Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

কোচবিহারে ঠাকুর দেখতে বেরিয়ে ধর্ষিতা দুই কিশোরী, দমদমে বাড়িতে ঢুকে ধর্ষণের হুমকি

  • By: Oneindia Bengali Digital Desk
Subscribe to Oneindia News

কোচবিহার ও কলকাতা, ৩১ অক্টোবর : প্রতিবেশী দুই যুবককে ভরসা করে ঠাকুর দেখতে বেরিয়েছিল দুই কিশোরী। তাদের হাতেই ধর্ষণের শিকার হতে হল কিশোরীদের। লজ্জায়, অপমানে দুই কিশোরীই আত্মহত্যার চেষ্টা করে। একজন বরণ করে মৃত্যুকে, অপরজন পাঞ্জা লড়ছেন মৃত্যুর সঙ্গে। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনা ঘটেছে কোচবিহারের মাথাভাঙায়। ঘটনার পর থেকেই পলাতক অভিযুক্ত দুই যুবক।

অপরদিকে দমদমে দীপাবলির রাতে এক যুবককে মারধরের প্রতিবাদ করেছিলেন মহিলা। প্রতিবাদী হওয়ায় তাঁর কপালে জুটল ধর্ষণের হুমকি। যুবককে বাঁচাতে গেলে তাঁকে শ্লীলতাহানি করা হয় বলে অভিযোগ। দমদম থানা এফআইআর না নিয়ে সাধারণ ডাইরি নিয়েই দায় সারে। দুই কিশোরী সম্পর্কে পিসি-ভাইঝি। নবম শ্রেণির পড়ুয়া। পাড়ারই দুই যুবকের সঙ্গে কালীপুজোর রাতে ঠাকুর দেখতে বেরিয়েছিল। সুযোগ পেয়ে দুই কিশোরীর উপর যৌন নির্যাতন চালায় দুই যুবক। নির্জন স্থানে নিয়ে গিয়ে তাদের ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ।

কোচবিহারে ঠাকুর দেখতে বেরিয়ে ধর্ষিতা দুই কিশোরী, দমদমে বাড়িতে ঢুকে ধর্ষণের হুমকি

শনিবার রাতেই বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে তাদের একজন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই কিশোরীকে ভর্তি করা হয় মাথাভাঙা হাসপাতালে। ওই কিশোরী মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। পরদিন অর্থাৎ রবিবার রাতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে অপর কিশোরী। সোমবার সকালে তার দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। দুই যুবক রুদ্র তালুকদার ও টোটন সরকার ঘটনার পর থেকেই পলাতক। তাদের বিরুদ্ধে মাথাভাঙা থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। রুদ্র ও টোটনের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।

রবিবার রাতে দমদমের আর এন গুহ রোডে বাড়িতে ঢুকে ধর্ষণের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ ওঠে এক যুবকের বিরুদ্ধে। দমদম থানায় এই অভিযোগ জানাতে গিয়েও নিরাপত্তা পেলেন না ওই অভিযোগকারিণী। এক যুবককে মারধরের প্রতিবাদ করেছিলেন ওই মহিলা। তখনই অভিযুক্ত যুবক তাঁর শ্লীলতাহানি করে বলে অভিযোগ। তারপর বাড়িতে ঢুকে ধর্ষণের হুমকি দেয় ওই দুষ্কৃতী। পুলিশ এফআইআর না নিয়ে জিডি লিখেই দায় সারে বলে অভিযোগ। মহিলা ও তাঁর পরিবার কার্যত আতঙ্কিত এই ঘটনায়।

English summary
Two girl raped at west Bengal
Please Wait while comments are loading...