সেলফির নেশায় নদীর টানে ভেসে গেলেন যুবক, পুজো দিতে গিয়ে মর্মান্তিক পরিণতি


ফের সেলফির নেশায় মর্মান্তিক ঘটনা। সেলফি তুলতে গিয়ে নদীতে ভেসে গেলেন এক যুবক। দীর্ঘ তল্লাশির পর অণ্ডালের যুবকের দেহ উদ্ধার করল পুলিশ। নদীতে ধারে দাঁড়িয়ে সেলফি তুলতে গিয়েই ঘটল মর্মান্তিক পরিণতি। দিদি-জামাইবাবুর সঙ্গে মন্দিরে পুজো দিতে এসে আর বাড়ি ফেরা হল না যুবকের। 'শুখরুখা' আসানসোলের নুনিয়া নদীই কাড়ল প্রাণ।

অণ্ডালের বাসিন্দা বিবেক চন্দ্রবংশী বন্ধুদের নিয়ে বেড়াতে এসেছিলেন আসানসোলে দিদির বাড়িতে। বুধবার তিনি ঘাঘরবুড়ি মন্দিরে পুজো দিতে আসেন। এই মন্দিরের পাশ দিয়েই বয়ে চলেছে নুনিয়া নদী। এই নদীতে সারা বছরই প্রায় জল থাকে না। শুধু বর্ষাকালেই জল টইটম্বুর। নদীর ধারে দাঁড়িয়ে সেলফি তুলতে গিয়েই বিপত্তি ঘটে।

[আরও পড়ুন: মন্দিরে ভাইরাল নাচ মুম্বইয়ের মডেলের, ভিডিও ঘিরে বিতর্ক মধ্যপ্রদেশে ]

সেলফি তোলার সময় হঠাৎ পা পিছলে নদীতে পড়ে যান বিবেক। নদীর স্রোতে তিনি ভেসে যান। এরপর খবর দেওয়া হয় পুলিশকে। পুলিশ রিভার ট্রাফিক পুলিশের সহায়তায় বিবেকের খোঁজে তল্লাশি শুরু করে। দীর্ঘ কয়েকঘণ্টা তল্লাশির পর নদী থেকে উদ্ধার হয় বিবেকের নিথর দেহ। মন্দিরের সদস্যরা বহুবার নিষেধ করা সত্ত্বে বিবেক সেলফির নেশায় নদীর ধারে গিয়েছিলেন। তখনই ঘটে দুর্ঘটনা।

[আরও পড়ুন: শরীরের গোপন অংশে মেহেন্দি দিয়ে লেখা ফোন নম্বর, তরুণীর নৃশংস খুনের কিনারা]

উদ্ধারকারীরা জানান, বিবেকের দেহ গর্তে আটকে গিয়েছিল। এই অংশে পাথরের উপর দিয়ে বয়ে চলেছে নদী। তার ফাঁকে রয়েছে গর্ত। সেই গর্তেই দেহ আটকে যাওয়ায় উদ্ধারকারীরা হিমশিম খান বিবেকেল সন্ধানে। পরে ভেসে উঠতেই দেহ আটকে যায় জালে। দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত পাঠানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন:ক্রাইম থ্রিলারের লেখিকা হয়ে খ্যাতি, অবশেষে স্বামীকে খুনের অভিযোগে গ্রেফতার]

Have a great day!
Read more...

English Summary

A young man is died to fall in river when he clicks selfie. Dead-body is recovered by police after some times,