Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

জন্মদিনে বন্ধুদের ডাকে বেরিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্রের রহস্যমৃত্যু, জোরালো ত্রিকোণ প্রেমের তত্ত্ব

Subscribe to Oneindia News

হুগলি, ২৭ ফেব্রুয়ারি : হুগলির মাহেশের ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্রের রহস্য মৃত্যুর ঘটনায় ত্রিকোণ প্রেমের তত্ত্বই প্রকট হচ্ছে। মৃত সায়র করের এক বন্ধুর ভূমিকা যথেষ্ট সন্দেহজনক বলে মনে করছেন তদন্তকারীরা। জন্মদিনে ফেসবুক বান্ধবীর ফোন পেয়ে বেরিয়েছিলেন সায়র। মাকে বলে গিয়েছিলেন বন্ধুদের সঙ্গে দেখা করে বাড়িতে ফিরে খাওয়া-দাওয়া করবেন। কিন্তু রাত গড়িয়ে গেলেও ফেরেননি সায়র। একবার ফোনে সায়র জানান, ট্রেনে করে বাড়ি ফিরছেন, তারপর থেকেই ফোন সুইচড অফ।

সায়রের দুই বন্ধুর বিরুদ্ধে এ্রফআইআর দায়ের করেছেন বাবা রতনকুমার কর। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান সায়রের মৃত্যু দুর্ঘটনা বা আত্মহত্যা। কিন্তু সায়রের বাবা-মায়ের অভিযোগ, তাঁদের ছেলেকে পরিকল্পনা করে খুন করা হয়েছে। পুলিশ খতিয়ে দেখছে সেই অভিযোগ।

জন্মদিনে বন্ধুদের ডাকে বেরিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্রের রহস্যমৃত্যু, জোরালো ত্রিকোণ প্রেমের তত্ত্ব

গত ২৩ ফেব্রুয়ারি জন্মদিনের সকালে সাড়ে সাতটা নাগাদ সুরজিৎ বণিক নামে হাওড়ার সালিকয়ার বন্ধু তাঁকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। দু'জনে স্কুটিতে করে বের হন। দুপুরে বাড়ি ফিরেও আসেন। তারপর দুপুরে বাড়িতে খেতে বসার আগে ফেসবুক বান্ধবীর ফোন। পরক্ষণেই আর এক বন্ধ বিশালের ফোন। না খেয়েই সঙ্গে সঙ্গে বেরিয়ে গিয়েছিলেন সায়র।

বাবা রতন করের অভিযোগ, রাত ন'টা নাগাদ ফোন করতে সায়র জানিয়েছিল ভদ্রেশ্বরে আশ সে, ট্রেনে ফিরছে। তারপর রাত দশটা থেকেই ফোন সুইচড অফ। সারা রাত ফোন করে আর যোগাযোগ করা যায়নি। শুরু হয় খোঁজাখুঁজি। মিসিং ডায়েরিও করা হয়। সায়রের বন্ধু সুরিজৎকে ফোন করেন রতনবাবু। সুরজিৎ জানান, 'আমি বালিঘাট স্টেশনে নেমে গিয়েছি, সায়র দমদম যাচ্ছিল। তখনই সন্দেহ প্রকট হয় বাবার। এরপর আর সুরজিতের সঙ্গেও যোগাযোগ করা যায়নি। নানা অজুহাতে ফোন ধরেনি সুরজিৎ। ওইদিনই গভীর রাতে রিষড়র রেলট্র্যাক থেকে সায়রের দেহ পাওয়া যায়।

সায়রের এই রহস্য মৃত্যুর ঘটনায় সুরজিৎ ও বিশাল নামের দুই বন্ধুর পাশাপাশি এক বান্ধবীর নামও উঠে এসেছে। পুলিশ খতিয়ে দেখছে, কোনও ত্রিকোণ প্রেমের ঘটনা এই মৃত্যুর পিছনে ছিল না কি না। এই সম্ভবানা একেবারে উড়িয়ে দিচ্ছে না পুলিশ। বিশালের ভূমিকা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। খতিয়ে দেখা হচ্ছে ফোনের কললিস্টও।

English summary
Mysterious death of a engineering student on his birthday, triangular theory of love is being strong.
Please Wait while comments are loading...