাণ ছিল ১২,৮০৫.৪৭ কোটি টাকা। বর্তমান অর্থবর্ষে এপ্রিল থেকে জুন মাসে তা কমেছে প্রায় ৫৬%। এছাড়াও এই তিনমাস মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রা বিক্রি করেছে ২৭,৫৬৫ টি গাড়ি যা আগের বছরের এই তিনমাসের থেকে প্রায় ৭৮% কম। ৭২% লোকসান হয়েছে রপ্তানির ক্ষেত্রেও। এছাড়া ট্র্যাক্টরের মত অবশ্যব্যবহার্য যানের বিক্রি আগের অর্থবর্ষের তুলনায় প্রথম তিনমাসে ২২% কমে হয়েছে ৬৪,১৪০ টি।

মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রার তরফে একটি বিবৃতিতে জানান হয়েছে, "২০২১ অর্থবর্ষের প্রথম তিনমাসে অটোমোবাইল শিল্পে বিক্রিবাটা আগের বছরের তুলনায় ৮১.৫% কমেছে। এপ্রিলে গাড়িবিক্রির সংখ্যা ছিল শূন্য। জুনমাসে মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রার বিক্রি বৃদ্ধি পেলেও লকডাউনের জেরে ও বহনের সমস্যার কারণে এখনও উৎপাদন প্রক্রিয়া ব্যহত হচ্ছে।"

অর্থবর্ষ ২০২০-এর প্রথম তিনমাসের তুলনায় এই বছরে অপারেটিং মার্জিন ১৪% থেকে কমে হয়েছে ১০%। কর, রাজস্ব বাবদ মোট অর্থ বাদ দিয়ে মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রার সর্বমোট আয় কমেছে ৬৮%। সংস্থার তরফে একটি বিবৃতিতে জানান হয়েছে, "এই কঠিন সময়ে সমস্তরকমের বাড়তি খরচ ছাঁটাইয়ের দিকে নজর রয়েছে আমাদের। এই তিনমাসে আমাদের পূর্ব-পরিকল্পনা এবং আয়বর্ধন করার কৌশল কিছুটা হলেও আমাদের বাঁচিয়ে দিয়েছে।"

মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রা ইতিমধ্যে শেয়ারহোল্ডারদের সম্মতিতে স্যাংগং মোটরসে শেয়ার ৫০%-এর কমে নামিয়ে এনেছে। কিন্তু অর্থবর্ষ ২০২১-এর প্রথম তিনমাসের হিসেব প্রকাশের পরপরই বিএসই সেনসেক্সের হিসেবে স্টকের ১.৩% পতন হয়ে দাঁড়িয়েছে ৬০১.৫০ পয়েন্টে। সূত্রের খবর অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত এনএসই ও বিএসই সূচকে প্রায় ৫৬ লক্ষ শেয়ারের হাতবদল হয়েছে।

English summary
Automobile industry is in crisis due to Coronavirus pandemic as Mahindra is facing huge loss
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X