Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

স্ত্রীকে খুন! অভিযুক্ত স্বামীকে ছাড়িয়ে আনতে গিয়ে জনতার হাতে আক্রান্ত পুলিশ, পাল্টা লাঠিচার্জ

Subscribe to Oneindia News

বাঁকুড়া, ২১ এপ্রিল : ফের রোষে পুলিশ। মহিলার রহস্যমৃত্যুকে কেন্দ্র করে এবার বাঁকুড়ার রাজোগ্রামে আক্রান্ত হল পুলিশ। গতকাল শালবনীর ভাদুতলায় আইসিকে রাস্তায় ফেলে মারধর করা হয়। এবার পুলিশের কাছ থেকে অভিযুক্তকে ছিনতাইয়ের চেষ্টায় মারধর করা হয় পুলিশকে। পুলিশ পাল্টা লাঠিচার্জ করে জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে। ধুন্ধুমার কাণ্ড বেধে যায় এলাকায়।

অভিযোগ, স্বামীই স্ত্রীকে খুন করে ঝুলিয়ে দিয়েছে বারান্দায়। শুধু এক্ষেত্রেই নয়, এর আগেও একাধিকবার বিদ্যুৎ পান নামে ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে এই অভিযোগ ওঠে। একাধিক বিয়ে করেছে, তারপর স্ত্রীকে খুন করেছে ওই ব্যক্তি। এদিন ফের বিদ্যুতের বাড়িতে এক মহিলার মৃত্যুর পর তাই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে জনতা। জনতার রোষানলে পড়ে অভিযুক্ত স্বামী।

স্ত্রীকে খুন! অভিযুক্ত স্বামীকে ছাড়িয়ে আনতে আক্রান্ত পুলিশ

পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত পাঠায়। গ্রেফতার করে অভিযুক্ত স্বামীকে। পুলিশ ভ্যান থেকে অভিযুক্তকে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে ক্ষিপ্ত জনতা। তাঁদের দাবি, পুলিশ এতদিন কিছু করেনি। একজনের পর একজন মহিলা বেঘোরে প্রাণ হারিয়েছে। এবার তারাই শাস্তি দেবে অভিযুক্তকে।

এরপরই জনতা-পুলিশ খণ্ডযুদ্ধ বেধে যায়। পুলিশ আক্রান্ত হয় জনতার হাতে। পাল্টা লাঠিচার্জ করে পুলিশ। এক পুলিশ গুরুতর আহত হয়েছেন এই ঘটনায়। তাঁর হাতে ও মাথায় আগাত লেগেছে। বেশ কয়েকজন জনতাও জখম হন।

এদিকে স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বছর তিনেক আগে বিয়ে হয় বিদ্যুৎ ও রূপালির। বিয়ের পর থেকেই স্ত্রী-র উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালাত বিদ্যুৎ। এদিন সকালে বাড়ির সিঁড়ির কাছে বারান্দায় বধূর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। অভিযোগ, স্ত্রীকে খুন করে ঝুলিয়ে দিয়েছে স্বামীই। এর আগেও একাধিকবার এমন ঘটনা ঘটিয়েছে সে।

English summary
Police was attacked again at Bankura, husband was accused in wife murder
Please Wait while comments are loading...