পেট্রোল-টাকার খোঁচার মাঝে খানিক স্বস্তি কেন্দ্রের, ১০ মাসে সর্বনিম্ন হল খুচরো মুদ্রাস্ফীতির হার


জ্বালানির দাম বাড়া ও ডলারের সাপেক্ষে টাকার দাম কমা নিয়ে বিরোধীদের কম সমালোচনা সহ্য করতে হয়নি কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী সরকারকে। এমনকী সাড়া দেশে আমজনতার মধ্যেও অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়েছে। তার মধ্যে খানিক স্বস্তির খবর এল মোদী সরকারের জন্য। কারণ খুচরো মুদ্রাস্ফীতির হার গত দশ মাসে সর্বোচ্চ নেমে অগাস্টে ৩.৬৯ শতাংশ হয়ে গিয়েছে। যা গত জুলাই মাসে ছিল ৪.১৭ শতাংশ।

কেন্দ্রের তরফে এই পরিসংখ্যান তুলে ধরা হয়েছে। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের ৪ শতাংশ টার্গেটেরও নিচে নেমে গিয়েছে এবারের মুদ্রাস্ফীতির হার। রয়টার্সের ভবিষ্যদ্বাণী ছিল অগাস্টে দেশের মুদ্রাস্ফীতির হার থাকবে ৩.৮৬ শতাংশ। সেটিকেও ছাপিয়ে নেমেছে হার।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, টাকার দাম পড়া বা তেলের দাম বাড়া নিয়ে আশঙ্কা অবশ্যই রয়েছে, তবে ঘরোয়া বাজারে খাবারের দাম ও বিশ্ব বাজারে অন্যান্য বিষয়গুলি এখনও সেভাবে আঘাত না করায় এই স্বস্তি মিলেছে।

[আরও পড়ুন: বিজেপিই কেলেঙ্কারির মূলে! মালিয়ার বিস্ফোরক স্বীকারোক্তির পর তোপ রাহুল শিবিরের ]

একদিকে যেমন টাকার দাম ১২ শতাংশ কমে প্রায় ৭৩ টাকায় চলে গিয়েছিল। তার উপরে তেলের দাম বেড়েছে। মুদ্রাস্ফীতির হার নিয়ন্ত্রণে থাকায় পরের বছর নির্বাচনে অংশ নিতে চলা নরেন্দ্র মোদীর কাছে তা কিছুটা স্বস্তির খবর।

[আরও পড়ুন: বিজয় মালিয়া ইস্যুতে মুখ খুললেন অরুণ জেটলি, কী বললেন তিনি]

তবে আইএমএফ বা ইন্টারন্যাশনাল মানিটারি ফান্ড জানিয়েছে, আগামী অর্থবর্ষে মুদ্রাস্ফীতির হার বেড়ে ৫.২ শতাংশ হয়ে যেতে পারে। যা গত আর্থিক বছরে ১৭ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন নেমে ৩.৬ শতাংশে পৌঁছেছিল।

[আরও পড়ুন:'দেশ ছাড়ার আগে অরুণ জেটলিকে সবকিছু জানিয়েছিলাম', লন্ডনে দাঁড়িয়ে বিস্ফোরক দাবি বিজয় মালিয়ার]

Have a great day!
Read more...

English Summary

Inflation dips to 10-month low of 3.69 per cent in August