Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

শিশুপাচার কাণ্ড : বিজেপিকে অস্বস্তিতে ফেলে বিস্ফোরক জুহি

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News

শিলিগুড়ি , ২ মার্চ : জেরার মুখে পুলিশের কাছে চাঞ্চল্যকর স্বীকারোক্তি শিশুপাচারকাণ্ডে ধৃত বিজেপি নেত্রী জুহি চৌধুরির। বিজেপির অস্বস্তি বাড়িয়ে তিনি জানিয়েছেন বিজেপিরই এক সাংসদের পরামর্শে তিনি নেপালে পালিয়ে যেতে চাইছিলেন।[শিশুপাচারকাণ্ডের চাপ কাটাতে চিটফান্ড অস্ত্রে শান দিচ্ছে বিজেপি!]

জেরার মুখে জুহি আরও জানিয়েছে, উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন এলাকায় ৪ টি হোম খোলার পরিকল্পনা ছিল চন্দনা চক্রবর্তী ও জুহি চৌধুরির। হোমের অনুমোদনের জন্য এক বিজেপি সাংসদের বাড়িতে গিয়ে বৈঠকও করেন জুহি। এই হোমগুলি যাতে নিয়মিত সরকারি অনুদান পায় সে বিষয়টি নিশ্চিত করতে চায় জুহি।[শিশুপাচার কাণ্ড : 'মমতার সরকারের বিরুদ্ধে মামলা করার জন্য তৈরি', বললেন রূপা গঙ্গোপাধ্যায়]

শিশুপাচার কাণ্ড:বিজেপিকে অস্বস্তিতে ফেলে বিস্ফোরক জুহি

এদিকে শিশুপাচারে নাম জডি়য়ে যেতেই গ্রেফতারি এড়াতে রাজ্য ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ার ছক কষেন জুহি । এজন্য শিলিগুড়ি-নেপাল সীমান্তে খড়িবাড়ি এলাকায় গা ঢাকা দিয়েছিলেন তিনি। সেখানে থেকে তিনি সিআইডির জালে ধরা পড়েন। জুহিকে ১২ দিনের সিাইডি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেয় জলপাইগুড়ি আদালত। এদিকে ধরা পড়ার পর জুহিকে দল থেকে বহিষ্কার করেছে বিজেপি । দল থেকে বহিষ্কার করা হয় জুহি চৌধুরির বাবা বিজেপি নেতা রবীন্দ্র নায়ারণ চৌধুরিকেও।[বিজেপির মহিলা সাংসদের পরামর্শেই নেপাল পালানোর ছক, বিস্ফোরক দাবি জুহির]

যদিও দল থেকে জুহিকে ছেটে ফেললেও, গোটা ঘটনায় অস্বস্তি এড়াতে পারছেনা রাজ্য বিজেপি। এরমধ্যে শিশুপাচারকে কেন্দ্র করে জুহির গ্রেফতারিতে, রাজ্য সরকারের দিকে তোপ দেগেছেন বিজেপির জাতীয় কর্মসমিতির সাধারণ সম্পাদক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়। ফলে সবমিলিয়ে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিজেপির অবস্থান নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা রয়েই গিয়েছে।[শিশুপাচারকাণ্ডে জুহির গ্রেফতারের পর চাপ বাড়ল বিজয়বর্গীয়-রূপা-দিলীপদের]

English summary
Juhi chawdhury puts BJP in uncomfortable situation at police interrogation.The Bengal unit of the BJP on Wednesday removed Juhi Chowdhury from the position of a state secretary of its mahila morcha following her arrest in a child trafficking case.
Please Wait while comments are loading...