পরিবার নিয়ে জেলে সংসার পেতেছে সাজাপ্রাপ্ত বন্দিরা, নতুন সুযোগ মধ্যপ্রদেশ সরকারের


মধ্যপ্রদেশের ওপেন প্রিজন বা মুক্ত সংশোধনাগারে দুই কামরার ঘরে পরিবার নিয়ে ঘর-সংসার করছে সাজাপ্রাপ্ত বন্দিরা। শুধু সংসার করাই নয়, সংশোধনাগারের বাইরে গিয়ে কাজও করতে পারবে বন্দিরা। শিবরাজ সিং চৌহানের সরকারের এমন অভিনব সিদ্ধান্তে সাড়া পড়ে গিয়েছে।

এই মুক্ত সংশোধনাগারের নাম দেবি অহিল্যাবাই ওপেন কলোনি। জেলা সংশোধনাগারের কাছেই জেলটি চালু করা রয়েছে। উদ্দেশ্য বন্দিদের জীবনে ইতিবাচক পরিবর্তন আনা।

এই মুহূর্তে ১০জন বন্দিকে আলাদা আলাদা করে থাকার জায়গা দেওয়া হয়েছে। ১০জন বিবাহিত বন্দি সেখানে রয়েছে। শাজাপুরের ভূপেন্দ্র সিংয়ের বয় ৪৫ বছর। ১৯৯৬ সালে এক খুনের ঘটনায় তার যাবজ্জীবন সাজা হয়েছে। সে পরিবার নিয়ে মুক্ত সংশোধনাগারের রয়েছে। মধ্যপ্রদেশের বিভিন্ন জেলে ১২ বছর কেটেছে তার। মুক্ত সংশোধনাগারে এসে নিজেকে অনেক হালকা মনে হচ্ছে বলে সে জানিয়েছে।

ভূপেন্দ্রর স্ত্রী সীমা জানিয়েছেন, দুই সন্তান নিয়ে অনেকদিন স্বামীর থেকে দূরে ছিলেন তিনি। তবে এখন আবার একসঙ্গে থাকতে পেরে ভালো লাগছে। দুই সন্তানও নতুন স্কুলে ভর্তি হবে। জীবন স্বাভাবিক হওয়ার আনন্দ মশগুল তাঁরা।

[আরও পড়ুন: বাঁকুড়ায় গৃহবধূর রহস্য মৃত্যু! ফের ময়নাতদন্তের দাবি বাপের বাড়ির]

জেল সুপার জানিয়েছেন, হাইকোর্টের নির্দেশ পেয়েই এই সংশোধনাগার শুরু করা হয়েছে। যাবজ্জীবন প্রাপ্ত বন্দিদের যাদের এখনও সাজা শেষ হতে ১-২ বছর বাকী রয়েছে তারা এই মুক্ত সংশোধনাগারে থাকতে পারবে।

[আরও পড়ুন: দিনে দর্জি, রাতে সিরিয়াল কিলার, ভয়ঙ্কর খুনিকে ধরলেন এশিয়ান গেমসে পদক জয়ী জুডো প্লেয়ার ]

বন্দিরা সকাল ৮টা থেকে ৬টা পর্যন্ত জেলের বাইরে কাজে বেরোতে পারবে। শহরের বাইরে বেরোতে পারবে না। তাদের সঙ্গে কারা দেখা করতে পারবে সেটারও রেকর্ড রাখা হবে।

[আরও পড়ুন:কিশোরের অস্বাভাবিক মৃত্যু! লেকগার্ডেন্সের কাছে লাইনের ধার থেকে কিশোরের দেহ উদ্ধারে চাঞ্চল্য]

Have a great day!
Read more...

English Summary

Madhya Pradesh allows inmates to live with family members in open prison